২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ঢাবি ভর্তি পরীক্ষা ॥ ইলেক্টিভ ইংলিশ বাধ্যতামূলক নয়

বিশ্ববিদ্যালয় রিপোর্টার ॥ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগে ভর্তির জন্য ভর্তি পরীক্ষায় আর ‘ইলেক্টিভ ইংলিশ’র উত্তর করা বাধ্যতমূলক রাখছে না কর্তৃপক্ষ।

গত বছর বিশ্ববিদ্যালয়ের কলা অনুষদের অধীনে অনুষ্ঠিত খ-ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় ইলেক্টিভ ইংলিশে পাস করে এই অনুষদভুক্ত ইংরেজি বিভাগে ভর্তির যোগ্যতা অর্জন করে মাত্র দুইজন শিক্ষার্থী, যেখানে এই বিভাগে দেড়শ শিক্ষার্থীর মধ্যে ১২৫ জনই খ-ইউনিট থেকে আসার কথা ছিল।

গত বছরের ওই অভিজ্ঞা থেকে এবার ইংরেজি বিভাগে ভর্তির জন্য ‘ইলেক্টিভ ইংলিশ’ এ বাধ্যতামূলক উত্তর করার বিধানটি বাতিল করা হয়েছে বলে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, ভর্তি পরীক্ষায় ইংরেজি পরীক্ষাতে খারাপ করার কারণে ‘ইলেক্টিভ ইংলিশ’ বাতিল করা হয়েছে। শুধু যে শিক্ষার্থীরা মাতৃভাষা হিসেবে বাংলায় লেখাপড়া করেনি তারা ‘ইলেক্টিভ ইংলিশ’ এ উত্তর করবে।

তবে সাধারণ শিক্ষার্থীদের ইংরেজি বিভাগে ভর্তি হতে পরীক্ষায় ইংরেজিতে ন্যূনতম একটি নম্বর পাওয়ার শর্ত দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

উপাচার্য বলেন, ওই ন্যূনতম নম্বর কত হবে তা একাডেমিক কাউন্সিলে আলোচনার সাপেক্ষে নির্ধারণ করা হবে।

২০১৪-১৫ শিক্ষাবর্ষে ভর্তি পরীক্ষার শর্ত জুড়ে দেওয়া হয়েছিল ইংরেজি বিভাগে ভর্তি হতে হলে এসএসসি ও এইচএসসিতে ইংরেজিতে ২০০ নম্বর এবং ভর্তি পরীক্ষায় বাধ্যতামূলকভাবে ‘ইলেকটিভ ইংলিশ’ উত্তর করে ১৫ পাওয়ার পাশাপাশি ‘সাধারণ ইংরেজিতে’ ২০ নম্বর পেতে হবে।

তার আগে ২০১৩-২০১৪ শিক্ষাবর্ষে শুধু যারা মাতৃভাষা বাংলায় লেখাপড়া করেননি, তাদের জন্য ‘ইলেকটিভ ইংলিশ’ এ উত্তর করার সুযোগ ছিল।

বধুবার সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের নবাব নওয়াব আলী চৌধুরী সিনেট ভবনে বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ ভর্তি কমিটির সভায় প্রথম বর্ষে ভর্তি পরীক্ষার তারিখ এবং আবেদন সংগ্রহ ও জমার তারিখও নির্ধারণ করা হয়। সেখানে এইচএসসিতে ফল ‘খারাপের’ বিষয়টি বিবেচনায় নিয়ে এবার ভর্তির জন্য আবেদনের ন্যূনতম যোগ্যতা শিথিল হয়।

এর আগে চতুর্থ বিষয়কে বাইরে রেখে এসএসসি ও এইচএসসি মিলিয়ে মোট যে জিপিএ থাকা প্রয়োজন হতো এবার চতুর্থ বিষয়কে সঙ্গে নিয়েই সে জিপিএ হলে আবেদন করা যাবে।

বিকালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ অফিস থেকে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, আগামী ২৪ অগাস্ট থেকে ২০১৫-২০১৬ শিক্ষাবর্ষে প্রথম বর্ষ স্নাতক (সম্মান) শ্রেণিতে অনলাইনের মাধ্যমে প্রার্থীদের ভর্তির আবেদন প্রক্রিয়া শুরু হবে। আবেদন করা যাবে ১০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত।

আগামী ৯ অক্টোবর খ-ইউনিটের পরীক্ষার মধ্য দিয়ে ভর্তি পরীক্ষা শুরু হবে। এরপর ১০ অক্টোবর চ-ইউনিটের (সাধারণ জ্ঞান), ১৬ অক্টোবর গ-ইউনিটের, ১৭ অক্টোবর চ-ইউনিটের (অংকন), ৩০ অক্টোবর ক-ইউনিটের এবং ৬ নভেম্বর ঘ-ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা হবে।

নির্বাচিত সংবাদ