২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ইতিহাস গড়ার হাতছানি বেয়ার্ন মিউনিখের

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ ইতিহাস গড়ার লক্ষ্য নিয়ে নতুন মৌসুম (২০১৫-১৬) শুরুর অপেক্ষায় বেয়ার্ন মিউনিখ। জার্মান পরাশক্তিরা শুক্রবার বুন্দেসলিগার প্রথম ম্যাচে মাঠে নামবে। ঘরের মাঠ মিউনিখের এ্যালিয়েঞ্জ এ্যারানায় বেয়ার্নের প্রতিপক্ষ হামবার্গ।

কোচ পেপ গার্ডিওলার অধীনে টানা চতুর্থবার বুন্দেসলিগার শিরোপা জিতে ইতিহাস গড়ার দিকে দৃষ্টি এখন লাম, মুলার, গোয়েটজেদের। যদিও মৌসুম শুরুর আগে গার্ডিওলার ভবিষ্যত নিয়ে অনেক গুজব শোনা গেছে। নিজের চুক্তির তৃতীয় ও শেষ বছর শুরু করতে যাচ্ছেন গার্ডিওলা। সাবেক বার্সিলোনা কোচ বেয়ার্নের লীগ মিশন চলাকালীনই নিজের ভবিষ্যত পরিকল্পনা জানাবেন বলে জানিয়েছেন। জার্মান টেলিভিশন চ্যানেলের সূত্রমতে ২০১৬-১৭ মৌসুমের জন্য ইতোমধ্যেই চার বছরের চুক্তিতে তিনি ম্যানচেস্টার সিটির সঙ্গে চুক্তিতে স্বাক্ষর করেছেন। যদিও বেয়ার্ন চেয়ারম্যান কার্ল-হেইঞ্জ রুমিনিগে পেপকে আরও কিছুদিন ক্লাবে রাখার ইচ্ছার কথা জানিয়েছেন।

শুধু বুন্দেসলিগাই নয়, এবার চ্যাম্পিয়ন্স লীগের শিরোপাও পুনরুদ্ধার করতে চায় বেয়ার্ন। বাভারিয়ানদের সিনিয়র ফুটবলাররা প্রায় সময়ই বলে থাকেন বুন্দেসলিগা জয় করাই প্রতি মৌসুমে তাদের অগ্রাধিকারের তালিকায় থাকে। কিন্তু গার্ডিওলা এর পাশাপাশি জার্মান জায়ান্টদের চ্যাম্পিয়ন্স লীগের শিরোপাও উপহার দিতে চান। রিয়াল মাদ্রিদের কাছে সেমিফাইনালে হেরে বিদায় নেয়ার পর দুইবার বার্সিলোনার কাছে পরাজিত হয়েছে বেয়ার্ন। এবার তৃতীয় বছরে এসে গার্ডিওলা বেয়ার্নের জন্য সৌভাগ্য উপহার দিতে চান। তবে মিশনগুলো সফল করা যে সহজ হবে না তা ভাল করেই জানেন সময়ের অন্যতম সফল এই কোচ। কেননা এবারের মৌসুমে বেয়ার্নকে মধ্যমাঠের মূল কা-ারি বাস্তিয়ান শোয়াইনস্টাইগারকে ছাড়াই মাঠে নামতে হচ্ছে। দীর্ঘ ১৩ মৌসুম পর এই তারকা মিডফিল্ডার বেয়ার্ন ছেড়ে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডে পাড়ি জমিয়েছেন। তবে বুন্দেসলিগায় ফেবারিট হিসেবেই মাঠে নামছে বেয়ার্ন। এই আসরে তাদের টেক্কা দেয়ার মতো দল নেই বললেই চলে! বরুসিয়া ডর্টমুন্ড বেয়ার্নকে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিলেও গত কয়েক মৌসুম ধরে তাদের বেহাল দশা। এবার প্রথম দল হিসেবে টানা চারবার বুন্দেসলিগার শিরোপা জয়ের দারুণ হাতছানি বেয়ার্নের সামনে। তবে শঙ্কার কথা হচ্ছে, সর্বশেষ আট প্রতিযোগিতামূলক ম্যাচের মধ্যে ছয়টিতেই পরাজিত হয়েছে গার্ডিওলারা শিষ্যরা। এর মধ্যে আছে জার্মান সুপার কাপে পেনাল্টিতে গত মৌসুমের রানার্সআপ উলফসবার্গের কাছে হার। তবে জার্মান কাপে গত রবিবার পঞ্চম সারির দল নটিনগেনের বিপক্ষে ৩-১ গোলের জয় প্রত্যাশিতই ছিল। নতুন চুক্তি হওয়া আর্টুরো ভিদাল সফরকারীদের ম্যাচের শুরুতেই লিড এনে দিয়েছিলেন। এরপর স্বাগতিকরা সমতায় ফেরালেও মারিও গোয়েটজে ও রবার্ট লেভানডোস্কির গোলে বেয়ার্নের জয় নিশ্চিত হয়। ম্যাচ শেষে গোয়েটজে বলেন, এটা শুক্রবারের বুন্দেসলিগা শুরু হওয়ার আগে বেয়ার্নের জন্য ভাল একটি পরীক্ষা ছিল। আমরা মৌসুমের জন্য পুরোপুরি প্রস্তুত। আমরা লীগ শুরুর জন্য মুখিয়ে আছি।