২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

টাঙ্গাইলে দুই প্রতিষ্ঠানে স্টুডেন্টস কেবিনেট নির্বাচন অনুষ্ঠিত

নিজস্ব সংবাদদাতা, টাঙ্গাইল ॥ টাঙ্গাইলে জেলার ১২টি উপজেলার নির্বাচিত ১২টি উচ্চ বিদ্যালয় এবং ১২টি দাখিল মাদ্রাসায় শনিবার দিনব্যাপী প্রথমবারের মতো স্টুডেন্টস কেবিনেট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। এলাকাবাসি ও শিক্ষার্থীদের উপস্থিতিতে এসব ভোট কেন্দ্রে এক উৎসবমুখর পরিবেশ দেখা গেছে। টাঙ্গাইল পুলিশ লাইন্স উচ্চ বিদ্যালয় ভোট কেন্দ্রে ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দিপনার মধ্য দিয়ে ক্ষুদে শিক্ষার্থী ভোটারা সারিবদ্ধ লাইনে দাঁড়িয়ে ভোট দিচ্ছে। এখানে নেই কোন হট্রগোল, নেই কোন অভিযোগ।

টাঙ্গাইল পুলিশ লাইন্স উচ্চ বিদ্যালয়ের ২৩ জন শিক্ষার্থী প্রার্থী হয়ে নির্বাচনে অংশ নিচ্ছেন। এদের মধ্য থেকে ৮ জন নির্বাচিত হবেন। নির্বাচিতরা বিদ্যালয়ের শিক্ষার পরিবেশ বজায় রাখা, বিদ্যালয় প্রাঙ্গন পরিস্কার পরিচ্ছন্ন রাখা, শিক্ষার্থীদের বিদ্যালয়ের উপস্থিতি শতভাগ নিশ্চিত করা সহ বিদ্যালয়ের সার্বিক উন্নয়নে কাজ করবে। জীবনের প্রথমবারের মতো নির্বাচনে অংশ নিতে পেরে খুশী শিক্ষার্থীরা।

সকাল ৮টা হতে দুপুর ২টা পর্যন্ত ভোটগ্রহন অনুষ্ঠিত হয়। কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে ঠিক জাতীয় সংসদ নির্বাচন, উপজেলা পরিষদ নির্বাচন এবং স্থানীয় সরকার নির্বাচনের মতোই। এখানে ক্ষুদে শিক্ষার্থীদের দিয়ে আনসার, পুলিশ-র‌্যাব, নির্বাচন কমিশনার, প্রিজাইটিং অফিসার, পোলিং অফিসার নিয়োগ দেয়া হয়। বিকেলে ভোটের ফলাফল দেয়া হয়। এতে ৬ষ্ঠ শ্রেনীতে নির্বাচিত হয়েছে- ৫৪৪ ভোট পেয়ে মাহতাব হোসেন মাহীম, ২৯৯ ভোট পেয়ে সীমান্ত মহন্ত। ৭ম শ্রেনীতে নিবাচিত হয়েছে- ৪৩৯ ভোট পেয়ে সুমাইয়া, ৩১৮ ভোট পেয়ে সাজনীল আক্তার সেতু। ৮ম শ্রেনীতে নির্বাচিত হয়েছে- ৪৮০ ভোট পেয়ে সোহান। ৯ম শ্রেনীতে নির্বাচিত হয়েছে- ৩৬০ ভোট পেয়ে নাহিদ হাসান। ১০ম শ্রেনীতে নির্বাচিত হয়েছে- ৩২৮ ভোট পেয়ে জাকির হোসেন সুমন।

এ বিষয়ে বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুল কাদের জানান, শিশুকাল থেকেই গনতন্ত্রের চর্চা করার লক্ষে সরকার এ বছরই প্রথমবারের মতো উচ্চ বিদ্যালয় এবং মাদ্রাসায় স্টুডেন্টস কাউন্সিল নির্বাচন করার সিদ্ধান্ত নেয়। এর আগে প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এ ধরনের নির্বাচন হয়েছে। প্রতিটি জেলার প্রতি উপজেলার ১টি উচ্চ বিদ্যালয় ও ১টি মাদ্রাসা নির্ধারন করে শিক্ষা মন্ত্রনালয় থেকে এ নির্বাচনী তফশিল ঘোষনা করা হয়।