২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

৭৫তম জন্মজয়ন্তীতে ভালবাসায় সিক্ত ড. অনুপম সেন

স্টাফ রিপোর্টার, চট্টগ্রাম অফিস ॥ তিনদিনব্যাপী বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানমালার মাধ্যমে সমাজের বিভিন্ন স্তরের মানুষের ভালবাসায় সিক্ত হলেন দেশবরেণ্য সমাজ বিজ্ঞানী, শিক্ষাবিদ, লেখক ও চট্টগ্রাম প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি ড. অনুপম সেন। গত ৫ আগস্ট ছিল তার পঁচাত্তরতম জন্মদিন। ‘ভেঙ্গেছো দুয়ার এসেছ জ্যোতির্ময়’ শিরোনামে ড. অনুপম সেনের পঁচাত্তরতম জন্মজয়ন্তী উপলক্ষে চট্টগ্রাম একাডেমি চট্টগ্রাম জেলা শিল্পকলা একাডেমি প্রাঙ্গণে আয়োজন করে বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানমালার। গত ৫, ৬ ও ৭ আগস্ট প্রতিদিন তাঁকে নিয়ে চলেছে আলোচনা ও প্রবন্ধ পাঠ। আলোচক হিসেবে ছিলেন ড. মাহবুবুল হক, অধ্যাপক আবুল মোমেন, অধ্যাপক গোলাম মোস্তাফা, অধ্যাপক ফেরদৌস আলীম ও অধ্যক্ষ আনোয়ারা আলম।

জন্মজয়ন্তীর উদ্বোধনী দিনে ৫ আগস্ট প্রধান অতিথি বরেণ্য বুদ্ধিজীবী ড. আনিসুজ্জামান বলেন, যার লেখায় আমরা খুঁজে পাই মানব সভ্যতার ইতিহাস, পৃথিবীর ধর্ম বৈষম্যের কথা, বাংলাদেশের শিক্ষার কথা। তিনি বড় প-িত, সমাজ সচেতন কর্মী এবং একজন বড় মানুষ।

দ্বিতীয় দিন ৬ আগস্ট বিকেলে অনুষ্ঠিত হয় ড. অনুপম সেন সুহৃদ সম্মেলন এবং তৃতীয় দিন ৭ আগস্ট তাঁকে নিয়ে অনুষ্ঠিত সেমিনারের মূল প্রতিপাদ্য ছিল বহুমাত্রিক ব্যক্তিত্ব ড. অনুপম সেন। আলোচনায় অংশ নেন সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন, কবি অরুণ দাশগুপ্ত, ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী, ড. গাজী সালেহ উদ্দিন, অধ্যাপক রীতা দত্ত, রেজাউল হক চৌধুরী মুশতাক, অধ্যক্ষ তহুরিন ছবুর ডালিয়া, নেছার আহমেদ। অনুষ্ঠানের সমাপনী দিন ৭ আগস্ট বহুমাত্রিক ব্যক্তিত্ব ড. অনুপম সেন শীর্ষক সেমিনারে ড. মঈনুল ইসলামের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক শামসুজ্জামান খান।

ড. অনুপম সেন ১৯৪০ সালে চট্টগ্রামের বোয়ালখালী উপজেলার ধলঘাট গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। ১৯৬২ সালে তিনি সমাজতত্ত্বে স্নাতক এবং ’৬৩ সালে স্নাতকোত্তর ডিগ্রী লাভ করেন। ’৭৫ সালে তিনি সমাজতত্ত্বে এমএ ডিগ্রী অর্জন করেন এবং ১৯৭৯ সালে লাভ করেন পিএইচডি ডিগ্রী। তাঁর রচিত কিছু বই খ্যাতি অর্জন করেছে।