২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

তালতলী উপজেলা চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে মামলা

নিজস্ব সংবাদদাতা, আমতলী॥ বৃহস্পতিবার রাতে বরগুনার তালতলী থানার ওসি বাবুল আখতার উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও যুবলীগ সভাপতি মনিরুজ্জামান মিন্টুসহ তিন জনের বিরুদ্ধে সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের অবসরপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক সুন্দর আলী গাজীকে পেটানোর ঘটনার মামলা নিয়েছেন। ওই রাতেই পুলিশ আসামী আলী আহম্মেদ ফরাজীকে গ্রেফতার করেছে।

পুলিশ সুত্রে জানাগেছে, বৃহস্পতিবার রাত ৮ টার দিকে নির্যাতিত অবসরপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক সুন্দর আলী গাজী তালতলী থানায় উপজেলা যুবলীগ সভাপতি ও উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মনিরুজ্জামান মিন্টু, জাকিরতবক সালেহিয়া দাখিল মাদ্রাসার সুপার মাওলানা আনোয়ার হোসেন ও আলী আহম্মদ ফরাজীসহ অজ্ঞাতনামা ২০-২৫ জনের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন। গত ২৩ জুলাই তালতলী শহরে প্রকাশ্যে দিবালোকে অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষককে মারধর ও অমানবিক নির্যাতন করে উপজেলা চেয়ারম্যান। ওই সময় চেয়ারম্যানের ভয়ে তিনি পালিয়ে বেড়িয়েছেন মামলা করতে পারেনি। এ ঘটনায় উচ্চ আদালতে একটি রিট পিটিশন দায়ের করেন। উচ্চ আদালতের নির্দেশে তালতলী থানার মামলা গ্রহন করেছে। ওই রাতেই মামলার আসামী আলী আহম্মদ ফরাজীকে পুলিশ গ্রেফতার করেছে। পুলিশ আসামীকে শুক্রবার সকালে আমতলী সিনিয়র জুুডিশিয়াল ম্যাজিষ্টেট আদালতের জ্যৈষ্ঠ বিচারক বৈজয়ন্ত বিশ্বাসের আদালতে হাজির করলে বিজ্ঞ বিচারক তাকে জেল হাজতে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন।