১২ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

যুদ্ধাপরাধী বিচার ॥ ময়মনসিংহের রাজাকার রিয়াজউদ্দিন জেলে আমজাদ ঢামেকে

  • নেত্রকোনার আব্দুর রহমান ও আহমদ আলী গ্রেফতার

স্টাফ রিপোর্টার ॥ একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধের সময় মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগে গ্রেফতারকৃত ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়া উপজেলার রিয়াজউদ্দিন ফকিরকে কারাগারে পাঠিয়ে দিয়েছেন ট্রাইব্যুনাল। একই মামলার আসামি মোঃ আমজাদ আলী সড়ক দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত হওয়ায় তাকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। সুস্থ হওয়ার পর তাকেও কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেয়া হয়েছে। অন্যদিকে নেত্রকোনার পূর্বধলার ৭ রাজাকারের বিরুদ্ধে ট্রাইব্যুনাল গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির পর দুই জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। গ্রেফতারকৃতরা হলেন- আব্দুর রহমান ও আহমদ আলী। বুধবার চেয়ারম্যান বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিমের নেতৃত্বে তিন সদস্যবিশিষ্ট আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-১ এ আদেশ প্রদান করেছেন। ট্রাইব্যুনালে অন্য দুই সদস্য ছিলেন বিচারপতি জাহাঙ্গীর হোসেন সেলিম ও বিচারপতি আনোয়ারুল হক।

১১ আগস্ট মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগে ময়মনসিংহের তিন রাজাকারের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির পর পুলিশ দুই রাজাকারকে গ্রেফতার করেছে। গ্রেফতারের পর তাদেরকে বুধবার ঢাকায় আনার পথে সড়ক দুর্ঘটনায় চার পুলিশ ও আসামি আমজাদ আলী গুরুতর আহত হন। পরে ওই আসামিকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। গ্রেফতারকৃত মোঃ আমজাদ আলী অসুস্থ থাকায় রিয়াজ ফকিরকে ট্রাইব্যুনালে হাজির করা হলে তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। এ সময় মামলার প্রসিকিউটর ঋষিকেশ সাহা ট্রাইব্যুনালে উপস্থিত ছিলেন।

উপজেলার ভালুকজান গ্রামের শহীদ তালেব ম-লের ছেলে খোরশেদ আলী বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেন। মামলায় তিনি অভিযোগ করেন, তার বাবা তালেব ম-লকে আখিলা নদীর ব্রিজের ওপর দাঁড় করে গুলি করে হত্যা করেন থানা রাজাকার বাহিনীর প্রধান আমজাদ ও আলবদর বাহিনীর প্রধান রিয়াজ ফকিরের নেতৃত্বে রাজাকাররা। মুক্তিযুদ্ধ চলাকালে আমজাদ আলী ও রিয়াজউদ্দিন ফকির হত্যা-গণহত্যা, ধর্ষণ, লুটপাটসহ নানা মানবতাবিরোধী অপরাধে নেতৃত্ব দেন। আছিম যুদ্ধে মুক্তিযোদ্ধাসহ বহু মানুষকে হত্যা ও পাটিরায় দুই হিন্দু নারীকে ধর্ষণের অভিযোগ রয়েছে তাদের বিরুদ্ধে।

নেত্রকোনায় দুই রাজাকার গ্রেফতার ॥ একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধের সময় মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগে নেত্রকোনার পূর্বধলার ৭ রাজাকারের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছেন ট্রাইব্যুনাল। গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির পর নেত্রকোনার পুলিশ দুই রাজাকারকে গ্রেফতার করেছে। গ্রেফতারকৃত রাজাকাররা হলেনÑ পূর্বধলার আব্দুর রহমান ও আহমদ আলী। বুধবার চেয়ারম্যান বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিমের নেতৃত্বে তিন সদস্যবিশিষ্ট আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-১ এ আদেশ প্রদান করেন।

এদিকে গ্রেফতারকৃত দুই রাজাকারকে আজ ট্রাইব্যুনালে হাজির করা হতে পারে বলে জানিয়েছেন প্রসিকিউটর সাবিনা ইয়াসমিন খান মুন্নি। গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির পর পূর্বধলা উপজেলার সোনাইকান্দা গ্রাম থেকে আব্দুর রহমান (৭৫) ও আহমদ আলীকে (৭০) গ্রেফতার করে স্থানীয় পুলিশ। ওই দু’জন পূর্বধলার মানবতাবিরোধী অপরাধের একটি মামলার সাত আসামির অন্যতম। পলাতক পাঁচজনের নাম-পরিচয় গ্রেফতারের স্বার্থে প্রকাশ করা হয়নি। তদন্ত সংস্থা সূত্রে জানা গেছে তাদের গ্রেফতারের জন্য পুলিশ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। গত বছরের ১১ ফেব্রুয়ারি থেকে ওই সাতজনের বিরুদ্ধে মানবতাবিরোধী অপরাধের অভিযোগে তদন্ত করছেন তদন্ত কর্মকর্তা শাহজাহান কবির।