১২ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

বরিশালে উধাও কর্মকর্তার দুর্নীতি তদন্তে গড়িমসি

স্টাফ রিপোর্টার, বরিশাল ॥ জেলার একমাত্র মেহেন্দীগঞ্জ উপজেলায় সরকারের ন্যাশনাল সার্ভিস কর্মসূচী কর্মকর্তা মোটা অঙ্কের টাকা আত্মসাত করে উধাও হওয়ার ঘটনায় গঠিত তদন্ত কমিটির কর্মকা-ে অসন্তোষ দেখা দিয়েছে। ভুক্তভোগী আট দফতরের সরকারী কর্মকর্তারা উধাও হওয়া কর্মকর্তার বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রীসহ সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন দফতরে লিখিত আবেদন করেও কোন সুফল না পাওয়ায় ওই কর্মকর্তার খুঁটির জোর নিয়ে প্রশ্ন দেখা দিয়েছে।

সূত্রমতে, মেহেন্দীগঞ্জ উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা দেলোয়ার হোসাইনের বিরুদ্ধে ন্যাশনাল সার্ভিস কর্মসূচী প্রকল্পের প্রশিক্ষকদের ভাতার টাকা না দেয়াসহ বিভিন্ন অনিয়ম ও দুর্নীতির মাধ্যমে প্রকল্পের লাখ লাখ টাকা আত্মসাত করে আত্মগোপন করেন। এ সংক্রান্ত একটি সংবাদ দৈনিক জনকণ্ঠ পত্রিকাসহ বিভিন্ন দৈনিকে প্রকাশিত হয়। ওই সংবাদের পর পরই জেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা দুই সদস্যবিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি গঠন করেন। জেলা যুব উন্নয়ন অধিদফতরের সহকারী পরিচালক মোঃ সোয়েব ফারুক ও কাজী মফিজুল ইসলামকে নিয়ে গঠিত তদন্ত কমিটির তদন্তে ধীরগতি ও অভিযুক্ত কর্মকর্র্তাকে বাঁচাতে মরিয়া হয়ে ওঠার অভিযোগে প্রতারিত কর্মকর্তাদের মাঝে অসন্তোষ দেখা দেয়। ফলে প্রকৃত ঘটনা তদন্তে দুর্নীতি দমন কমিশনের সহযোগিতা চেয়ে ভুক্তভোগী আট দফতরের সরকারী কর্মকর্তারা প্রধানমন্ত্রী, যুব উন্নয়ন অধিদফতরের মহাপরিচালক, যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের সচিব, জেলা প্রশাসক বরিশাল, দুর্নীতি দমন কমিশনের পরিচালক, যুব উন্নয়ন অধিদফতরের উপ-পরিচালকের বরাবরে গত দশদিন পূর্বে লিখিত আবেদন করেছেন।

ভুক্তভোগী উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার একেএম হারুন-অর রশিদ, প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার পুতুল রানী ম-লসহ একাধিক সরকারী কর্মকর্তারা অভিযোগ করেন, জেলা প্রশাসক, প্রকল্প পরিচালক, সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন দফতরের উর্ধতন কর্মকর্তাদের উৎকোচ দেয়ার কথা বলে তাদের নামে মাত্র সম্মানী ভাতা দিয়ে পুরো টাকা ওই কর্মকর্তা (যুব উন্নয়ন অফিসার) আত্মসাত করেছেন।

তারা আরও জানান, ন্যাশনাল সার্ভিস কর্মসূচী প্রকল্পের প্রশিক্ষকদের ভাতার টাকা না দেয়াসহ কোন মালামাল, আসবাবপত্র ক্রয় না করেই বিভিন্ন অনিয়ম ও দুর্নীতির মাধ্যমে প্রকল্পের লাখ লাখ টাকা আত্মসাত করে গত এক মাস থেকে আত্মগোপন করেছেন মেহেন্দীগঞ্জ উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা দেলোয়ার হোসাইন। দীর্ঘদিন ধরে ওই কর্মকর্তা অফিসে অনুপস্থিত থাকলেও তার বিরুদ্ধে অদ্যাবধি কোন ব্যবস্থা গ্রহণ না করায় সর্বত্র ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।