২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

না’গঞ্জে ৭ খুন ॥ ১৩ আসামির মালামাল ক্রোকের প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ

  • পরবর্তী শুনানি ৬ সেপ্টেম্বর

নিজস্ব সংবাদদাতা, সিদ্ধিরগঞ্জ, নারায়ণগঞ্জ, ৫ আগস্ট ॥ নারায়ণগঞ্জে আলোচিত ৭ খুন মামলার চার্জশীটভুক্ত আসামি র‌্যাবের সাবেক তিন কর্মকর্তাসহ ২২ জনকে আদালতে হাজিরা শেষে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে। বুধবার সকালে কড়া নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে নারায়ণগঞ্জ সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট চাঁদনী রূপমের আদালতে তাদের হাজির করা হয়। একই সঙ্গে আদালত পলাতক র‌্যাবের ৮ সদস্যসহ ১৩ জনের মালামাল ক্রোকের নির্দেশনার বিষয়ে আদালতসংশ্লিষ্ট থানা পুলিশকে পরবর্তী ধার্য তারিখ আগামী ৬ সেপ্টেম্বরে প্রতিবেদন দাখিল করার নির্দেশ দিয়েছেন বলে জানিয়েছেন মামলার বাদী পক্ষের আইনজীবী এ্যাডভোকেট সাখাওয়াত হোসেন খান।

এর আগে গত ৮ জুলাই ৭ খুনের মামলার বাদী নিহত নজরুল ইসলামের স্ত্রী ও নাসিকের ২নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর সেলিনা ইসলাম বিউটির নারাজি আবেদন নামঞ্জুর (খারিজ) করে তদন্তকারী কর্মকর্তার দাখিল করা ৩৫ জনকে অভিযুক্ত করে দেয়া অভিযোগপত্র (চার্জশীট) গ্রহণ করে আদালত পলাতকদের গ্রেফতারে মালামাল ক্রোকের নির্দেশ দেয়।

এদিকে আদালত প্রাঙ্গণে উপস্থিত মামলার বাদী নিহত নজরুল ইসলামের স্ত্রী সেলিনা ইসলাম বিউটি সাংবাদিকদের কাছে অভিযোগ করেন, অভিযোগপত্র থেকে অব্যাহতি পাওয়া ৫ আসামি তাদেরকে মিথ্যা মামলায় জড়ানোসহ নানা হয়রানি ও হুমকি দিচ্ছে। সাংবাদিকদের তিনি জানান, মামলার অভিযুক্তপত্র থেকে বাদ পড়া ইয়াছিন মিয়া তার বাবা শহীদ চেয়ারম্যান, দেবর আঃ সালামসহ ১৭ জনকে আসামি করে দুইটি মিথ্যা মামলা দায়ের করেছে। মামলায় যা অভিযোগ করা হয়েছে তার সবই মিথ্যা। সাত খুনের এই মামলাকে ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করার জন্য এটা তাদের একটা ষড়যন্ত্র। তিনি এ ব্যাপারে সরকারের সহযোগিতা কামনা করেন।

মামলার বাদী পক্ষের আইনজীবী ও নারায়ণগঞ্জ জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি এ্যাডভোকেট সাখাওয়াত হোসেন খান সাংবাদিকদের জানান, চার্জশিটভুক্ত ৩৫ আসামির মধ্যে গ্রেফতার ২২ আসামিকে আদালতে হাজির করা হয়। পলাতক চার্জশিটভুক্ত বাকি ১৩ আসামিকে মামলার তদন্তকারী সংস্থা গোয়েন্দা বিভাগ (ডিবি) এখনও গ্রেফতার করতে পারেনি। বিষয়টি আদালতে জানানো হয়েছে।