২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

সংখ্যালঘুর জমি দখলের অভিযোগ তদন্তের দাবি বিএনপির

  • যুদ্ধ করেই গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করা হবে ॥ লে.জে. মাহবুব

স্টাফ রিপোর্টার ॥ মন্ত্রী খন্দকার মোশাররফ হোসেনের বিরুদ্ধে হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রীস্টান ঐক্য পরিষদ সংখ্যালঘুদের বাড়ি দখলের যে অভিযোগ করেছে তা তদন্ত করার জন্য সরকারের প্রতি দাবি জানিয়েছে বিএনপি। শুক্রবার নয়াপল্টনে বিএনপি কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে দলের মুখপাত্র ও আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক ড. আসাদুজ্জামান রিপন এ কথা বলেন। সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবে এক অনুষ্ঠানে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য লে. জেনারেল (অব) মাহবুবুর রহমান বলেছেন, যুদ্ধ করেই গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করতে হবে। সংখ্যালঘুদের জন্য পৃথক একটি মন্ত্রণালয়ের প্রয়োজন হয়ে পড়েছে উল্লেখ করে আসাদুজ্জামান রিপন বলেন, ভারতের মতো ধর্মনিরপেক্ষ দেশে যদি সংখ্যালঘুদের জন্য আলাদা মন্ত্রণালয় থাকে তাহলে বাংলাদেশে কেন হতে পারে না। আমার ব্যক্তিগত অভিমত, সংখ্যালঘুদের জন্য আলাদা একটি মন্ত্রণালয় হওয়া উচিত এবং এটি যুক্তিযুক্ত। তিনি বলেন, সরকার কোনকিছুই সামাল দিতে পারছে না। তাই দেশের কোন শ্রেণীর মানুষই এদের প্রতি খুশি নয়। শুধু খুশি ৫ শতাংশ মানুষ, যারা এ সরকারকে ভোট দিয়েছে। বাকি ৯৫ শতাংশ মানুষ এ সরকারকে আর দেখতে চায় না।

বিএনপি কোন সংখ্যালঘু, সংখ্যাগুরু তত্ত্বে বিশ্বাস করে না উল্লেখ করে রিপন বলেন, এ দেশে আমরা সবাই বাংলাদেশী। আইন ও সংবিধানসম্মত অধিকারের দৃষ্টিতে সবাই সমান, আমরা এ তত্ত্বে বিশ্বাস করি। হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রীস্টান সম্প্রদায়ের প্রতি আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, আপনাদের ঝেড়ে কাশার সময় হয়েছে। ইনিয়ে-বিনিয়ে বা ঘুরিয়ে-পেঁচিয়ে নয়, সরাসরি বলুন; শাসক দলের মন্ত্রী-এমপি ও লোকেরা আপনাদের নির্যাতন করছে। সম্পত্তি দখল করছে। মেয়েদের ধর্ষণ করছে।

বিএনপির মুখপাত্র বলেন, হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রীস্টান ঐক্য পরিষদ বৃহস্পতিবার অভিযোগ করেছে, দেশের বিভিন্ন স্থানে শাসক দলের লোকেরা তাদের সম্পত্তি দখল করছে। তাদের মেয়েদের ধর্ষণ করছে। তারা স্থানীয় সরকারমন্ত্রীর নাম উল্লেখ করে বলেছেন, ফরিদপুরে হিন্দু জমিদারবাড়ির দেয়াল ভেঙ্গে জায়গা দখল করা হচ্ছে। ঠাকুরগাঁওয়ের সংসদ সদস্য দবিরুল ইসলাম হিন্দু সম্প্রদায়ের ভূমি দখল করেছেন। রিপন বলেন, আওয়ামী লীগ আগে প্রচার করত বিএনপি রাষ্ট্র ক্ষমতায় থাকলে দেশের সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের মানুষ নির্যাতন ভোগ করে। কিন্তু এখন প্রমাণিত হয়েছে, বিএনপি নয়; আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় থাকলে হিন্দুদের সম্পত্তি জবরদখল হয়। মানুষ নির্যাতনের শিকার হয়। বর্তমানে শাসক দলের লোকদের হাতে বিশেষ করে মন্ত্রী-এমপিদের হাতে তারা নির্যাতনের শিকার হচ্ছেন।

যুদ্ধ করেই গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করতে হবেÑ মাহবুবুর রহমান ॥ বাঁচার জন্য গণতান্ত্রিক অধিকার ফিরিয়ে আনতে হবে মন্তব্য করে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য লে. জেনারেল (অব) মাহবুবুর রহমান বলেছেন, যুদ্ধ করেই গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করতে হবে। এজন্য সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। শুক্রবার সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবে বিএনপির যুগ্মমহাসচিব আমানউল্লাহ আমান ও ছাত্রদল সভাপতি রাজিব আহসানের মুক্তির দাবিতে ঢাকা জেলা ছাত্রদল আয়োজিত প্রতিবাদ সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

ঢাকা জেলা ছাত্রদল সভাপতি রেজাউল করিম পলের সভাপতিত্বে এতে আরও বক্তব্য রাখেনÑ ঢাকা জেলা বিএনপির সভাপতি ও বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা আবদুল মান্নান, সহ-তথ্য গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক হাবীবুর রহমান হাবীব, মহিলা দলের সাধারণ সম্পাদক শিরিন সুলতানা, ডেমোক্র্যাটিক লীগের সাধারণ সম্পাক সাইফুদ্দিন আহম্মেদ মনি, জাগপা সাধারণ সম্পাদক খন্দকার লুৎফর রহমান প্রমুখ।

এদিকে, ঢাকা জেলা ছাত্রদলের প্রতিবাদ সমাবেশে যোগ দিতে এসে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে থেকে ছাত্রদলের পাঁচ কর্মী পুলিশের হাতে আটক হন বলে অভিযোগ করে আয়োজক সংগঠন।