২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ইরান চুক্তি নিরাপত্তা শান্তিকে এগিয়ে নিয়ে যাবে

  • ওবামার কাছে ২৯ মার্কিন বিজ্ঞানীর চিঠি

যুক্তরাষ্ট্রের ২৯ জন শীর্ষ বিজ্ঞানী ইরান চুক্তির প্রশংসা করে শনিবার প্রেসিডেন্ট ওবামার কাছে চিঠি লিখেছেন। চিঠিতে তারা চুক্তিকে নতুন গঠনমূলক, কঠোর ও সুদৃঢ় বলে অভিহিত করেছেন। এ বিজ্ঞানীদের মধ্যে নোবেল বিজয়ী, অভিজ্ঞ পরমাণু অস্ত্র নির্মাণকারী ও হোয়াইট হাউসের সাবেক বিজ্ঞানবিষয়ক উপদেষ্টা রয়েছেন। খবর নিউইয়র্ক টাইমস অনলাইনের।

ওবামা যখন চুক্তিটির প্রতি কংগ্রেস, আমেরিকান জনগণ ও দেশের সহযোগীদের সমর্থন পাওয়ার জন্য প্রভাবিত করার চেষ্টা করছেন তখন পরমাণু অস্ত্র ও অস্ত্র নিয়ন্ত্রণ ক্ষেত্রে বিশ্বের অত্যন্ত অভিজ্ঞ কয়েকজন বিশেষজ্ঞের এ চিঠিটি তার কাছে পৌঁছল। চুক্তির বিরুদ্ধে কংগ্রেসে সবচেয়ে প্রভাবশালী ইহুদীদের অন্যতম প্রবক্তা নিউইয়র্কের ডেমোক্র্যাট সিনেটর চাক শুমার বৃহস্পতিবার চুক্তির বিরোধিতা করবেন বলে ঘোষণা করলে তা ওবামার প্রতি এক আঘাতস্বরূপ হয়ে দেখা দেয়।

দু-পৃষ্ঠার চিঠিটি চুক্তির পক্ষে হোয়াইট হাউজের যুক্তিকে কিছুটা শাণিত করতে পারে। চুক্তির শর্তানুযায়ী ইরানের পরমাণু কর্মসূচী সীমিত করবে এবং তা পরিদর্শনে অনুমোদন দেবে। পরিবর্তে ইরানের বিরুদ্ধে আরোপিত আন্তর্জাতিক তেল ও অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করা হবে। চিঠিতে প্রথম স্বাক্ষরটি করেছেন পদার্থবিজ্ঞানী রিচার্ড এল গারউইন। তিনিই বিশ্বের প্রথম হাইড্রোজেন বোমার নক্সা তৈরিতে সহাতা করেন এবং পরমাণু অস্ত্র ও অস্ত্র নিয়ন্ত্রণ বিষয়ে ওয়াশিংটনকে পরামর্শ দিয়েছেন দীর্ঘ সময়। পরমাণু যুগ সূচনায় যারা সহযোগিতা করেছেন তাদের মধ্যে তিনিই একমাত্র জীবিত পদার্থ বিজ্ঞানী। স্ট্যানফোর্ডের অধ্যাপক সিসফ্রিড সস হেকারও স্বাক্ষর করেছেন। তিনি নিউ মেক্সিকোর বোমার সূতিকাগার লস এলামোস অস্ত্র গবেষণাগারের পরিচালক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন ১৯৮৬ থেকে ১৯৯৭ পর্যন্ত। স্বাক্ষরকারীদের মধ্যে অন্যান্য বিশিষ্ট বিজ্ঞানীদের মধ্যে রয়েছে প্রিসটনের ফ্রিম্যান ডাইসন, স্ট্যানফোর্ডের সিডনি ড্রেল এবং পদার্থবিজ্ঞানী ও সাবেক কংগ্রেস সদস্য রাশডি হল্ট। তিনি বিশ্বের সর্ববৃহৎ সাধারণ বিজ্ঞানবিষয়ক সমিতি আমেরিকান এ্যাসোসিয়েশন ফর দ্য এডভান্সমেন্ট অব সায়েন্সের নেতৃত্বে রয়েছেন।