২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

এ্যাশেজ-ব্রড তোপে অস্ট্রেলিয়ার লজ্জা

  • ইংল্যান্ডের পঞ্চম বোলার হিসেবে ৩ উইকেট শিকার, ক্যারিয়ারসেরা বোলিং ৮
  • ১৫, অস্ট্রেলিয়া প্রথম ইনিংস ৬

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ এ্যাশেজের উত্তেজনাটাই আলাদা, ভিন্ন আমেজের বৈচিত্র্যময় মেজাজ থাকেই। মাঠের যুদ্ধের সঙ্গে মিশে যায় স্টেডিয়ামের বাইরেও মনস্তাত্ত্বিক লড়াই। গত এ্যাশেজে অস্ট্রেলিয়া সফরে দারুণ দুঃসময়ে ছিল ইংল্যান্ড। আর অসি ক্রিকেট, ভক্ত-সমর্থক এবং গণমাধ্যমের কুটক্তির//// চরম শিকার ছিলেন ইংলিশ পেসার স্টুয়ার্ট ব্রড। সিরিজ শুরুর আগেই তাকে ‘স্টুয়ার্ট ফ্রড’ নামে অবহিত করা হয়েছিল। সেটার শোধ ব্রিসবেনে হওয়া প্রথম টেস্টেই নিয়েছিলেন ৬ উইকেট শিকার করে। পুরো সিরিজেই ব্রডের গতির কাছে হিমশিম খেয়েছে অসি ব্যাটসম্যানরা। কিন্তু তবু যেন মনের ভেতরে পুষে রাখা রাগটা কমেনি। এবার ট্রেন্টব্রিজে আগুন ঝরিয়ে সেটা উসুল করে নিলেন ২৯ বছর বয়সী এ পেসার। ক্যারিয়ারে প্রথমবার শূন্য রানে ফিরে গেলেন অসি ওপেনার ক্রিস রজার্স, আর ইনিংসের প্রথম ওভারেই তাকে শিকার করে পঞ্চম ইংলিশ বোলার হিসেবে টেস্ট ক্রিকেটে ৩০০ উইকেটশিকারি ক্লাবের সদস্য হয়ে গেলেন। এরপরও থেমে থাকেননি, তা-ব বেড়েছে এবং ল-ভ- হয়ে যাওয়া অস্ট্রেলিয়ার ইনিংস থেমে গেছে মাত্র ৬০ রানেই। ট্রেন্টব্রিজে সর্বনিম্ন এ ইনিংসটি টেস্ট ইতিহাসে প্রথম ইনিংসে সবচেয়ে কম বলে অলআউট হওয়ার লজ্জাজনক রেকর্ড। মাত্র ১৮.১ ওভারেই থেমে গেছে তারা। ভয়ঙ্কর ব্রড ক্যারিয়ারসেরা বোলিং করে ১৫ রানেই তুলে নেন ৮ উইকেট। রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ২ উইকেটে ৯৫ রান তুলে ৩৫ রানে এগিয়ে গেছে ইংল্যান্ড। ইংল্যান্ডের অন্যতম পেস স্তম্ভ জেমস এ্যান্ডারসন ইনজুরির কারণে নেই। তাই পুরো দায়িত্বভারই ব্রডের ওপর। ট্রেন্টব্রিজে বরাবরই পেসারদের জন্য স্বর্গরাজ্য। এ্যান্ডারসনের অনুপস্থিতিতে ব্রড যেন তেলেবেগুনে জ্বলে উঠলেন। প্রথম ওভারের তৃতীয় বলেই টস হেরে ব্যাট করতে নামা অস্ট্রেলিয়া ইনিংসে আঘাত হানলেন, ফেরালেন রজার্সকে। ইংল্যান্ডের পক্ষে ব্রডের ৩০০তম উইকেট। তার আগে ইংল্যান্ড দলের হয়ে এমন কীর্তি দেখিয়েছেন এ্যান্ডারসন (৪১৩), ইয়ান বোথাম (৩৮৩), উইলিস (৩২৫) ও ফ্রেড ট্রুম্যান (৩০৭)। এরপর আর ব্রডের সামনে মাথা উঁচু করার হিম্মত দেখাতে পারেননি কোন অসি ব্যাটসম্যান। মাত্র ৩৫ মিনিটের মধ্যেই অস্ট্রেলিয়ার ৬ উইকেট হারাতে হয়েছে, রান মাত্র ২৯! এর মধ্যেই যমদূত হয়ে অসি শিবিরকে আতঙ্কে শিউরে তোলা ব্রড ৪ ওভারেই তিন মেডেনসহ ৬ রানে নিয়ে ফেলেন ৫ উইকেট। সর্বোচ্চ ১৩ রান করেন পেসার মিচেল জনসন, দ্বিতীয় সেরা অধিনায়ক মাইকেল ক্লার্ক ১০! গত ৭৯ বছরে নিজেদের দ্বিতীয় সর্বনিম্ন ৬০ রানেই অলআউট অস্ট্রেলিয়া। সবমিলিয়ে এটি টেস্ট ক্রিকেটে অসিদের সপ্তম সর্বনিম্ন ইনিংস। যার ৬টিই ইংল্যান্ডের বিপক্ষে! ট্রেন্টব্রিজে এর আগে সর্বনিম্ন দলীয় ইনিংস ছিল ৮০ রানের। ২০১০ সালের জুলাইয়ে পাকিস্তান করেছিল সেটি। ১৮.৩ ওভার অর্থাৎ ১১১ বল খেলেই থামা অস্ট্রেলিয়ার ইনিংসটি সবচেয়ে কম বলে শেষ হওয়া প্রথম ইনিংস টেস্ট ইতিহাসে। ব্রড ৯.৩ ওভারে ৫ মেডেনসহ ১৫ রান দিয়ে ৮ উইকেট নেয়। জবাব দিতে নেমে ইতোমধ্যেই ৩৫ রানে এগিয়ে গেছে ইংল্যান্ড। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত তারা ২ উইকেট হারিয়ে তুলেছে ৯৫ রান। অধিনায়ক এ্যালিস্টার কুক ৪৩ ও জো রুট ৩১ রান নিয়ে ব্যাট করছেন। ব্রডের পর ঝড় তুলেছেন অসি পেসার মিচেল স্টার্কও। তিনি ফিরিয়ে দিয়েছেন এডাম লিথ (১৪) ও ইয়ান বেল (১)।