১৯ ডিসেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

সংক্ষিপ্ত সংবাদ

  • কোয়ার্টার ফাইনালে সেরেনা

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ রজার্স কাপে জয়ের ধারা অব্যাহত রেখেছেন সেরেনা উইলিয়ামস। বৃহস্পতিবার টুর্নামেন্টের তৃতীয় পর্বে আমেরিকান এই টেনিস তারকা ৬-৩ এবং ৬-২ গেমে আন্দ্রেয়া পেটকোভিচকে পরাজিত করে কোয়ার্টার ফাইনালের টিকেট নিশ্চিত করেন। জার্মানির পেটকোভিচের বিপক্ষে জিততে সেরেনার সময় লাগে মাত্র ৬২ মিনিট। টরেন্টোর এই টুর্নামেন্টে ফেবারিট হিসেবেই কোর্টে নামেন আমেরিকান টেনিস তারকা। তবে শীর্ষ বাছাইয়ের বিশ্বাস প্রথম ম্যাচের চেয়ে দ্বিতীয়টিতে তুলনামূলকভাবে ভাল খেলেছেন তিনি।

এ বিষয়ে ম্যাচ শেষের সংবাদ সম্মেলনে সেরেনা উইলিয়ামস বলেন, ‘আমি মনে করি প্রথম ম্যাচের চেয়ে এখানে ভাল সার্ভ করেছি। আর আন্দ্রেয়া পেটকোভিচের বিপক্ষে ম্যাচ জিততে এটাই ব্যবধান গড়ে দিয়েছে।’ তেত্রিশ বছর বয়সী সেরেনা উইলিয়ামস টেনিস কোর্টে দুর্দান্ত সময় কাটাচ্ছেন। গত মাসে উইম্বল্ডন জিতে ‘ সেরেনা সøাম’ জয়ের রেকর্ড গড়েছেন তিনি। তার সামনে এখন একই ক্যালেন্ডারে সব গ্র্যান্ডসøাম জয়ের মাইলফলক। শুধু তাই নয়, মৌসুমের শেষ মেজর শিরোপা জিততে পারলে স্টেফি গ্রাফের ২২ গ্র্যান্ডসøাম জয়ের রেকর্ডেও ভাগ বসাবেন বিশ্ব টেনিস র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষ তারকা সেরেনা। তারপরও কোর্টে আরও ভাল পারফর্ম করতে চান তিনি। এ বিষয়ে আমেরিকান টেনিসের জীবন্ত কিংবদন্তি বলেন, ‘আমি মনে করি এখনও অনেক ভাল করার সুযোগ আছে আমার।’ রজার্স কাপের কোয়ার্টার ফাইনালে সেরেনার প্রতিপক্ষ এখন ইতালির রবার্তো ভিঞ্চি। ভিঞ্চির বিপক্ষে আগে তিনবারের মুখোমুখি লড়াইয়ে সবসময়ই জয় পেয়েছেন সেরেনা। এবারও তার ব্যতিক্রম হবে না বলে মনে করছেন তার ভক্ত-অনুরাগীরা।

সেরেনা উইলিয়ামস ছাড়াও রজার্স কাপের কোয়ার্টার ফাইনালে উঠেছেন পোল্যান্ডের এ্যাগ্নিয়েস্কা রাদওয়ানস্কা এবং রোমানিয়ার সিমোনা হ্যালেপ। রাদওয়ানস্কা হারিয়েছেন ফ্রান্সের এ্যালিজ কোর্নেটকে আর জার্মানির এ্যাঞ্জেলিক কারবারকে পরাজিত করে চতুর্থ পর্বে উঠেন সিমোনা হ্যালেপ।

কোহলিতে ম্যারাডোনার ছায়া!

