২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

রিও অলিম্পিকের বার্তা পাঠিয়ে দিলেন ফেলপস

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ অলিম্পিক সম্রাট মাইকেল ফেলপস এবার ইউএস জাতীয় চ্যাম্পিয়নশিপসে নিজের সামর্থ্যরে প্রমাণটা ভালভাবেই দিলেন। যদিও শেষটা ভাল হয়নি তার। ২০০ মিটার ব্রেস্টস্ট্রোকে পঞ্চম অবস্থান নিয়ে শেষ করেছেন। তবে এর আগের সব ইভেন্টেই প্রতিপক্ষ সবাইকে ছাড়িয়ে শীর্ষে থেকেই শেষ করেছেন তিনি। আর সেসব নৈপুণ্যের মাধ্যমেই সবাইকে বার্তা দিয়েছেন আগের মতোই অপ্রতিরোধ্য আছেন। সেই গতি ও দক্ষতা ইতোমধ্যেই প্রদর্শন করেছেন ফেলপস। ফেলপস মূলত বাটারফ্লাই ও ফ্রিস্টাইলের অবিসংবাদিত রাজা। এ দুই ইভেন্টে ফেলপসকে ছোঁয়ার কেউ নেই। কিন্তু এবার ইউএস জাতীয় চ্যাম্পিয়নশিপসে ব্রেস্টস্ট্রোকে নামলেন। ২০০ মিটার ব্রেস্টস্ট্রোকে লড়ে অনভ্যস্ততার কারণেই তিনি প্রথম হতে ব্যর্থ হলেন। তিনি সময় নেন ২ মিনিট ১১.৩০ সেকেন্ড। ২ মিনিট ৯.৬৮ সেকেন্ড সময় নিয়ে প্রথম হন ক্রেইগ বেনসন। তবে ফেলপস মূলত নিজের অনুশীলন করা এবং পরিশ্রম করে নিজের উন্নতির করার লক্ষ্যেই এ ইভেন্টে লড়েছেন তিনি। তাই জয়ের চিন্তাই ছিল না। এর আগে ব্রেস্টস্ট্রোকে ফেলপসের সেরা ছিল বাল্টিমোর এ্যাকুয়াটিক ক্লাবে। সেবার এ ইভেন্টের ২০০ মিটারে তার টাইমিং ছিল ২ মিনিট ১২.১ সেকেন্ড। তিন দিনে ৩ ইভেন্টে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পর তিনি এ ইভেন্টে নিজেকে অনুশীলনের মধ্যে রাখতেই অংশ নিয়েছেন। আর সেই তিন ইভেন্টেই তিনি কাজানে শেষ হওয়া বিশ্ব সাঁতারে স্বর্ণজয়ীদের টাইমিংটাকে পেছনে ফেলেছেন। এ কারণে জাতীয় চ্যাম্পিয়নশিপস শেষ হওয়ার পর নিজের নৈপুণ্যে দারুণ সন্তুষ্ট এ মার্কিন সাঁতারু। তিনি বলেন, ‘আমি এখন দারুণ অবস্থানে আছি। যেখানে আছি দীর্ঘদিন সে অবস্থানে ছিলাম না। কিন্তু বর্তমান অবস্থানে থেকে আমি অনেক কিছু জয়েরই আত্মবিশ্বাস পাই। আমি যে কাজ করেছি, পরিশ্রম করেছি সেসব কার্যকর করতে পেরেছি।’ জাতীয় চ্যাম্পিয়নশিপসে ঝড় তোলা হয়ে গেছে। বিশ্ব সাঁতারে নিষেধাজ্ঞার কারণে অংশ নেয়া হয়নি। এবার পরবর্তী বড় আসরের জন্য প্রস্তুত ফেলপস। বিশ্বের সবচেয়ে মর্যাদাপূর্ণ আসর অলিম্পিকের প্রতিই দৃষ্টি তার। এ বিষয়ে তিনি বলেন, ‘আমি এখন অলিম্পিক বর্ষে প্রবেশ করেছি। এই বছরে আমার মধ্যে এমন কিছু তৈরি করে ফেলতে হবে যেটা কাউকে সুযোগ দেবে না। কিন্তু তা হুট করেই ঘটবে না। ২০০৭ এর পর মনে হয় এমনটা আমি করতেই পারিনি। কিন্তু এখন যেখানে আছি সেটা নিয়ে আমি দারুণ উজ্জীবিত, উদ্দীপ্ত।’ বাল্টিমোরে যে টাইমিং গড়েছিলেন সেটাকে পেছনে ফেলার লক্ষ্য ছিল সেটাও অর্জন করে ফেলেছেন ২০০ মিটার ব্রেস্টস্ট্রোকে। এ বিষয়ে ফেলপস বলেন, ‘এটাই আমি করতে চেয়েছিলাম। আমি এখন সপ্তাহের যে কোন দিন আজকের টাইমিংটা করে দেখাতে পারব।’