২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

কোহলিতে ম্যারাডোনার ছায়া!

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ কোথায় ফুটবল, আর কোথায় ক্রিকেট। একেবারেই ভিন্ন খেলা। আবার কোথায় আর্জেন্টিনার কিংবদন্তী ফুটবলার দিয়াগো ম্যারাডোনা, আর কোথায় ভারতের বর্তমান সময়ের সেরা তারকা ক্রিকেটার বিরাট কোহলি। কোনটার সঙ্গেই কোনটা মিলেনা। কারও সঙ্গেই কারও তুলনা হয় না। তবে ভারতের সাবেক অধিনায়ক কলকাতার মহারাজা সৌরভ গাঙ্গুলী এই দুইজনের মধ্যে একই মিল দেখতে পেলেন। কোহলি’র মধ্যে ম্যারাডোনার ছায়া দেখতে পেলেন। আর তা একটি দিকেই সবচেয়ে বেশি ফুটিয়ে তুললেন গাঙ্গুলী। সেটি কী? দুইজনই যে অন্তর দিয়ে খেলেন।

টেস্ট অধিনায়ক বিরাট কোহলির আবেগ ও আগ্রাসনের সঙ্গে আর্জেন্টিনার কিংবদন্তী ফুটবলার দিয়াগো ম্যারাডোনার আবেগ ও আগ্রাসনের তুলনা করেছেন ভারতের সাবেক অধিনায়ক সৌরভ গাঙ্গুলি। কোহলির এই আগ্রাসনে দোষের কিছু দেখছেন না ভারতের সর্বকালের অন্যতম সেরা এই অধিনায়ক।

সৌরভ বলেন, ‘ম্যারাডোনা আমার ফেবারিট ক্রীড়াবিদদের একজন। আপনি যখন তার খেলা দেখবেন তখন লক্ষ্য করলে দেখবেন তিনি হৃদয় দিয়ে ফুটবল খেলছেন। আপনি এখন বিরাট কোহলির মধ্যেও ঠিক তেমনটি দেখতে পাবেন। খেলার প্রতি তার (কোহলি) যেই দৃষ্টিভঙ্গি সেটাকে আমি ভালোবাসি। আমি ম্যারাডোনার মতো তারও একজন বড় ভক্ত। ম্যারাডোনা সব সময় আবেগ দিয়ে খেলতো এবং তার মধ্যে আমরা আগ্রাসনও দেখতে পাই। এখন কোহলির মধ্যেও সেসব লক্ষ্য করা যাচ্ছে।’

মহেন্দ্র সিং ধোনির কাছ থেকে অধিনায়কত্ব পাওয়ার পর মাত্র সাত টেস্টে পাঁচ পাঁচটি সেঞ্চুরি করেছেন বিরাট কোহলি। বৃহস্পতিবার গল টেস্টে সেঞ্চুরি করার আগে অস্ট্রেলিয়া সফরে অধিনায়ক হিসেবে চারটি সেঞ্চুরি করেন ভারতের এই রানমেশিন। অ্যাডিলেড টেস্টে জোড়া সেঞ্চুরি করার পর মেলবোর্ন ও সিডনি টেস্টেও সেঞ্চুরি করেন কোহলি। বিরাট কোহলির রান ক্ষুধায় মুগ্ধ সৌরভ গাঙ্গুলী। বলেছেন, ‘সে সব সময় রানের জন্য ক্ষুধার্ত। সব সময় জিততে চায় এবং ম্যাচ শেষ করে আসতে চায়। অধিনায়ক হিসেবে চার টেস্টে সে চারটি সেঞ্চুরি করেছে। আমার কাছে এটি অবিশ্বাস্য।’

ভারতের জার্সি গায়ে ৪২.১৭ গড়ে ১১৩ টেস্টে ৭২১২ রান করেন সৌরভ গাঙ্গুলী। টেস্টে ১৬টি সেঞ্চুরি ও ৩৫টি হাফ সেঞ্চুরি করেন সাবেক এই অধিনায়ক। এছাড়া ৩১৩টি ওয়ানডেতে ৪১.০২ গড়ে ১১ হাজার ৩৬৩ রান করেন প্রিন্স অব কলকাতা। ওয়ানডেতে ২২টি সেঞ্চুরি এবং ৭২টি হাফ সেঞ্চুরি করেন ভারতের সর্বকালের সেরা এই টেস্ট অধিনায়ক।

সাবেক এ ভারতীয় অধিনায়কের মতে, সাফল্যের জন্য ম্যারাডোনা যেমন মুখিয়ে থাকতেন, আক্রমণাত্মক মানসিকতায় ঝাঁপিয়ে পড়তেন প্রতিপক্ষের ওপর, কোহলিও তা-ই। নিজের সময়ে খেলার মাঠে আক্রমণাত্মক মনোভাব ও দুরন্ত পারফর্মের জন্যই বিশ্ব ফুটবলে সবার কাছে আলাদা কদর পেয়ে থাকেন আর্জেন্টিনার ৮৬’র বিশ্বকাপ জয়ী নায়ক দিয়াগো ম্যারাডোনা। কোহলিও সেই কদর ধীরে ধীরে পেতে চলেছেন। তাইতো গাঙ্গুলী বলেছেন, ‘মাঠ বা টিভি যেখান থেকেই কোহলির খেলা দেখি না কেন, তা খুবই উপভোগ করি। কারণ জয়ের জন্য ও সব সময়ই ক্ষুধার্ত থাকে। এ জন্য ওর আগ্রাসি মনোভাব আমার খুব ভাল লাগে।’ আর তাই কোহলিতে ম্যারাডোনার ছায়া খুজে পেয়েছেন গাঙ্গুলী।