২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

সাত খুনের ২২ আসামি হাজিরা শেষে কারাগারে

অনলাইন ডেস্ক ॥ নারায়ণগঞ্জে সাত খুন মামলায় অভিযুক্ত র‌্যাবের সাবেক তিন কর্মকর্তাসহ ২২ আসামিকে হাজিরা শেষে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

এছাড়া পলাতক ১৩ আসামির মালামাল জব্দের নির্দেশনার বিষয়ে পুলিশকে পরবর্তী ধার্য তারিখ ৬ সেপ্টেম্বরে প্রতিবেদন দাখিলে নির্দেশ দিয়েছে আদালত।

বুধবার নারায়ণগঞ্জের জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম চাঁদনী রূপম এই আদেশ দেন বলে জানান মামলায় বাদীপক্ষের আইনজীবী ও জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি সাখাওয়াত হোসেন।

এদিকে অভিযোগ থেকে অব্যাহতি পাওয়া ৫ আসামি মামলার বাদী নিহত নজরুল ইসলামের স্ত্রী সেলিনা ইসলাম বিউটিকে আদালত প্রাঙ্গণে হুমকি দিয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

সেলিনা ইসলাম বিউটি আদালত প্রাঙ্গণে একথা সাংবাদিকদের জানান।

অতিরিক্ত পাবলিক প্রসিকিউটর কেএম ফজলুর রহমান জানান, গত ৮ জুলাই ৭ খুনের এ মামলায় বাদীর নারাজী আবেদন নাকচ করে তদন্তকারী কর্মকর্তার দেওয়া অভিযোগপত্র গ্রহণ করে আদালত।

একই সঙ্গে পলাতক আসামিতে মালামাল জব্দের নির্দেশও দেয়।

গত ২৭ এপ্রিল ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ লিংক রোডের ফতুল্লার শিবু মার্কেট এলাকা থেকে কাউন্সিলর নজরুল ইসলাসহ ৭ জনকে অপহরণ করা হয়। এর তিন দিন পর শীতলক্ষ্যা নদী থেকে তাদের লাশ উদ্ধার করা হয়।

এই ঘটনায় নিহত নজরুল ইসলামের স্ত্রী সেলিনা ইসলাম বিউটি বাদী হয়ে একটি ও আইনজীবী চন্দন সরকারের জামাতা বিজয় কুমার পাল বাদী হয়ে ফতুল্লা মডেল থানায় মামলা দায়ের করেন।

গত ৯ এপ্রিল দীর্ঘ মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মামুনুর রশিদ মন্ডল নারায়ণগঞ্জের জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম আদালতে নূর হোসেন, র‌্যাবের সাবেক তিন কর্মকর্তা লেফটেন্যান্ট কর্নেল (অব্যাহতিপ্রাপ্ত) তারেক সাঈদ মোহাম্মদ, মেজর (অব্যাহতিপ্রাপ্ত) আরিফ হোসেন ও লেফটেন্যান্ট কমান্ডার (অব্যাহতিপ্রাপ্ত) এম এম রানাসহ ৩৫ জনের নামে অভিযোগপত্র দাখিল করেন।

বর্তমানে র‌্যাবের সাবেক ওই তিন কর্মকর্তাসহ ২২ জন কারাগারে আটক রয়েছেন। পলাতক রয়েছেন ১৩ জন।