২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

যশোরে যৌতুকের জন্য গৃহবধূকে পিটিয়ে হত্যা

স্টাফ রিপোর্টার, যশোর অফিস ॥ অভয়নগর উপজেলার বড়াল গ্রামে শারমিন বেগম (১৯) নামে এক নববিবাহিত গৃহবধূকে হত্যা করা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। বুধবার সকালে পুলিশ ওই গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করেছে। তবে পুলিশ বলছে, গৃহবধূ শারমিন বেগম বিষপানে আত্মহত্যা করেছেন। তিনি নড়াইল সদর উপজেলার মহিষখোলা গ্রামের আবুল সরদারের মেয়ে। গেল রমজানের দু’দিন আগে অভয়নগর উপজেলার মুজিবর মল্লিকের ছেলে ভ্যানচালক আব্দুল আলিম মল্লিকের সঙ্গে তার বিয়ে হয় বলে জানিয়েছে পুলিশ। শারমিনের নানা তবিবুর রহমান শেখ জানান, ৫০ হাজার টাকা যৌতুকের দাবিতে মঙ্গলবার সকালে শারমিনকে পিটিয়ে হত্যা করে তার স্বামী আলিম। এর পর তার লাশ গলায় রশি দিয়ে ঘরের আড়ায় ঝুঁলিয়ে বাবার বাড়িতে খবর দেয়।

পটিয়ায় পুলিশের সোর্সকে গণধোলাই

নিজস্ব সংবাদদাতা, পটিয়া, ৫ আগস্ট ॥ যাত্রীবাহী বাসে তল্লাশির নামে এক মহিলার শ্লীলতাহানি করায় পুলিশের সোর্স মোহাম্মদ লিটনকে (৪৫) জনতা গণধোলাই দিয়েছে। ওই সময় পটিয়া থানার উপ-পরিদর্শক মোঃ আরিফ ও রিজার্ভ পুলিশের কনস্টেবল মাহমুদকে জনতা অবরুদ্ধ করে রাখে। মঙ্গলবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় চট্টগ্রাম-কক্সবাজার আরকান মহাসড়কের পটিয়া উপজেলার খরনা রাস্তার মাথা এলাকায় এই ঘটনা ঘটে। পুলিশের সোর্স লিটনকে বুধবার দুপুরে ৫৪ ধারায় পটিয়া সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে প্রেরণ করেছে।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, দীর্ঘদিন ধরে পটিয়া থানা পুলিশ উপজেলার খরনা রাস্তার মাথা এলাকায় বিভিন্ন যানবাহনে তল্লাশি করে আসছিল। এসআই মোঃ আরিফের উপস্থিতিতে মঙ্গলবার থানার সোর্স লিটন ও কনস্টেবল মাহমুদ গাড়ি তল্লাশি চালাকালে এক মহিলার স্পর্শকাতর জায়গায় হাত দিলে তিনি চিৎকার দিয়ে ওঠেন। একপর্যায়ে বাসের যাত্রী ও স্থানীয়রা গণধোলাই দিয়ে পুলিশসহ সোর্সকে অবরুদ্ধ করে রাখে। খবর পেয়ে সহকারী পুলিশ সুপার (পটিয়া সার্কেল) শামীম হোসেন ও পটিয়া থানার ওসি রেফায়েত উল্লাহ চৌধুরী সোর্স লিটনসহ থানার এসআই মোহাম্মদ আরিফ ও কনস্টেবল মাহমুদকে উদ্ধার করেন।

সাত মার্চের ভাষণ ছিল সর্বশ্রেষ্ঠ রণকৌশল ॥ ড. হারুন-অর-রশিদ

নিজস্ব সংবাদদাতা, গাজীপুর, ৫ আগস্ট ॥ জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃক আয়োজিত স্বাধীন বাংলাদেশের অভ্যুদয়ের ইতিহাস’ শীর্ষক কলেজ শিক্ষকদের প্রশিক্ষণ কর্মশালার ৯ম দিন বুধবার অনুষ্ঠিত হয়েছে। গাজীপুরের বোর্ডবাজারস্থিত বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেট হলে কলেজ শিক্ষকদের প্রথম ব্যাচের এ প্রশিক্ষণ কর্মশালায় জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. হারুন-অর-রশিদ বক্তব্য রাখেন। প্রফেসর ড. হারুন-অর-রশিদ বলেন, ৭০-এর নির্বাচনে আওয়ামী লীগের নিরুঙ্কুশ বিজয়ে বাংলাদেশের স্বাধীনতাকে ত্বরান্বিত করে। আর ৭ই মার্চের ঐতিহাসিক ভাষণে বঙ্গবন্ধুর সরাসরি স্বাধীনতার ঘোষণা না দেয়া ছিল তাঁর সর্বশ্রেষ্ঠ রণকৌশল।

সিগন্যাল কোরের সমাপনী কুচকাওয়াজ

যশোর সেনানিবাস

স্টাফ রিপোর্টার, যশোর অফিস ॥ যশোর সেনানিবাসের শহীদ ক্যাপ্টেন আব্দুল হামিদ প্যারেড গ্রাউন্ডে সেনাবাহিনীর সিগন্যাল কোরের ১৪-২ রিক্রুট ব্যাচের শিক্ষা সমপানী কুচকাওয়াজ অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার সকালে অনুষ্ঠিত কুচকাওয়াজে প্রধান অতিথি ছিলেন কাতার সেনাবাহিনীর সিগন্যাল কোরের কমান্ডার মেজর জেনারেল আলী ইসমাইল এইচ. জেয়ারা। প্রধান অতিথি কুচকাওয়াজ পরিদর্শন এবং সালাম গ্রহণ করেন। পরে তিনি প্রশিক্ষণে কৃতিত্ব অর্জনের জন্য সেরা দুজনের হাতে ক্রেস্ট তুলে দেন।