২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

স্টুডেন্ট কেবিনেট নির্বাচন অনুষ্ঠিত

স্টাফ রিপোর্টার ॥ মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও দাখিল মাদ্রাসায় প্রথমবারের মতো অনুষ্ঠিত হচ্ছে স্টুডেন্ট কেবিনেট নির্বাচন। সারা দেশে সকাল ৮টা থেকে ভোটগ্রহণ শুরু হয়ে দুপুর ১টা পর্যন্ত বিরতিহীনভাবে ভোটগ্রহণ চলে। শনিবার সকাল ৮টায় রাজধানীর মিরপুর ১০ নম্বরে আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ে ভোটগ্রহণ শুরু হয়। শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ বিদ্যালয়টিতে নির্বাচন প্রক্রিয়া পরিদর্শন করেন।

সারা দেশের ৪৮৭টি উপজেলা ও ৮টি মহানগরের এক হাজার ৪৩টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে এই নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এরমধ্যে ৪৯৫টি মাধ্যমিক বিদ্যালয়, ৪৮৭টি দাখিল মাদ্রাসা এবং ৬১টি কারিগরি মাধ্যমিক বিদ্যালয় রয়েছে। মোট ভোটারের সংখ্যা ৬ লাখ ২৪ হাজার ৫৩২ জন। নির্বাচনে ৮ হাজার ৩৪৪টি পদের বিপরীতে প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থী ১৫ হাজার ৮৪৩ জন।

সূত্র জানায়, ৬ষ্ঠ থেকে ১০ম শ্রেণিতে অধ্যয়নরত প্রত্যেক ছাত্র-ছাত্রী এ নির্বাচনে ভোট দিতে পারবে। প্রত্যেক ভোটার প্রত্যেক শ্রেণিতে ১টি এবং সর্বোচ্চ ৩টি শ্রেণিতে ১টি করে মোট ৮টি ভোট দিতে পারবে। প্রত্যেক শ্রেণি থেকে একজন করে পাঁচটি শ্রেণি হতে পাঁচজন এবং পরবর্তী সর্বোচ্চ ভোট প্রাপ্ত তিন শ্রেণি থেকে একজন করে তিনজনসহ মোট ৮ জন নিয়ে স্টুডেন্টস কেবিনেট গঠিত হবে।

স্টুডেন্টস কেবিনেট প্রতিমাসে অন্তত একটি করে সভা করবে। কেবিনেট প্রধান সভায় সভাপতিত্ব করবে। শিক্ষকরা কেবিনেটে সিদ্ধান্ত গ্রহণ ও বাস্তবায়নে সহযোগিতা ও পরামর্শ দেবেন।

নির্বাচন উপলক্ষে এ বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীরা বিভিন্ন রঙের পোস্টার ও সাজসজ্জায় সাজিয়েছে শিক্ষাঙ্গন। ঢাক-ঢোল ও তবলার তালে তালে উৎসবমুখর পরিবেশে বিদ্যালয়টিতে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

এ বিদ্যালয়ে মোট ভোটার সাড়ে ১২শ’, কেবিনেট গঠন করতে ১৮ জন প্রার্থী নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছে।

নির্বাচন কমিশনারের দায়িত্ব পালন করছে শিক্ষার্থীরা নিজেরাই। দশম শ্রেণির ছাত্র আহমেদ আবিদ জানায়, শিক্ষার্থীরা উৎসব মুখর পরিবেশে ভোট দিচ্ছে। এই নির্বাচনের মধ্য দিয়ে অর্জিত জ্ঞান ভবিষ্যতে গণতন্ত্র চর্চায় শিক্ষার্থীদের কাজে লাগবে।

২০১০ সাল থেকে প্রাথমিক বিদ্যালয়ে স্টুডেন্টস কাউন্সিল নির্বাচন হয়ে আসলেও এবারই প্রথম মাধ্যমিক স্তরের শিক্ষার্থীদের এই নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে।