২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

যশোর শিক্ষা বোর্ডের ভুল তথ্য ॥ হতবাক শিক্ষার্থী-শিক্ষক

স্টাফ রিপোর্টার, যশোর অফিস ॥ যশোর মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড ভুল তথ্য প্রচার করায় হতবাক হয়েছে এক কলেজের শিক্ষার্থী, শিক্ষক ও অভিভাবকরা। কলেজটি যশোরের ঝিকরগাছা উপজেলার রঘুনাথন গরের। রবিবার এইচএসসির ফল প্রকাশের সময় বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মাধব চন্দ্র রুদ্র বলেন, ১৩টি কলেজ থেকে কেউ পাস করতে পারেনি। তার মধ্যে ঝিকরগাছার রঘুনাথনগর কলেজের নাম উল্লেখ করেন। সে মোতাবেক জাতীয়, স্থানীয় দৈনিক পত্রিকা, ইলেকট্রনিক মিডিয়া ও অনলাইনে তা প্রচার হয়। অথচ কলেজের প্রিন্সিপাল ওয়েবসাইট থেকে রেজাল্ট প্রিন্ট করে দেখেন কলেজ থেকে পরীক্ষায় অংশ নেয়া একশ’ ১৩ পরীক্ষার্থীর মধ্যে ৬৯ জন পাস করেছে। পাসের হার ৬০ দশমিক ৫৩। অধ্যক্ষ আব্দুল ওহাব রবিবার বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রকের সঙ্গে যোগাযোগ করে বিষয়টি জানান।

তিনি প্রিন্সিপালের ত্রুটির কথা স্বীকার করেন। অধ্যক্ষ জানান, রেজাল্ট প্রকাশের পর বোর্ডের ভুল তথ্য প্রচারে আমরা হতবাক হই। শিক্ষার্থী, শিক্ষক ও অভিভাবকরা বিভিন্নস্থানে যোগাযোগ করে রেজাল্ট কনফার্ম করার চেষ্টা করেন। তিনি বলেন, এমন বিব্রতকর পরিস্থিতি যে ভাষায় বর্ণনার নয়। এ ব্যাপারে পরীক্ষা নিয়ন্ত্রকের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, ২০১৩ সালে কলেজটি কলেজিয়েট স্কুল থেকে পৃথক হয়ে স্বতন্ত্র কলেজ হিসেবে পরিচিতি পায়। পূর্বের ইন নাম্বারে এক পরীক্ষার্থী ছিল। তাও ফেল করে। সেই তথ্যে পাসের হার শূন্য দেখানো হয়েছে। পরবর্তীতে ২০১৪ সালে তো ওই কলেজ থেকে শিক্ষার্থীরা পাস করেছে। সেইবার তো ভুল হয়নি-এ প্রশ্নের জবাব তিনি এড়িয়ে যান।