২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

জীবন বাঁচাতেই মহাসড়কে অটোরিক্সা বন্ধের সিদ্ধান্ত ॥ সেতুমন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার, চট্টগ্রাম অফিস ॥ জাতীয় মহাসড়কে তিন চাকার অটোরিক্সা চলতে দেয়া হবে না বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, এখানে আমার কোন স্বার্থ নেই। মানুষের জীবন বাঁচানোর স্বার্থে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। আগে জীবন, তারপর জীবিকা।

মন্ত্রী বুধবার দুপুরে চট্টগ্রামের পটিয়ায় শেখ কামালের জন্মবার্ষিকীর এক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথা বলেন। তিনি জানান, দেশে সাড়ে ২১ হাজার কিলোমিটার সড়ক রয়েছে। এরমধ্যে মহাসড়ক মাত্র সাড়ে ৩ হাজার কিলোমিটার। শুধুমাত্র জাতীয় মহাসড়কে অটোরিক্সা চলাচল নিষিদ্ধ করা হয়েছে। অটোরিক্সা চালকদের জীবিকা এবং মানবিক বিবেচনা প্রসঙ্গে মন্ত্রী বলেন, যেখানে জীবন থাকে না সেখানে কিসের মানবতা? আগে মানুষের জীবন বাঁচাতে হবে। জাতীয় মহাসড়কে অটোরিক্সা চলাচল বন্ধ থাকায় গত সাতদিনে দুর্ঘটনায় কোন প্রাণহানি ঘটেনি বলে উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, কোনভাবেই এ যান চলাচল করতে দেব না। তবে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী এও বলেন যে, ঢাকা-চট্টগ্রামসহ বিভিন্ন মহাসড়কের পাশে তিন চাকার গাড়ির জন্য বাইলেন তৈরি করতে হবে। সিরাজগঞ্জে ইতোমধ্যে বাইলেন তৈরি করা হয়েছে। বাইলেনে অটোরিক্সা চলাচল করতে পারে, মূল সড়কে নয়।

সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বর্তমান সরকারের বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকা- প্রসঙ্গে বলেন, চট্টগ্রামে কর্ণফুলী নদীর তলদেশে টানেল হচ্ছে। ঢাকায় মেট্রোরেল হচ্ছে, দেশের মহাসড়কগুলো সম্প্রসারিত হচ্ছে। কিন্তু এত উন্নয়নের পরও মহাসড়কে দুর্ঘটনা ও প্রাণহানি থামছিল না। পরিবহন ব্যবস্থায় শৃঙ্খলা না আনলে সকল স্বপ্নই দুর্ঘটনায় পতিত হবে। সড়কে প্রাণহানি বন্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নিতে বলেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এরপর সবার সঙ্গে আলোচনা করেই মহাসড়কে অটোরিক্সা চলাচল বন্ধের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। এ সিদ্ধান্তকে জনগণ স্বাগত জানিয়েছে। এতে যাত্রী সাধারণ এমনকি অটোরিক্সা চালকদের জীবনও রক্ষা পাচ্ছে।