২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে নিহত রাজনের পরিবার

নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে নিহত রাজনের পরিবার

অনলাইন ডেস্ক॥ বাংলাদেশের উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় জেলা সিলেটে চুরির অভিযোগে নির্যাতন চালিয়ে হত্যার শিকার কিশোর সামিউল আলম রাজনের বাবা আজিজুর রহমান বলছেন, তিনি ও তার পরিবার এখনো নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন।

মি. রহমান বলেন, ′আমার পরিবারের এখন নিরাপত্তা নেই′। ′তারা তো প্রভাবশালী। তারা যেকোনো সময়ে মেরে ফেলতে পারে আমাদের′। এরকম প্রেক্ষাপটে নিজেদের নিরাপত্তা-সহ চারটি দাবি জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বরাবর একটি স্মারকলিপি দিয়েছেন আজিজুর রহমান। ওই স্মারকলিপিতে তিনি সৌদি আরবে আটক মূল আসামী কামরুল ইসলামকে দেশে ফিরিয়ে আনারও দাবি জানিয়েছেন তিনি। স্মারকলিপিটি গতকাল (রবিবার) সিলেটের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক শহীদুল ইসলাম চৌধুরীর হাতে তুলে দেন মি. রহমান।

মি. চৌধুরী স্মারকলিপি পেয়েছেন বলে উল্লেখ করে জানান, আজিজুর রহমানের পরিবারের নিরাপত্তা, কামরুল ইসলামকে ফিরিয়ে আনা এবং দোষীদের দ্রুত বিচার করে শাস্তি দেয়াকেই এখন সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিচ্ছে প্রশাসন।

′আজ (সোমবার) আইনশৃঙ্খলা বিষয়ক যে বৈঠকটি হয়েছে সেখানে এটিই ছিল মূল এজেন্ডা′, বলছিলেন মি. চৌধুরী।

শীঘ্রই অভিযোগপত্র:

এদিকে পুলিশ বলছে, সামিউল হত্যা মামলার তদন্তে গুরুত্বপূর্ণ অগ্রগতি হয়েছে। সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের কমিশনার কামরুল আহসান বিবিসিকে বলেন, ′আমরা বারো জন আসামী ধরেছি। আট জন আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে। সাক্ষী সংগ্রহ হয়ে গেছে। তদন্তে যা যা করা লাগে সবই হয়ে গেছে। শীঘ্রই আমরা অভিযোগ-পত্র দেব′।

এই মামলার মূল আসামী কামরুল ইসলামকে সৌদি আরব থেকে ফিরিয়ে আনার জন্য ইন্টারপোলের মাধ্যমে চেষ্টা চলছে বলেও উল্লেখ করেন মি. আহসান।

সূত্র : বিবিসি বাংলা

নির্বাচিত সংবাদ
এই মাত্রা পাওয়া