২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

মিস্ত্রাল যুদ্ধজাহাজ বিষয়ে রাশিয়া-ফ্রান্স সমঝোতা

অনলাইন ডেস্ক ॥ রাশিয়ার কাছে দুটি যুদ্ধজাহাজ বিক্রির সিদ্ধান্ত বাতিলের এক বছর পর রাশিয়াকে ক্ষতিপূরণ দিতে রাজি হয়েছে ফ্রান্স।

এ ব্যাপারে দেশদুটির মধ্যে একটি চুক্তির বিষয়ে সমঝোতা হয়েছে বলে দেশদুটির কর্তৃপক্ষের বরাতে জানিয়েছে বিবিসি।

১২০ কোটি ইউরো মূল্যে দুটি হেলিকপ্টারবাহী রণতরী সরবরাহের জন্য ফ্রান্সকে ক্রয়াদেশ দিয়েছিল রাশিয়া। এ বাবদ ৮৪ কোটি ইউরো অগ্রিমও দিয়েছিল।

এটিকে রাশিয়ার কাছে কোনো নেটোভুক্ত দেশের অস্ত্র বিক্রির সর্ববৃহৎ চুক্তি বলে বর্ণনা করা হয়েছিল।

কিন্তু ইউক্রেইনের ক্রিমিয়া অঞ্চলকে রাশিয়া নিজের সীমান্তভুক্ত করে নিলে ২০১৪-র মার্চে রাশিয়ার উপর বাণিজ্য নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে পশ্চিমা দেশগুলো।

পরে পূর্ব ইউক্রেইনে বিদ্রোহী লড়াই শুরু হলে জাহাজ বিক্রির পরিকল্পনা বাতিল করে ফ্রান্স।

কিন্তু এরই মধ্যে জাহাজ দুটি পরিচালনার জন্য ৪০০ নাবিককে বিশেষ প্রশিক্ষণ, ভ্লাদিভস্তক বন্দরে জাহাজ দুটির জন্য অবকাঠামো নির্মাণ এবং চারটি প্রটোটাইপ কেএ-৫২কে হেলিকপ্টার নির্মাণ বাবদ অনেক প্রস্তুতি নিয়ে ফেলা রাশিয়া ফ্রান্সের সিদ্ধান্তে ক্ষতির শিকার হয়।

এখন জাহাজ কেনা বাবদ রাশিয়ার দেয়া পুরো অর্থ ফেরত দেবে ফ্রান্স। এছাড়া জাহাজ দুটিতে স্থাপন করা রাশিয়ার সব যন্ত্রপাতিও ফেরত দেবে।

এক বিবৃতিতে ক্রেমলিন বলেছে, বিষয়টি নিয়ে দুদেশের মধ্যে যে বিব্রতকর তৈরি হয়েছিল তার সম্পূর্ণ অবসান হয়েছে। অপরদিকে ফরাসি প্রেসিডেন্টের দপ্তর থেকে দেওয়া এক বিবৃতিতে জাহাজ দুটির জন্য রাশিয়াকে “ক্ষতিপূরণসহ পুরো অর্থ” দিয়ে দেওয়া হবে বলে জানানো হয়েছে।

এছাড়া নবনির্মিত জাহাজ দুটি ফ্রান্সই রেখে দেবে বলে বিবৃতিতে বলা হয়েছে।

মিস্ত্রাল শ্রেণীর এই জাহাজ দুটিতে ৭০০ সেনা, ১৬টি হেলিকপ্টার গানশিপ ও ৫০টি সাঁজোয়া যান বহন করা যায়।

এখন জাহাজ কেনা বাবদ রাশিয়ার দেয়া পুরো অর্থ ফেরত দেবে ফ্রান্স।