২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

মাদারীপুরে দুই স্কুলছাত্রীকে অপহরণের পর নির্যাতন করে হত্যা ॥ আটক ২

নিজস্ব সংবাদদাতা, মাদারীপুর, ১৩ আগস্ট ॥ মাদারীপুরে দুই স্কুলছাত্রীকে অপহরণের পর নির্যাতন করে এবং বিষ খাইয়ে হত্যা করা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় দুই যুবককে সদর হাসপাতাল থেকে আটক করে সদর থানা পুলিশ। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় তাদের আটক করা হয়।

জানা গেছে, নিহত সুমাইয়ার পিতা বিল্লাল শিকদার বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা সাতটায় হাসপাতালে উপস্থিত সাংবাদিকদের জানান, সকালে সদর উপজেলার মোস্তফাপুর বহুমুখী উচ্চবিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণীর ছাত্রী সুমাইয়া আক্তার (১৪) ও তার সহপাঠী প্রতিবেশী মোস্তফাপুর গ্রামের হাবিব খার মেয়ে এবং ওই স্কুলের অষ্টম শ্রেণীর ছাত্রী হ্যাপি আক্তার (১৪) স্কুল ছুটির পর বাড়ি যাওয়ার পথে নিখোঁজ হয়। বিকেলে লোকমুখে খবর পেয়ে তিনি হাসপাতালে এসে তার মেয়ে সুমাইয়া ও তার বান্ধবী হ্যাপির লাশ দেখতে পান। বিল্লাল শিকদার আরও জানান, তার প্রতিবেশী আলম শিকদারের সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরে জমিজমা নিয়ে তাঁর বিরোধ চলছিল। ঘটনার সঙ্গে জড়িত আটক দুই যুবকের মধ্যে রফিক ও শিপন তার প্রতিপক্ষ কামাল শিকদার ও কুদ্দুস শিকদারের ছেলে। এরা পূর্বশত্রুতার জের ধরে আমার মেয়েকে অপহরণ করে নিয়ে নির্যাতন করে মুখে বিষ ঢেলে দিয়ে হত্যা করেছে।

মাদারীপুর সদর থানা পুলিশের এসআই আবদুল বারেক জানান, ঘটনার খবর পেয়ে তারা মাদারীপুর সদর হাসপাতালে গিয়ে দুই কিশোরীর লাশ উদ্ধার করেন। এ সময় লাশ নিয়ে আশা দুই যুবক রফিক ও শিপনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়। লাশের সুরতহাল করা হয়েছে, ময়নাতদন্তের পর হত্যার কারণ জানা যাবে।