২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

আপিল করবেন সিরাজ-আকরামের আইনজীবীরা

অনলাইন রিপোর্টার ॥ একাত্তরে মানবতাবিরোধী অপরাধে বাগেরহাটের সিরাজ মাস্টার ও খান আকরাম হোসেনকে মৃত্যুদণ্ড ও আমৃত্যু কারাদণ্ডের রায় দেওয়ায় তাঁদের আইনজীবীরা অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন। এ রায়ের বিরুদ্ধে উচ্চ আদালতে আপিল করবেন বলে সাংবাদিকদের জানিয়েছেন তাঁরা।

রায়ের পর নিজেদের প্রতিক্রিয়ায় সিরাজ মাস্টারের আইনজীবী ব্যারিস্টার মো. আবুল হাসান সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমার মক্কেল সিরাজ মাস্টারকে যেসব অভিযোগে মৃত্যুদণ্ড দেওয়া হয়েছে, সে বিষয়ে নথিপত্র উপস্থাপন করতে পারেনি রাষ্ট্রপক্ষ। কিন্তু মানবতাবিরোধী অপরাধ ট্রাইব্যুনালের অভিযোগে ট্রাইব্যুনাল নিজস্ব ক্ষমতাবলেই তাঁকে ফাঁসির দণ্ড দিয়েছেন। রায়ে আমরা সংক্ষুব্ধ। এর বিরুদ্ধে আপিল দায়ের করব।’

এ সময় খান আকরামের আইনজীবী সরোয়ার হোসেন সাংবাদিকদের বলেন, ‘খান আকরাম হোসেনের বিরুদ্ধে তিনটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছিল। দুটি অভিযোগে আমরা ন্যায়বিচার পেয়েছি। একটির রায়ে ন্যায়বিচার পাইনি। এ রায়ের বিরুদ্ধে আমরা আপিল দায়ের করব। আশা করি, আপিল বিভাগে তিনি খালাস পাবেন।’

অন্যদিকে এ মামলায় রাষ্ট্রপক্ষের প্রসিকিউটর সায়দুল হক সুমন সাংবাদিকদের বলেন, ‘সিরাজ মাস্টার বাগেরহাটের কসাই নামে খ্যাত। তাঁকে পাঁচটি অভিযোগে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন ট্রাইব্যুনাল। রায় কার্যকরে ফাঁসির দড়িতে ঝুলিয়ে অথবা ফায়ারিং স্কোয়াডে মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করতে পারবে সরকার। অপর আসামি খান আকরামকে একটি অভিযোগে আমৃত্যু কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। রায়ে আমরা সন্তোষ প্রকাশ করছি।’

এর আগে আজ মঙ্গলবার মানবতাবিরোধী অপরাধে বাগেরহাটের শেখ সিরাজুল হক ওরফে সিরাজ মাস্টারকে মৃত্যুদণ্ড ও খান আকরাম হোসেনকে আমৃত্যু কারাদণ্ড দেন আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল। বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিমের নেতৃত্বে গঠিত তিন সদস্যের বেঞ্চে এ রায় ঘোষণা করা হয়। বেঞ্চের অপর সদস্যরা হলেন বিচারপতি জাহাঙ্গীর হোসেন সেলিম ও বিচারপতি আনোয়ারুল হক।