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ কোথায় ফুটবল, আর কোথায় ক্রিকেট। একেবারেই ভিন্ন খেলা। আবার কোথায় আর্জেন্টিনার কিংবদন্তি ফুটবলার দিয়াগো ম্যারাডোনা, আর কোথায় ভারতের বর্তমান সময়ের সেরা তারকা ক্রিকেটার বিরাট কোহলি। কোনটার সঙ্গেই কোনটা মিলে না। কারও সঙ্গেই কারও তুলনা হয় না। তবে ভারতের সাবেক অধিনায়ক কলকাতার মহারাজা সৌরভ গাঙ্গুলী এই দুইজনের মধ্যে একই মিল দেখতে পেলেন। কোহলির মধ্যে ম্যারাডোনার ছায়া দেখতে পেলেন। আর তা একটি দিকেই সবচেয়ে বেশি ফুটিয়ে তুললেন গাঙ্গুলী। সেটি কী? দুইজনই যে অন্তর দিয়ে খেলেন।

টেস্ট অধিনায়ক বিরাট কোহলির আবেগ ও আগ্রাসনের সঙ্গে আর্জেন্টিনার কিংবদন্তি ফুটবলার দিয়াগো ম্যারাডোনার আবেগ ও আগ্রাসনের তুলনা করেছেন ভারতের সাবেক অধিনায়ক সৌরভ গাঙ্গুলী। কোহলির এই আগ্রাসনে দোষের কিছু দেখছেন না ভারতের সর্বকালের অন্যতম সেরা এই অধিনায়ক। সৌরভ বলেন, ‘ম্যারাডোনা আমার ফেবারিট ক্রীড়াবিদদের একজন। আপনি যখন তার খেলা দেখবেন তখন লক্ষ্য করলে দেখবেন তিনি হৃদয় দিয়ে ফুটবল খেলছেন। আপনি এখন বিরাট কোহলির মধ্যেও ঠিক তেমনটি দেখতে পাবেন। খেলার প্রতি তার (কোহলি) যেই দৃষ্টিভঙ্গি সেটাকে আমি ভালবাসি। আমি ম্যারাডোনার মতো তারও একজন বড় ভক্ত। ম্যারাডোনা সব সময় আবেগ দিয়ে খেলত এবং তার মধ্যে আমরা আগ্রাসনও দেখতে পাই। এখন কোহলির মধ্যেও সেসব লক্ষ্য করা যাচ্ছে।’

মহেন্দ্র সিং ধোনির কাছ থেকে অধিনায়কত্ব পাওয়ার পর মাত্র সাত টেস্টে পাঁচ সেঞ্চুরি করেছেন বিরাট কোহলি। বৃহস্পতিবার গল টেস্টে সেঞ্চুরি করার আগে অস্ট্রেলিয়া সফরে অধিনায়ক হিসেবে চার সেঞ্চুরি করেন ভারতের এই রানমেশিন। এ্যাডিলেড টেস্টে জোড়া সেঞ্চুরি করার পর মেলবোর্ন ও সিডনি টেস্টেও সেঞ্চুরি করেন কোহলি। বিরাট কোহলির রান ক্ষুধায় মুগ্ধ সৌরভ গাঙ্গুলী। বলেছেন, ‘সে সব সময় রানের জন্য ক্ষুধার্ত। সব সময় জিততে চায় এবং ম্যাচ শেষ করে আসতে চায়। অধিনায়ক হিসেবে চার টেস্টে সে চার সেঞ্চুরি করেছে। আমার কাছে এটি অবিশ্বাস্য।’

ভারতের জার্সি গায়ে ৪২.১৭ গড়ে ১১৩ টেস্টে ৭২১২ রান করেন সৌরভ গাঙ্গুলী। টেস্টে ১৬ সেঞ্চুরি ও ৩৫ হাফসেঞ্চুরি করেন সাবেক এই অধিনায়ক। এছাড়া ৩১৩ ওয়ানডেতে ৪১.০২ গড়ে ১১ হাজার ৩৬৩ রান করেন প্রিন্স অব কলকাতা। ওয়ানডেতে ২২ সেঞ্চুরি এবং ৭২ হাফসেঞ্চুরি করেন ভারতের সর্বকালের সেরা এই টেস্ট অধিনায়ক। সাবেক এ ভারতীয় অধিনায়কের মতে, সাফল্যের জন্য ম্যারাডোনা যেমন মুখিয়ে থাকতেন, আক্রমণাত্মক মানসিকতায় ঝাঁপিয়ে পড়তেন প্রতিপক্ষের ওপর, কোহলিও তা-ই। নিজের সময়ে খেলার মাঠে আক্রমণাত্মক মনোভাব ও দুরন্ত পারফর্মের জন্যই বিশ্ব ফুটবলে সবার কাছে আলাদা কদর পেয়ে থাকেন আর্জেন্টিনার ৮৬’র বিশ্বকাপ জয়ী নায়ক দিয়াগো ম্যারাডোনা। কোহলিও সেই কদর ধীরে ধীরে পেতে চলেছেন। তাই তো গাঙ্গুলী বলেছেন, ‘মাঠ বা টিভি যেখান থেকেই কোহলির খেলা দেখি না কেন, তা খুবই উপভোগ করি। কারণ জয়ের জন্য ও সব সময়ই ক্ষুধার্ত থাকে। এ জন্য ওর আগ্রাসী মনোভাব আমার খুব ভাল লাগে।’ আর তাই কোহলিতে ম্যারাডোনার ছায়া খুঁজে পেয়েছেন গাঙ্গুলী।

