২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ফরিদপুরে স্ত্রীকে পুড়িয়ে মারার দায়ে স্বামীর যাবজ্জীবন

নিজস্ব সংবাদদাতা, ফরিদপুর, ১১ আগস্ট ॥ স্ত্রীকে পুড়িয়ে হত্যার দায়ে দোষী সাব্যস্ত করে স্বামী শেখ আসলামকে (৪৭) যাবজ্জীবন সশ্রম কারাদ- ও ২০ হাজার টাকা জরিমানা করেছে আদালত। মঙ্গলবার দুপুরে জেলা ও দায়রা জজ (নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল) বজলুর রহমান এ রায় ঘোষণা করেন। যাবজ্জীবন কারাদ-প্রাপ্ত শেখ আসলাম (৪৭) জেলার সদরপুর উপজেলার আকটেরচর গ্রামের আমিরুদ্দিনের ছেলে। তবে মোকসেদ একই উপজেলার চরবিষ্ণপুর ইউনিয়নের দাগু মাতুব্বরের ডাঙ্গি গ্রামে স্ত্রীকে নিয়ে বসবাস করত। আদালতের সূত্রে জানা যায়, শেখ আসলাম বিগত ২০০৭ সালের ১ মে তার স্ত্রী মোকসেদাকে পুড়িয়ে হত্যা করে। এ ঘটনায় মোকসেদার পিতা খালেক মোল্লা বাদী হয়ে স্বামী শেখ আসলাম ও আসলামের বোন মেহেরুন নেছাকে আসামি করে সদরপুর থানায় ওই বছরের ২ মে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। আদালত এ মামলায় নির্দোষ প্রমাণিত হওয়ায় আসলামের বোন মেহেরুন নেছাকে বেকসুর খালাস প্রদান করা হয়। রায় ঘোষণার আগে আদালত চত্বর থেকে যাবজ্জীবন দ-প্রাপ্ত আসামি আসলাম পালিয়ে যায় বলে আদালত সূত্রে জানা গেছে।

চাঁপাই

স্টাফ রিপোর্টার, চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে জানান, স্ত্রী হত্যার দায়ে চাঁপাইনবাবগঞ্জের একটি আদালত মঙ্গলবার স্বামীর যাবজ্জীবন কারাদ- প্রদান করেছেন। এছাড়াও আদালত তাকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও ২ বছরের সশ্রম কারাদ- প্রদান করেন। দ-প্রাপ্ত ব্যক্তি হচ্ছে, জেলার শিবগঞ্জ উপজেলার চৈতন্যপুর গ্রামের মৃত নজরুল ইসলামের ছেলে মনিরুল ইসলাম (৩৭)। চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা ও দায়রা জজ এনামুল বারি অভিযুক্তের উপস্থিতিতে এ রায় প্রদান করেন।

বগুড়া

স্টাফ রিপোর্টার, বগুড়া অফিস থেকে জানান, বগুড়ায় এক হত্যা মামলায় মহিলাসহ ৩ জনের যাবজ্জীবন কারাদ-াদেশ হয়েছে। এরা হলো- নিহত ব্যক্তির স্ত্রী সাবিনা ইয়াসমিন, আরিফুল ও জাকারিয়া। রায়ে যাবজ্জীবন কারাদ- ছাড়াও প্রত্যেকের ১০ হাজার টাকা জরিমান ও অনাদায়ে আরও এক বছরের সশ্রম করাদ- দেয়া হয়। অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালত (৩) মঙ্গলবার এই মামলার রায় ঘোষণা করেন।