১৭ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

বাংলাদেশের ফুটবল লীগ উন্নয়নে আগ্রহী এসএলআই

  • বাফুফে সভাপতি সালাউদ্দিনের সঙ্গে ফলপ্রসূ বৈঠক ;###;প্রাথমিক চুক্তি দুই বছরের

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ বাংলাদেশ ঘরোয়া ফুটবলের সর্বোচ্চ আসর প্রিমিয়ার লীগ ফুটবলের উন্নয়নকল্পে কাজ করতে আগ্রহ প্রকাশ করেছে যুক্তরাজ্যভিত্তিক ইভেন্ট গ্রুপ ম্যানেজমেন্ট ‘সকার লীগ ইন্টারন্যাশনাল (এসএলআই)। বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে) আয়োজনে প্রিমিয়ার লীগের সঙ্গে আগামী দুই বছরের জন্য সম্পৃক্ত হওয়ার উজ্জ্বল সম্ভাবনা রয়েছে এসএলআইয়ের। লন্ডনের এই প্রতিষ্ঠানটির কর্মকর্তারা ২০১২ সালেই ঢাকায় এসেছিল বাংলাদেশে ফ্রাঞ্চাইজি ফুটবল লীগ আয়োজন করতে। সে সময় আলোচনা বেশিদূর গড়ায়নি। তবে এবার বাফুফে সভাপতি কাজী মোঃ সালাউদ্দিনের সঙ্গে তাদের আলোচনা ফলপ্রসূ হয়েছে। যদিও তাদের পূর্ব পরিকল্পনা মোতাবেক ‘বাংলাদেশ সুপার সকার লীগ’-এর বাস্তবায়ন আপাতত হচ্ছে না। কেননা মঙ্গলবার প্রতিষ্ঠানের উর্ধতন দুই কর্মকর্তাকে সালাউদ্দিন রাজি করিয়েছেন বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগ ফুটবল নিয়ে কাজ করার। এসএলআইয়ের দুই কর্মকর্তা প্রাথমিকভাবে রাজিও হয়েছেন। বাফুফে সূত্রে জানা গেছে, উভয় পক্ষের সম্মতিতে এ বিষয়ে মঙ্গলবার রাতেই বাফুফে এবং আইএসএলের মধ্যে একটি সমঝোতা স্মারক চুক্তি স্বাক্ষর হতে পারে। তবে আপাতত চুক্তিটি দু-এক বছরের বেশি হবে না বলে জানান বাফুফের সাধারণ সম্পাদক আবু নাইম সোহাগ। মূলত বাংলাদেশ প্রিমিয়ার ফুটবল লীগকে আরও আকর্ষণীয় করা, লীগকে বিপণন করা এবং লীগের তহবিলের যোগান দেয়াÑ এসব দায়িত্বই পেতে যাচ্ছে এসএলআই। তবে সবকিছুই এখনও আছে প্রাথমিক পর্যায়ে। তাই তারা কি কি বিষয় নিয়ে কাজ করবে এর বিস্তারিত এখনই জানাতে পারছেন নাÑ বললেন সকার গ্রুপের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আব্দুল কবির। বাংলাদেশে ফ্রাঞ্চাইজি লীগ আয়োজনের ইচ্ছা নিয়ে আসলেও মূলত বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগ নিয়েও কাজ করার পূর্ব পরিকল্পনাও প্রতিষ্ঠানটির ছিল বলে জানিয়েছেন প্রতিষ্ঠানের চেয়ারম্যান, ‘আমরা ২০১২ সালেই সালাউদ্দিন ভাইয়ের সঙ্গে একটা সভা করেছিলাম। তখন থেকেই আমরা বাংলাদেশ প্রিমিয়ার ফুটবল লীগ সম্পর্কে খোঁজ-খবর রাখছি। এছাড়া সাবেক ফুটবলার শেখ মোঃ আসলাম এবং আরিফ খান জয়ের সঙ্গেও বিভিন্ন সময় লন্ডনে আমাদের কথা হয়েছে। ইন্টারনেটেও বাংলাদেশের ফুটবলের বিভিন্ন ম্যাচ দেখে কিছুটা ধারণা নিয়েছি।’ কবির আরও যোগ করেন, ‘এখন পর্যন্ত এদেশের ফুটবলে কেউ বিনিয়োগ করেনি। তবে এদেশে ফুটবলের অনেক ভক্ত আছে। যেটা বিশ্বকাপের সময়ই লক্ষ্য করা যায়। এ জন্যই আমরা ব্যবসার জন্য বেছে নিতে আগ্রহী বাংলাদেশকে।’ প্রিমিয়ার লীগকে আকর্ষণীয় করতে ঢাকার বাইরেও ছড়িয়ে দিতে হবে পরামর্শ দিয়েছেন কবির। এ বিষয়টি নিয়েও বাফুফে সভাপতির সঙ্গে আলোচনা হয়েছে বলে জানান তিনি।

এর কয়েক মাস আগে ভারতের সেলিব্রেটি ম্যানেজম্যান্ট (সিএমজি) গ্রুপ বাংলাদেশে এসে প্রস্তাব দিয়েছিল প্রথম ফ্র্যাঞ্চাইজি ফুটবল লীগ আয়োজনের। এ নিয়ে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে) সঙ্গে কথা বললেও তাদের কার্যক্রমের নতুন কোন খবর নেই। এবার নতুনভাবে দৃশ্যপটে আবির্ভূত হলো এসএলআই। ইন্ডিয়ান সুপার লীগের (আইএসএল) আদলে বাংলাদেশে এই লীগের নাম তারা দিতে চায় বাংলাদেশ সুপার সকার লীগ (বিএসএসএল)।

নির্বাচিত সংবাদ