২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

চট্টগ্রাম কার্যালয় থেকে আইপি ইস্যু চালু রাখতে চেম্বারের অনুরোধ

স্টাফ রিপোর্টার, চট্টগ্রাম অফিস ॥ চট্টগ্রাম সমুদ্রবন্দরে অবস্থিত উদ্ভিদ সঙ্গনিরোধ কেন্দ্র থেকে আইপি ইস্যু কার্যক্রম বহাল রাখতে কৃষিমন্ত্রী বেগম মতিয়া চৌধুরীর প্রতি অনুরোধ জানিয়েছে চিটাগাং চেম্বার অব কমার্স এ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি। আমদানি-রফতানি কার্যক্রমের সিংহভাগ চট্টগ্রাম বন্দর দিয়ে সম্পন্ন হওয়ায় চট্টগ্রামেই এ ব্যবস্থা থাকা উচিত বলে অভিমত রাখেন চেম্বার সভাপতি মাহবুবুল আলম। মঙ্গলবার কৃষিমন্ত্রী বরাবরে এক পত্রে এ অনুরোধ জানানো হয়।

চিটাগাং চেম্বার সভাপতি মাহবুবুল আলম তার অনুরোধপত্রে বলেন, বাণিজ্যিক রাজধানী চট্টগ্রামে আমদানি-রফতানি কার্যক্রমের শতকরা ৮২ ভাগ সম্পন্ন হয়। আমদানি-রফতানিকারক এবং সিএন্ডএফ এজেন্টগণ সমুদ্রবন্দরে অবস্থিত উদ্ভিদ সঙ্গনিরোধ কেন্দ্র, চট্টগ্রাম কার্যালয় থেকে প্রয়োজনীয় আইপি সংগ্রহ করে কার্যক্রম সম্পন্ন করে আসছেন। কিন্তু সংস্থাটির পরিচালক সম্প্রতি চট্টগ্রাম কার্যালয় হতে আইপি ইস্যু না করার জন্য নির্দেশনা রয়েছে। সংশ্লিষ্ট আমদানিকারক ও সিএন্ডএফ প্রতিনিধিদেরকে চার আগস্ট হতে ঢাকা কার্যালয় থেকে আইপি এবং বিশেষ ছাড়পত্র (এসআরও) সংগ্রহ করার আদেশ হয়।

চেম্বার সভাপতি বলেন, এ নির্দেশনার কারণে ঢাকায় অবস্থিত কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতর থেকে আইপি সংগ্রহ করা অত্যন্ত সময় সাপেক্ষ ও ব্যয়বহুল বিধায় সংশ্লিষ্টরা অত্যন্ত অসুবিধার সম্মুখীন হচ্ছেন। ফলে এ সব কার্যক্রমে গতিশীলতা হারানো এবং অনেক শিল্প কারখানার কাঁচামাল আমদানি ও পণ্য রফতানিতে সুদূরপ্রসারী নেতিবাচক প্রভাব পড়ার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। দীর্ঘদিন যাবত চট্টগ্রাম কার্যালয় থেকে আইপি ইস্যু কার্যক্রম সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন হয়ে আসছে।