২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

টরন্টোতে চবি গ্র্যাজুয়েটদের ‘আনন্দ দিন’

অনলাইন ডেস্ক ॥ পুরনো দিনের স্মৃতিতে সাঁতার কাটা, আড্ডা আর নানা ধরনের আনন্দময় কর্মকাণ্ডের মধ্য দিয়ে কানাডায় বসবাসরত চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের গ্র্যাজুয়েটরা উদযাপন করেছেন ‘বার্ষিক আনন্দ দিন’।

গত শনিবার প্রাকৃতিক সৌন্দর্যে ঘেরা পিটারবোরো শহরের বিভারমেইড পার্কে দিনভর আনন্দ উল্লাসে কাটান গ্র্যাজুয়েট ও তাদের পরিবারের সদস্যরা। টরন্টো ছাড়াও পার্শ্ববর্তী শহরগুলো থেকে অনেক গ্র্যাজুয়েট তাদের পরিবারের সদস্যদের নিয়ে এই ‘অ্যানুয়াল ফান ডে’র অনুষ্ঠানে অংশ নেন।

কানাডায় বসবাসরত চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের গ্র্যাজুয়েটদের সংগঠন চিটাগং ইউনিভার্সিটি এলামনাই এসোসিয়েশন অব কানাডা-ইনক এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

লেকের তীরঘেঁষা সবুজেঘেরা প্রাকৃতিক পরিবেশে গ্র্যাজুয়েটরা আড্ডা মেরে, হৈ হুল্লোড়ে আর পুরনো স্মৃতি রোমন্থন করে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসের দিনগুলোতে ফিরে যান। একইসঙ্গে আয়োজন করা হয় নানা ধরনের ক্রীড়া নৈপুণ্য প্রদর্শনের প্রতিযোগিতা। প্রতিযোগিতা অবশ্য আয়োজন করা হয় গ্র্যাজুয়েটদের পরিবারের সদস্যদের জন্যও। আর এই সব প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের দেওয়া হয় আকর্ষণীয় পুরস্কার।

পুরস্কার বিতরণের আগে এলামনাইর সাবেক সাধারণ সম্পাদক সব্যসাচী চক্রবর্তীর সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের সাবেক অধ্যাপক ড. সুজিত দত্ত, সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি মোহাম্মদ ইলিয়াস মিয়া, বর্তমান সভাপতি শওগাত আলী সাগর, সাবেক সাধারণ সম্পাদক যথাক্রমে বিনয় মজুমদার, কাজী জহির উদ্দিন, বর্তমান সাধারণ সম্পাদক বাহাউদ্দিন বাহার, সাংগঠনিক সম্পাদক মিনারা বেগম প্রমূখ।

সুধান রায়ের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত হয় আকর্ষণীয় র‌্যাফেল ড্র। এই পর্বে তাকে সহায়তা করেন তাপস ভট্টাচার্য্য ও মিনারা বেগম। জহিরুল হক চৌধুরীর পরিচালনায় বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেওয়া হয়।