২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

গাজীপুরে কলেজছাত্রীর লাশ উদ্ধার, স্বামী ও ভাবি আটক

নিজস্ব সংবাদদাতা, গাজীপুর, ১২ আগস্ট ॥ কালিয়াকৈরে বুধবার দুপুরে ঘরের সিলিং ফ্যানের সঙ্গে এক কলেজছাত্রীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পুলিশ নিহতের স্বামী ও তার ভাবিকে আটক করেছে। একই দিন শ্রীপুরে নিখোঁজ হওয়ার পরদিন এক হোটেল ব্যবসায়ীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

কালিয়াকৈর থানার এসআই সফিউল আলম জানান, এলাকাবাসীর সংবাদের ভিত্তিতে বুধবার দুপুরে কালিয়াকৈর উপজেলার হরিণহাটি গ্রামের মাহবুবুর রহমান বেপারীর ঘরে সিলিং ফ্যানের সঙ্গে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে ফাঁস লাগানো অবস্থায় তার স্ত্রী জ্যোতি আক্তারের (১৯) ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। তার শরীরে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। পুলিশের ধারণা পারিবারিক কলহের জের ধরে তার মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় নিহতের স্বামী মাহবুব ও মাহবুবের বড় ভাই মাসুদ রানার স্ত্রী বদরুন্নাহার বিউটিকে (২৮) জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পুলিশ আটক করেছে। কালিয়াকৈরের সফিপুর আনসার ভিডিপি ও একাডেমির ভাষা শহীদ আবদুল জব্বার স্কুল এ্যান্ড কলেজের একাদশ শ্রেণীর ছাত্রী জ্যোতি স্থানীয় রশিদপুর এলাকার জাহিদুল ইসলাম জসিমের মেয়ে।

নিখোঁজ ব্যবসায়ীর লাশ উদ্ধার ॥ শ্রীপুর মডেল থানার এসআই সোহরাওয়ার্দী হোসেন ও স্থানীয়রা জানান, গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার বরমী বাজার এলাকার সজল ঘোষের ছেলে সোহাগ (২৫) মঙ্গলবার সকাল ১০টার দিকে বাজারে নিজেদের খাবার হোটেলের উদ্দেশে বাসা থেকে বের হন। এরপর থেকে তিনি নিখোঁজ। স্বজনরা খোঁজাখুঁজি করেও তার সন্ধান পায়নি। এলাকাবাসী বুধবার সকালে স্থানীয় বংশী বদন সাহার বাড়ির পাশের (দক্ষিণে) আম গাছের ডালের সঙ্গে দড়ি দিয়ে গলায় ফাঁস লাগানো সোহাগের লাশ দেখতে পায়। তার দু’পা মাটিতে লেগে থাকা ও ভাঁজ করা অবস্থায় ছিল। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করে। তাকে হত্যা করা হয়েছে বলে পুলিশের ধারণা। পুলিশ ময়নাতদন্তের জন্য লাশ দু’টি গাজীপুরের শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে।