২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

হাইপারফর্মেন্স ইউনিটে ‘পনি’

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ বড় ধরনের কোন সাফল্য পেতে হলে অবশ্যই নতুন কিছু করতে হয়। যেমনটি ভারতের বিপক্ষে সিরিজে মুস্তাফিজুর রহমানকে খেলিয়ে চমক জাগিয়েছিল বাংলাদেশ। ঠিক তেমনি বিসিবির হাইপারফর্মেন্স ইউনিটেও সেই রকম নতুন কিছু আবিষ্কার হয়েছে। সেই আবিষ্কারের নামও দেয়া হয়েছে ‘পনি’। অর্থাৎ প্লেয়ার্স অব ন্যাশনাল ইন্টারেস্ট। যেখানে এমন ৬ ক্রিকেটারকে রাখা হয়েছে, যারা যে কোন সময় জাতীয় দল, ‘এ’ দলে খেলার জন্য প্রস্তুত থাকবে। শুধু ডাকের অপেক্ষায় থাকবে।

কয়েক মাস ধরেই হাইপারফর্মেন্স ইউনিটের (এইচপি) কর্মযজ্ঞ অব্যাহত রয়েছে। সেখানে এবার তিন পেসার রবিউল ইসলাম, শফিউল ইসলাম ও আল-আমিন হোসেন এবং বাঁহাতি স্পিনার আরাফাত সানি, অলরাউন্ডার শুভাগত হোম ও উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান মিঠুন আলীকে নিয়ে ‘পনি’ তৈরি করা হয়েছে। রবিবার এইচপির বোলিং কোচ সারোয়ার ইমরানই এমনটি জানিয়েছেন। এখানে জাতীয় দল থেকে ছিটকে পড়া ক্রিকেটারদের প্রস্তুত রাখার চেষ্টা করা হবে। যাতে জাতীয় দল, ‘এ’ দলের ডাকে তারা যে কোন সময় তৈরি থাকতে পারেন। এই প্রোগ্রামে ক্রিকেটারদের স্কিল নিয়েই কাজ হচ্ছে। ছোটখাটো ইনজুরি সমস্যা, বোলিং এ্যাকশন সমস্যাও নিয়ে কাজ চলছে। সরোয়ার ইমরান বলেছেন, ‘পনি হচ্ছে মোটামুটি সবাই যেন এ্যাকটিভ থাকে। বাসায় চলে গেল, বাড়িতে চলে গেল, দেশে চলে গেল, চোখের বাইরে চলে গেল, এখন মোবাইলে যোগাযোগ করা যায়। তারপরও মাঠে নির্দিষ্ট কাজ করা। কোন ছোটখাটো সমস্যা থাকলে, ফিটনেসের ব্যাপার থাকে, তারা সারাবছর যেন ফিট থাকে। বোলাররা বোলিং করতে পারে, ব্যাটসম্যানরা ব্যাটিং করতে পারে। যে কোন সময় জাতীয় দলের ডাকে, ‘এ’ দলের ডাকে যেন তৈরি থাকতে পারে।’ তিনি আরও বলেন, ‘এটা নির্দিষ্ট খেলোয়াড়ের সঙ্গে কাজ করা। এখানে ট্রেনিংটা একটু কঠিন। পনিতে যে ট্রেনিংটা হচ্ছে, যারা জাতীয় দলে নাই অথবা ঢুকতেছে, এমন খেলোয়াড় যারা ওদেও তৈরি করে দেয়া।’

সেই সঙ্গে ক্রিকেটারদের সমস্যাও ধরিয়ে দিচ্ছেন সারোয়ার ইমরানরা। যেমনটি বললেন, ‘আজকে (রবিবার) আমার কাছে আল-আমিন ছিল। শফিউল ছিল। আরাফাত সানি, মিঠুন এরা অনেকে আসছে। রবিউল ছিল। ওর ইনজুরির সমস্যা ছিল। বোলিং করতে এসে ইনজুরড হয়ে যায়। আজকে (রবিবার) দুই পা দৌড়ে বোলিং করেছে। এ্যাকশনে সমস্যা ছিল। ঠিক করা হয়েছে। পরে বল করছে কোন সমস্যা হয়নি। প্রায় এক সপ্তাহ ধরে চলবে এভাবে। আমি রবিউলকে নিয়ে কাজ করছি। এ্যাকশন পরিবর্তন করছি। হাত পেছনে যেত। হাতটা সামনে আসছে এখন। এগুলো ঠিক করার পর এখন ও মোটামুটি দেখতে ভালই লাগছে। ইনজুরি হওয়ার সম্ভাবনা কম। শফিউলের ফ্রন্টফুট ল্যান্ডিং একটু সমস্যা ছিল। এটা ঠিক করেছি।’ হাইপারফর্মেন্সে ‘পনি’র কার্যক্রমে এখন এ ৬ ক্রিকেটার জাতীয় দলে ঢুকতে পারলেই হলো।