২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

মুলারকে কেনার সামর্থ্য নেই ম্যানইউর!

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ কোনভাবেই যেন জার্মান তারকা টমাস মুলার ও ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ইস্যু শেষ হচ্ছে না। বায়ার্ন মিউনিখ ফরোয়ার্ড মুলার যতই বলে দেন না কেন, বায়ার্নেই থাকছেন তিনি; এরপরও এ আলোচনা চলছেই। সর্বশেষ মুলারকে কেনার সামর্থ্যই ম্যানইউর নেই, এমন আলোচনা চলছে! জার্মান তারকা টমাস মুলারকে কি আদৌ দলে ভেড়াতে পারবে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড? আপাতদৃষ্টিতে তা মনে হচ্ছে না। স্বয়ং বায়ার্ন মিউনিখের প্রধান নির্বাহী কমকর্তা (সিইও) কার্ল হেইঞ্জ মেনিগে এতে বাদ সেধেছেন। রীতিমতো বলেই দিয়েছেন, মুলার বিক্রির জন্য নয়। এমনকি এ নিয়ে উপহাসও করেছেন মেনিগে। তার মতে, ইংলিশ প্রিমিয়ার লীগের দলগুলোর মুলারকে কেনার মতো সামর্থ্য নেই! এক সাক্ষাতকারে মেনিগে বলেন, ‘মুলার ইজ নট ফর সেল (মুলার বিক্রির জন্য নয়)। আমাদের ইংলিশ সহকর্মীরা মুলারকে কেনার মতো অর্থের যোগান দিতে পারবে না।’ মুলার ছাড়াও সার্জিও রামোসকে দলে ভেড়ানোর জোর প্রচেষ্টা চালিয়েও ব্যর্থ হয় ২০ বারের প্রিমিয়ার লীগ চ্যাম্পিয়নরা। ইতোমধ্যেই রিয়াল মাদ্রিদের সঙ্গে চুক্তি নবায়ন করেছেন এ স্প্যানিশ ডিফেন্ডার। অন্যদিকে, জার্মান ক্লাব উলফসবার্গ থেকে বেলজিয়ান উইঙ্গার ডি ব্রুনকে দলে টানার চেষ্টা চালাচ্ছে ম্যানচেস্টার সিটি। তবে বুন্দেসলিগা প্রতিদ্বন্দ্বীরাও সিটিজেনদের না বলে দেবে বলে আশা প্রকাশ করেন মেনিগে। আর্থিক বিষয়ে মজা করেই খোঁচা দেন বায়ার্নের সিইও। কারণ, কে না জানে টেলিভিশন স্বত্বা বৃদ্ধির সুবাদে ইংলিশ ক্লাবগুলোর আয় আগের তুলনায় অনেক বেড়েছে। তবে অর্থ দিয়েই কী সব হয়! সেই বিষয়টিও তুলে ধরেন জার্মানির হয়ে তিন বিশ্বকাপ খেলা মেনিগে, ‘ইংলিশ ক্লাবগুলো তারকা খেলোয়াড়দের দলে ভেড়ানোর চেষ্টা করেও ব্যর্থ হচ্ছে। টাকাই সবকিছু নয়। রামোস, মুলার, ডি ব্রুনসহ আরও অনেককেই তারা আনতে চাইছে। কিন্তু দিন শেষে তাদের খালি হাতেই ফিরতে হচ্ছে।’

এরআগে মুলার নিজেই জানিয়েছিলেন, তিনি ইংলিশ ক্লাব ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের লোভনীয় একটি প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করে দিয়েছেন। চলতি দল বদলে জার্মানির হয়ে ব্রাজিল বিশ্বকাপ জেতা মুলার ওল্ড ট্র্যাফোর্ডের নবনিযুক্ত কোচ লুইস ফন গালের অন্যতম প্রধান টার্গেট ছিল। নিজেদের ভাগ্য পরিবর্তনে বিশ্বমানের খেলোয়াড় মুলারকে প্রস্তাবও দিয়েছিল ম্যানইউ। ‘আকাশচুম্বী’ অর্থের এই প্রস্তাবে সম্মতি দিলে আর্থিকভাবে লাভবান হতেন বলে জানালেন মুলার। কিন্তু ক্যারিয়ারের অধিকতর লাভের জন্য প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করে দিয়েছেন বলে জানান ২৪ বছর বয়সী এই ফুটবলার। এরপরও মুলার-ম্যানইউ নিয়ে আলোচনা চলছেই।