২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

চেলসির সঙ্গে নতুন চুক্তিতে মরিনহো

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ চেলসির সঙ্গে আরও চার বছরের জন্য নতুন করে চুক্তিবদ্ধ হলেন জোশে মরিনহো। এর ফলে ২০১৯ সাল পর্যন্ত ব্লুজদের হয়েই থাকছেন স্পেশাল ওয়ান খ্যাত এই কোচ। আর প্রিমিয়ার লীগের বর্তমান চ্যাম্পিয়নদের সঙ্গে নতুন চুক্তির বিষয়টি শুক্রবার চেলসিই নিশ্চিত করেছে।

প্রথম মেয়াদে ২০০৪-০৭ সাল পর্যন্ত চেলসির দায়িত্বে ছিলেন ৫২ বছর বয়সী মরিনহো। ২০১৩ সালে পুনরায় স্ট্যামফোর্ড ব্রিজে যোগ দেয়ার পর গত বছর চেলসিকে প্রিমিয়ার লীগ শিরোপা উপহার দেন তিনি। সেই সঙ্গে লীগ কাপেও চ্যাম্পিয়ন হয় মরিনহোর চেলসি। ইংলিশ প্রিমিয়ার লীগের এই ক্লাবটির সঙ্গে মরিনহোর সম্পর্কটা বেশ পুরনো। তাই নতুন করে চুক্তিবদ্ধ হওয়ার পর উচ্ছ্বসিত সাবেক রিয়াল মাদ্রিদের এই কোচ। এ বিষয়ে চেলসির ওয়েবসাইটে তিনি বলেন, ‘যখন আমি এখানে ফিরেছিলাম তখনই বলেছিলাম চেলসির প্রতি আমার বিশেষ অনুভূতি আছে এবং এখনও তার কোন পরিবর্তন হয়নি। আমি মনে করি নতুন করে চুক্তিতে স্বাক্ষর করাটাই আমার জন্য স্বাভাবিক। এভাবে ধারাবাহিকতা বজায় রাখা খুব জরুরী। আশা করছি ভবিষ্যতে সমর্থক, খেলোয়াড় ও ক্লাবের জন্য আরও বেশি সাফল্য আমরা উপভোগ করতে পারব। এই ক্লাবটি আমার হৃদয়ের খুব কাছাকাছি রয়েছে। আরও কিছুদিন এখানে থাকতে পেরে আমি সত্যিই দারুণ খুশি।’

এর আগে মরিনহোর প্রথম মেয়াদে চেলসি দুইবার লীগের শিরোপা জিতেছিল। পর্তুগীজ এই কোচ ক্লাব ছেড়ে যাবার আগে এফএ কাপের শিরোপাসহ দুইবার লীগ কাপও ঘরে তুলেছে ব্লুজরা। ২০১০ সালে তারই অধীনে ইন্টার মিলান চ্যাম্পিয়নস লীগের শিরোপা জিতেছিল। ২০০৪ সালে পোর্তোর পরে এটাই ছিল তার দ্বিতীয় চ্যাম্পিয়নস লীগ শিরোপা। ইন্টারের সাফল্যের পরপরই স্প্যানিশ জায়ান্ট রিয়াল মাদ্রিদে যোগ দেন মরিনহো। প্রথম মৌসুমেই স্প্যানিশ জায়ান্টদের কিংস কাপ উপহার দেন এই পর্তুগীজ কোচ। চার বছর পর ২০১২ সালে রিয়াল মরিনহোর অধীনে প্রথম লা লীগা শিরোপা জয় করে। কিন্তু পরের মৌসুমেই মতৈক্যের গুঞ্জন।

পিএসজির শুভ সূচনা

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ জয় দিয়েই নতুন মৌসুম শুরু করেছে প্যারিস সেইন্ট জার্মেই (পিএসজি)। শুক্রবার ফ্রেঞ্চ লীগ ওয়ানের উদ্বোধনী দিনে তারা ১-০ গোলে হারান লিলকে। ব্রাজিলিয়ান তারকা লুকাস সিলভার একমাত্র গোলেই পূর্ণ তিন পয়েন্ট নিয়ে মাঠ ছাড়ে পিএসজি।

তবে এদিন দশজনের দল নিয়ে খেলতে হয় পিএসজিকে। প্রথমার্ধের ২৩ ও ২৮ মিনিটে দুটি হলুদ কার্ড পাওয়ার কারণে মাঠ ছাড়তে হয় আদ্রিয়েন রেবিওটকে। এদিন ৪-৩-৩ ফরমেটে পিএসজির হয়ে শুরুর একাদশে মাঠে ছিলেন লুকাস সিলভা, ডেভিড লুইজ, ম্যাক্সওয়েল, রেবিওট, ভেরাত্তি, মাতুইদি, থিয়েগো সিলভা, পাস্তোরে এবং এডিনসন কাভানি। ইনজুরির কারণে ছিলেন না পিএসজির গোলমেশিন খ্যাত জ¬ালাতান ইব্রাহিমোভিচ। আর নতুন মৌসুমে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ছেড়ে ফরাসী জায়ান্টদের হয়ে নাম লেখানো আর্জেন্টাইন সুপারস্টার এ্যাঞ্জেল ডি মারিয়াকেও নামানো হয়নি নতুন মৌসুমের প্রথম ম্যাচে। ম্যাচের প্রথমার্ধে কোন দলই গোলের দেখা পায়নি। তবে দ্বিতীয়ার্ধের ৫৭ মিনিটে এডিসন কাভানির লম্বা পাসে বল পান বদলি খেলোয়াড় হিসেবে খেলতে নামা থিয়েগো মোত্তা। সেখান থেকে বল পেয়ে মাতুইদির সঙ্গে ওয়ান-টু-ওয়ান খেলে লিলের জালে বল জড়ান ব্রাজিল অনুর্ধ-২৩ দলের উঠতি তারকা সিলভা। এরপর ম্যাচের বাকি সময়ে আর কোন গোল না হলে ব্রাজিলিয়ান তরুণ প্রতিভাবান তারকার একমাত্র গোলে জয় নিয়েই মাঠ ছাড়ে দশজনের পিএসজি। পূর্ণ তিন পয়েন্ট নিয়েই লীগ ওয়ান শুরু করতে পারায় উচ্ছ্বসিত পিএসজি শিবির।