২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

সেপ্টেম্বরে জিএসপি নিয়ে বাংলাদেশ যুক্তরাষ্ট্র বৈঠক

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ পণ্যের অগ্রাধিকারমূলক বাজার সুবিধা (জিএসপি) নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে বাংলাদেশের বৈঠক আগামী সেপ্টেম্বরে অনুষ্ঠিত হবে বলে জানিয়েছেন বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ।

গত বুধবার সচিবালয়ে নিজ কক্ষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের বাণিজ্য মন্ত্রী জানান, জিএসপি নিয়ে মার্কিন বাণিজ্য বিষয়ক সংস্থা ইউনাইটেড স্টেটস ট্রেড রিপ্রেজেন্টেটিভ (ইউএসটিআর) বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে বৈঠক করার কথা জানিয়েছে। তারা বলেছে, অগ্রগতিতে তারা সন্তুষ্ট।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, জিএসপি নিয়ে আমাদের আর করার কিছু নেই। অপেক্ষা করব। নতুন করে কোন উদ্যোগ নেয়া হবে না। বাংলাদেশ একটি স্বাধীন সার্বভৌম দেশ, আমরা এগোচ্ছি, আমাদের প্রবৃদ্ধি বাড়ছে, আমরা কারও কাছে মাথা নত করব না। টোব্যাকো, সিরামিকসহ কয়েকটি আইটেমে আমরা জিএসপি সুবিধা পেতাম সামান্যÑ মাত্র ২৩ মিলিয়ন ডলার। আমরা তো চিলিতেও ৪০ মিলিয়ন ডলার রফতানি করছি। জিএসপি না পেলেও এসব পণ্য রফতানি কমেনি বরং বাড়ছে। তিনি আরও বলেন, ১২২টি দেশকে জিএসপি দেয়া হয়েছে, বাংলাদেশকে দেয়া হয়নি, কথাটি ঠিক না। ১২৩টি দেশ জিএসপি সুবিধা পেত। জিএসপির মেয়াদ ছিল ২০১৩ পর্যন্ত। আমাদের রানা প্লাজার পরে এ সুবিধা স্থগিত করা হয়, শর্ত পূরণ করলে দেয়া হবে। আমরা ১৬টি শর্ত পূরণ করেছি। যখন মেয়াদ বাড়াল তখন ১২২টি দেশ স্বাভাবিক নিয়মেই পেল। এর মধ্যে পাকিস্তান, ভারত, ভুটান, আফগানিস্তানÑ সবাই ছিল, কিন্তু আমাদের একটা বিশেষ কারণে স্থগিত রাখা হলো। বিএনপির সমালোচনা করে মন্ত্রী বলেন, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে বাংলাদেশের কোন খারাপ সম্পর্ক নেই। আমাদের জিএসপি বাতিল করার জন্য নিউইয়র্ক টাইমসে খালেদা জিয়া আর্টিকেল লিখেছিলেন। তার মতো একজন রাজনীতিবিদ জিএসপি বাতিলের জন্য কাজ করেছেন।