২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

মিয়ানমারে ক্ষমতাসীন দলের প্রধান বরখাস্ত

  • প্রেসিডেন্টের সঙ্গে ক্ষমতার লড়াই

মিয়ানমারের শাসক দলের ক্ষমতাসীন প্রধান শোয়েমান তার পদ থেকে বহিষ্কৃত হয়েছেন। দলের সদস্যরা বৃহস্পতিবার এ কথা জানান। দৃশ্যত তিনি সাধারণ নির্বাচনের তিন মাস আগে প্রেসিডেন্ট থেইন সেইনের সঙ্গে ক্ষমতার লড়াইয়ে পরাজিত হয়ে ঐ ভাগ্যবরণ করেন। একই সময়ে দেশটির নিরাপত্তা বাহিনী ক্ষমতাসীন ইউনিয়ন সলিডারিটি এ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট পার্টির (ইউএসডিপি) রাজধানী নেপিডোস্থ সদর দফতর নিজেদের নিয়ন্ত্রণে নিয়েছে। খবর আলজাজিরা ও ইয়াহু নিউজের।

বুধবার রাতে নিরাপত্তা বাহিনী ইউএসডিপির সদর দফতর ঘিরে ফেলে এবং কম্পাউন্ডে অবস্থানরত দলীয় সদস্যদের সে স্থান ত্যাগ করা থেকে বিরত রাখে। ৮ নবেম্বর অনুষ্ঠেয় সাধারণ নির্বাচনের প্রার্থী বাছাই নিয়ে তখন এক দলের অভ্যন্তরীণ বৈঠক চলছিল। ঐ নির্বাচনের আগে দলটির নিয়ন্ত্রণ নিয়ে সামরিক বাহিনী এবং দলীয় প্রশাসনের মধ্যে বিরোধ চলে এসেছে। ইউএসডিপির সেক্রেটারি জেনারেল মং মং থেইন এবং পার্লামেন্টের স্পীকার ও ইউএসডিপির প্রেসিডেন্ট শোয়েমান উভয়কে তাদের দলীয় পদ থেকে অপসারণ করা হয়েছে। প্রকাশিত খবরে এ কথা বলা হয়।

দলীয় সূত্রে বলা হয়, ঐ পার্লামেন্ট নির্বাচনের প্রার্থী বাছাই নিয়ে প্রেসিডেন্ট থেইন সেইন এবং দলের প্রধান শোয়েমানের মধ্যে কয়েক মাস ধরেই ক্রমশ উত্তেজনা বাড়তে থাকে। থেইন সেইন ও শোয়েমান উভয়েই পার্লামেন্ট নির্বাচনের পর প্রেসিডেন্ট হওয়ার আগ্রহ ব্যক্ত করেন। মং মং থেইন বৃহস্পতিবার টেলিফোনে জানান, তারা আমাকে ফোন করে আমার আর দলীয় দফতরে আসার দরকার নেই বলে জানায়।

তিনি বলেন, তিনি বাসভবনেই আছেন এবং নিরাপত্তা বাহিনীর ঐ তৎপরতার সময় সদর দফতরে যাননি। সদর দফতরের ভেতরের লোকজনকে বের হতে এবং কাউকে ভবনের ভেতরে যেতে দেয়া হয়নি। আলজাজিরার সংবাদদাতা জানান, এটি মিয়ানমারের সামরিক বাহিনীর নিজেদের প্রার্থীদের প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে দেয়ারই বিষয়।