১৪ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

শ্রমমান উন্নত স্তরে না পৌঁছালে জিএসপি পাওয়া সম্ভব নয় ॥ মার্কিন রাষ্ট্রদূত

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ বাংলাদেশকে জেনারেল সিস্টেম প্রিফারেন্স (জিএসপি) ফেরত দেয়ার পর্যায় আসেনি। শ্রমমান উন্নত স্তরে না পৌঁছা পর্যন্ত জিএসপি পাওয়া সম্ভব নয়। এ নিয়ে কাজ চলছে। বায়ার, উৎপাদক একসঙ্গে কাজ করলে জিএসপি ফিরে পাওয়া অসম্ভব নয়। কারণ জিএসপি কোন রাজনৈতিক ইস্যু নয়। আর রাজনৈতিক কারণে সেটি স্থগিত করা হয়নি। রানা প্লাজা দুর্ঘটনার আগে বাংলাদেশ জিএসপি পাওয়ার উপযুক্ত ছিল। কিন্তু রানা প্লাজার পর এর উপযুক্ততা হারিয়েছে। এখন পরিস্থিতি অনেকটা উন্নতি হয়েছে। আশাকরি বাংলাদেশ পরবর্তী রিভিউতে জিএসপি পাবে।

গাজীপুরের জয়দেবপুরে বুধবার দক্ষিণ সালনা ইউটা গার্মেন্টস ও ভাওয়াল মিজাপুরের ইপিলিয়ন স্টাইল লি. পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের এ সব কথা বলেন মার্কিন রাষ্ট্রদূত স্টিফেন্স বার্নিকাট। তিনি বলেন, বাংলাদেশের শ্রমিক ভাল পরিবেশে কাজ করছে। এ দেশের অনেক কারখানা আন্তর্জাতিক মানের। ইউরোপীয় ইউনিয়ন বাংলাদেশের সঙ্গে ধারাবাহিকভাবে কাজ করতে চায়। তবে বাংলাদেশ জিএসপি শর্ত এখনও পূরণ করতে পারেনি। তবে শর্ত পূরণ করতে পারবে বলে আশা করছি।

বিজিএমইএ সভাপতি আতিকুল ইসলাম বলেন, রানা প্লাজা ধসের কারণে আমাদের অনেক ক্ষতি হয়েছে। সে ক্ষতি পুষিয়ে উঠতে কাজ করা হচ্ছে। এখন কারখানা কাজের পরিবেশ মানের দিক থেকে উত্তীর্ণ; কর্মীদের বেতন বোনাস নিশ্চিত করাই আমাদের মূল লক্ষ্য। তিনি বলেন, বায়াররা আসতে শুরু করেছে।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন কানাডার রাষ্ট্রদূত বিনোইট পাইরি লারামি, ইউরোপীয় ইউনিয়নের রাষ্ট্রদূত প্রিয়েরি মায়াদুন, স্পেন দূতাবাসের রাষ্ট্রদূত ইডুআরাডো লাইগেলসিয়া ইডেল রোসাল, অস্ট্রেলিয়া হাই কমিশনের ড. লুসিনডা বেল, ফ্রান্স দূতাবাসের জেন প্রিরি পনিসট, নেদারল্যান্ডস দূতাবাসের মারটিন ব্যান হোগেসট্রিটিন, রাশিয়ান দূতাবাসের এ্যানড্রিয়া ব্যাংকাবি, জার্মান দূতাবাসের ড. থমাস প্রিনজ প্রমুখ।

পরিদর্শনকালে উপস্থিত ছিলেন বিজিএমইএ সভাপতি আতিকুল ইসলাম, সহ-সভপতি শহীদুল্লাহ আজীম, সিদ্দিকুর রহমান ইউটা ফ্যাশন লি. ব্যবস্থাপনা পরিচালক আব্দুর রাজ্জাক সাত্তার, পরিচালক মোহাম্মাদ সাত্তার, ওয়ালিউর রহমান, ইপিলিয়ন নিটেক্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক রেজা উদ্দিন আল মামুন, পরিচালক জুনায়েদ আবু সালেহ মুসা প্রমুখ।