২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

সিরিয়ায় গ্যাস হামলা তদন্তের পথ উন্মুক্ত

  • নিরাপত্তা পরিষদে সর্বসম্মত প্রস্তাব পাস

সিরিয়ার দীর্ঘ ও রক্তক্ষয়ী গৃহযুদ্ধে রাসায়নিক অস্ত্র ব্যবহারের তদন্তের জন্য জাতিসংঘের একটি খসড়া প্রস্তাব সর্বসম্মতিভাবে পাস হয়েছে নিরাপত্তা পরিষদে। পর্যবেক্ষকরা বলেছেন, গৃহযুদ্ধে এ পর্যন্ত প্রায় ২ লাখ ৫০ হাজার মানুষ নিহত হয়েছে। খবর আল জাজিরা অনলাইনের।

আলজাজিরা নিটইয়র্কে জাতিসংঘের প্রধান দফতর থেকে জানিয়েছে, শুক্রবার পাস হওয়া খসড়া প্রস্তাবটি এখন সংস্থার মহাসচিব বান কি মুনের কাছে পাঠানো হবে। তদন্ত কমিটির প্যানেল তৈরি এবং তদন্ত কীভাবে পরিচালিত হবে এ ব্যাপারে সুপারিশের জন্য ২০ দিন সময় পাবেন মহাসচিব। প্যানেল এরপর ৯০ দিনের মধ্যে প্রথম রিপোর্ট প্রকাশ করবে। বিবিসির সংবাদদাতা জানান, সিরিয়ার এ বিষয়টির ওপর রাজনৈতিক মতবিরোধ সত্ত্বেও সর্বসম্মতিভাবে প্রস্তাবটির পাস হওয়ায় বিষয়টি গুরুত্ব ও বেশ তাৎপর্য বহন করছে। যুক্তরাষ্ট্র ও সিরীয় প্রেসিডেন্ট বাশার আল আসাদের বলিষ্ঠ সমর্থক রাশিয়ার মধ্যে সিরিয়ায় ক্লোরিন গ্যাস হামলার জন্য দায়ীদের শনাক্তে একটি তদন্ত দল গঠনে জাতিসংঘের প্রতি আনুষ্ঠানিক অনুরোধ বিষয়ক একটি চুক্তি স্বাক্ষরিত হওয়ার পর নিরাপত্তা পরিষদে প্রস্তাবটি গৃহীত হয়।

জাতিসংঘে মার্কিন রাষ্ট্রদূত সামান্থা পাওয়ার বলেছেন, রাসায়নিক হামলার জন্য যারা দায়ী তাদের জবাবদিহিতার পর্যায়ে আনা অপরিহার্য। পরিষদে ভোটাভুটির পর দায়ী ব্যক্তিদের প্রতি অঙ্গুলি নির্দেশ করে এ কথা বলেন পাওয়ার। সিরিয়ার চার বছরের সংঘাতে বিষাক্ত গ্যাস হামলার জন্য দায়ী সাব্যস্তের বিষয়টি চূড়ান্ত হলে ১৫ সদস্য বিশিষ্ট নিরাপত্তা পরিষদের জন্য পদক্ষেপ গ্রহণের সুযোগ তৈরি হবে। সংস্থা এর মধ্যে এ ধরনের হামলার পরিণামের বিরুদ্ধে হুমকি উচ্চারণ করেছে। পাওয়ার শুক্রবার সাংবাদিকদের বলেন, সিরিয়ার যুদ্ধাপরাধীরা দ- থেকে যে অব্যাহতি ভোগ করছে। তা অবসানে এক সংযত উদ্যোগ হচ্ছে এ ভোটাভুটি।

বান কি মুন প্রস্তাবটি সুপারিশ করলে পরিষদ তদন্ত দলকে এক বছরের সময় দেবে বলে প্রত্যাশা করা হচ্ছে। যুক্তরাজ্যভিত্তিক সিরীয় মানবাধিকার গ্রুপ (এসওএইচআর) ৯ জুন এক হিসাবে উল্লেখ করেছিল যে, সিরীয় সহিংসতায় ২ লাখ ৩০ হাজার ৬শ’ ১৮ জন নিহত ও নিখোঁজ হয়েছে। কিন্তু সে সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়ে ২ লাখ ৪০ হাজার ৩শ’ ৮১ তে দাঁড়িয়েছে বলে শুক্রবার ঘোষণা করেছে। তারা এবং এ ঘোষণার পর পাস হয় প্রস্তাবটি। সাম্প্রতিক নিহতের সংখ্যায় দেখা যায়। সিরিয়ায় নিহত ৭১ হাজার ৭শ’ ৮১ জন বেসামরিক লোকের মধ্যে শিশুর সংখ্যা হচ্ছে ১১ হাজার ৯শ’ ৬৪। অন্তত ৮৮ হাজার ৬শ’ ১৬ জন সরকারী সেনা নিহত হয়েছে বলে এসওএইচআর জানিয়েছে। এ সংখ্যা মোট নিহতের সংখ্যার এক তৃতীয়াংশ। পর্যবেক্ষকরা বলেছেন, বিদ্রোহী যোদ্ধা নিহত হয়েছে ৪২ হাজার ৩শ’ ৮৪ জন এবং ৩৪ হাজার ৩শ’ ৭৫ জন বিদেশী যোদ্ধাও নিহত হয়েছে।

নির্বাচিত সংবাদ