১০ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

এবার বাউফলে প্রতিবন্ধীকে শিশুকে অমানুষিক নির্যাতন

এবার বাউফলে প্রতিবন্ধীকে শিশুকে অমানুষিক নির্যাতন

নিজস্ব সংবাদদাতা, বাউফল ॥ বাউফলের কেশবপুর গ্রামে মানিক মৃধা (১৪) নামের এক প্রতিবন্ধী শিশুকে অমানুষিকভাবে নির্যাতনের অভিযোগ পাওয়া গেছে। তাকে স্থানীয় কয়েক ব্যাক্তি রাস্তার পাশ থেকে অজ্ঞান অবস্থায় উদ্ধার করে বাউফল হাসপাতালে ভর্তি করেছে। আজ বুধবার বেলা সাড়ে ১১টার দিকে এ ঘটনা ঘটেছে। জানাগেছে, বাউফলের দাশপাড়া ইউনিয়নের বাহির দাশপাড়া গ্রামের মহির উদ্দিন খোন মৃধার ছেলে মানিক মৃধা জন্ম থেকেই ছিল প্রতিবন্ধী। সে ছোট সময় থেকেই ধুলিয়া ইউনিয়নের গুচরাকাঠি গ্রামের খালু নুরুল ইসলামের বাড়িতে থেকে বড় হয়েছেন। প্রতিবন্ধী মানিক কেশবপুর এনএস মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ১০ম শ্রেণীর ছাত্র। ঘটনার দিন সকাল ১০টার দিকে সে খালু বাড়ি থেকে স্কুলের উদ্দেশ্যে রওনা হয়ে আলতাফ মাস্টারের বাড়ি কাছে পৌঁছলে ৪ জন অজ্ঞাত ব্যাক্তি তাকে নির্মম ভাবে পিটিয়ে জখম করে। এ পর্যায়ে সে অজ্ঞান হয়ে পরলে অজ্ঞাত ওই ব্যাক্তিরা তাকে মৃত ভেবে রাস্তার পাশে ফেলে রাখে। এসময় শামুক কুড়াতে এসে কয়েক মহিলা তাকে দেখে মাহতাব নামের এক ব্যাক্তিকে জানায়। তিনি মানিকের স্কুলে গিয়ে খবর দিলে মনিরুল ইসলাম টিটু কয়েক শিক্ষার্থী নিয়ে ঘটনাস্থলে এসে তাকে উদ্ধার করে বাউফল হাসপাতালে এনে ভর্তি করে। প্রতিবন্ধী মানিকের শরীরের নির্যাতনের অসংখ্য চিহৃ রয়েছে। এ দগদগে ক্ষত নিয়ে প্রতিবন্ধী মানিক হাসপাতালের বিছনায় কাতরাছেন। প্রতিবন্ধী মানিকের খালাতো ভাই জহির জানান, মানিকের বাবা মহির উদ্দিন তাসলিমা বেগম নামের এক মহিলাকে বিয়ে করে আলাদা বসবাস করছেন। এ নিয়ে মানিকের মা নাছিমা বেগম বাদি হয়ে তার স্বামী, দ্বিতীয় স্ত্রী ও তার ভাইদের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন। এ জের ধরে তারা মানিককে নির্যাতন করতে পারেন।