১৫ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

উপজেলা চেয়ারম্যানের কাছে চারদফা চাঁদা দাবি

নিজস্ব সংবাদদাতা, কেশবপুর॥ কেশবপুর উপজেলা চেয়ারম্যান এইচ এম আমির হোসেনের কাছে এক লাখ টাকা চাঁদার দাবি করা হয়েছে। দাবিকৃত টাকা না দিলে তাঁর ছেলেকে অপহরণের হুমুকি দেওয়া হয়েছে। এক সপ্তাহে পরপর চারবার চরমপন্থী পরিচয় দিয়ে মোবাইল ফোনে তাঁর কাছে অব্যাহত চাঁদার দাবি করা হচ্ছে। সোমবার সকালেও চতুর্থ দফায় ফোনে চাঁদার দাবি করা হয়েছে। এ ব্যাপারে উপজেলা চেয়ারম্যান রবিবার থানায় জিডি দায়ের করেছেন।

উপজেলা চেয়ারম্যান আমির হোসেন জানান, তার কাছে প্রথম গত ৩ আগস্ট বেলা ১১ টায় ০১৯৪১১৪৪৮৯৩ নম্বর থেকে ফোন করে জানায় তাদের দলীয় সদস্য বিজিবির সাথে গুলি বিনিময়ে মারাত্মক জখম হয়ে ভারতে চিকিৎসাধীন আছে। তাদের চিকিৎসার জন্যে ৩৫ লাখ টাকার প্রয়োজন। তাঁকে এক লাখ টাকা এক দিনের মধ্যে দিতে বলা হয়। শনিবার সকাল ১০টা ২১ মিনিটে ০১৯৯১৩৩৬২১৭ নম্বর থেকে ফোন করে একদিনের মধ্যে এক লাখ টাকা দেবার জন্যে সময় বেঁধে দেওয়া হয়। তিনি মহিউদ্দীন জাহাঙ্গীর, বাংলাদেশ পূর্ববাংলা সর্বহারা পার্টির প্রধান বলে পরিচয় দেন। রবিবার সকাল ৯ টা ৫৪ মিনিটে ০১৯১৭৫১৮৫৯৯ নম্বর থেকে তৃতীয় বার চুড়ান্ত চাঁদার তাগাদা দেওয়া হয়। টাকা না দিলে তাঁর ছেলেকে অপহরণের হুমকি দেওয়া হয়েছে। উপজেলা চেয়ারম্যান এইচ এম আমির হোসেন এ ঘটনায় নিরাপত্তা চেয়ে রবিবার কেশবপুর থানায় একটি সাধারন ডায়েরি করেছেন। ডায়েরি নং- ৩৭৯। তারিখ ০৯/০৮/১৫। এরপর সোমাবার সকালে আবারও তাকে ফোনে হুমকি দেয়া হয়েছে বলে তিনি জানিয়েছেন। থানার ওসি মাহাতাব উদ্দিন জানান, এ ব্যাপরে তদন্ত করা হচ্ছে। কোন ক্লু এখনো পাওয়া যায়নি, পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান।