১৭ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

মওদুদের বাড়ির মামলার অভিযোগ গঠন আরও পিছিয়েছে

অনলাইন রিপোর্টার ॥ অবৈধভাবে বাড়ি দখল ও আত্মসাতের ঘটনায় বিএনপি নেতা মওদুদ আহমদের বিরুদ্ধে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) মামলার অভিযোগ গঠন আবার পিছিয়েছে।

বৃহস্পতিবার মওদুদের আইনজীবী তাহেরুল ইসলাম তৌহিদ শুনানির জন্য সময় চাইলে আগামী ৩০ অগাস্ট নতুন দিন রাখেন ঢাকার জ্যেষ্ঠ বিশেষ জজ আদালতের বিচারক কামরুল হোসেন মোল্লা।

এ নিয়ে নবমবারের মতো পেছাল সাবেক আইনমন্ত্রীর বিরুদ্ধে মামলার শুনানির তারিখ। মওদুদ বৃহস্পতিবার এজলাসে উপস্থিত ছিলেন।

মওদুদের আইনজীবী বিচারককে জানান, এই মামলার অভিযোগ আমলে নেওয়ার বৈধতা চ্যালেঞ্জ করলে হাই কোর্ট মামলাটি কেন খারিজ করা হবে না- এই মর্মে রুল দেয়। পরে হাই কোর্ট রুল খারিজ করে দিলে সে আদেশের বিরুদ্ধে লিভ টু আপিল জমা দেওয়া হয়, যা শুনানির অপেক্ষায় রয়েছে।

এই কারণে অভিযোগ গঠনের শুনানির জন্য সময় দরকার বলে আদালতে আরজি জানান আইনজীবী তৌহিদ।

দুদকের উপ-পরিচালক হারুনুর রশিদ ২০১৩ সালের ১৭ ডিসেম্বর অবৈধভাবে বাড়ি দখল ও আত্মসাতের অভিযোগে গুলশান থানায় মওদুদ ও তার ভাই মনজুরের বিরুদ্ধে এই মামলা করেন।

২০১৪ সালের ২৬ মে হারুনুর রশীদ ঢাকার মুখ্য মহানগর হাকিমের আদালতে মামলার অভিযোগপত্র দেন।

হারুনুর রশিদের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, গুলশানের যে বাড়িটিতে মওদুদ আহমদ ও তার পরিবার থাকছেন, সেটির প্রকৃত মালিক ছিলেন পাকিস্তানি নাগরিক মোঃ এহসান। ১৯৬০ সালে তৎকালীন ডিআইটির কাছ থেকে এই বাড়ির মালিকানা তিনি (এহসান) লাভ করেন।

পরবর্তীতে ১৯৬৫ সালে এই বাড়ির মালিকানার কাগজপত্রে এহসানের পাশাপাশি তার স্ত্রী অস্ট্রেলীয় নাগরিক ইনজে মারিয়া প্ল্যাজের নামও অন্তর্ভুক্ত হয়।

১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধ শুরু হলে এহসান স্ত্রীসহ ঢাকা ত্যাগ করেন। তারা আর ফিরে না আসায় ১৯৭২ সালে এটি পরিত্যক্ত সম্পত্তির তালিকাভুক্ত হয়।

১৯৭৩ সালের ২ অগাস্ট মওদুদ তার ইংল্যান্ডপ্রবাসী ভাই মনজুরের নামে একটি ভুয়া আমমোক্তারনামা তৈরি করে বাড়িটি সরকারের কাছ থেকে বরাদ্দ নেন বলে মামলার এজাহারে অভিযোগ করা হয়েছে।