আমরা সংগ্রামের মধ্যে পড়েছি ॥

মুরালিধরন

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ ভারতের বিপক্ষে চলমান তিন টেস্টের সিরিজের দ্বিতীয়টি শেষ হওয়ার পরই সমাপ্তি ঘটবে কুমার সাঙ্গাকারার ক্যারিয়ারে। আগেই আরেক কিংবদন্তি মাহেলা জয়াবর্ধনে সব ধরনের আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন। সাঙ্গাকারা-জয়াবর্ধনে বিহীন এক নতুন যুগ শুরু হবে এরপর থেকেই। দলের অন্যতম দুই নির্ভরযোগ্য ক্রিকেটারকে ছাড়াই এবার নিজেদের ক্রিকেট পরাশক্তি হিসেবে টিকে থাকার চ্যালেঞ্জ শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট দলের জন্য। তবে সেটা খুব সহজ হবে না। কিংবদন্তি অফস্পিনার মুত্তিয়া মুরালিধরন দাবি করলেন সাঙ্গা-মাহেলা যুগ শেষে নিজেদের সেরা অবস্থানে ফিরে আসতে অন্তত দুই বছর সময় লাগবে লঙ্কান ক্রিকেট দলের।

এবার ভারত-শ্রীলঙ্কা সিরিজে উভয়দলই একটি পরিবর্তনের মধ্যে আছে এবং দুই যুগের মধ্যবর্তী সময়ে। ভারত সবেমাত্র মহেন্দ্র সিং ধোনির বিদায়ের মাধ্যমে গ্রেটদের ব্যতীত নতুন করে সংঘটিত হওয়ার পর্যায়ে। আর লঙ্কানরা খেলছে সাঙ্গাকারার বিদায়ী সিরিজ। কিন্তু ভারতীয়রা এগিয়ে আছে বলেই দাবি করলেন মুরালিধরন। তিনি বলেন, ‘শ্রীলঙ্কা এখন একটি পরবির্তনের পর্যায়ে আছে। আমরা নতুন কিছু মুখ পেয়েছি যারা ভাল। কিন্তু নতুন করে সংঘটিত হতে আরও অন্তত এক/দুই বছর সময় লাগবে। সুতরাং এই মুহূর্তে ভারতীয় দল কিছুটা সুবিধাজনক অবস্থানে আছে। কয়েকজন শ্রীলঙ্কান গ্রেট সম্প্রতি অবসরে গেছেন। এর ফলে আমরা একটা সংগ্রামের মধ্যে পড়তে যাচ্ছি।’ ক্রিকেট এ্যাসোসিয়েশন অব বেঙ্গলের (সিএবি) ভিশন ২০২০ এর একটি প্রোগ্রামে পঙ্কজ গুপ্ত ইনডোর ফ্যাসিলিটিতে বক্তব্য রাখার সময় এসব কথা বলেন মুরালিধরন।

সাবেক সতীর্থ সাঙ্গাকারার ভূয়সী প্রশংসা করেন মুরালিধরন। ভারতের বিপক্ষে দ্বিতীয় টেস্ট খেলেই অবসরে যাবেন এ নির্ভরযোগ্য ব্যাটসম্যান। আর বিশ্বকাপ শেষেই ওয়ানডে থেকে সরে দাঁড়িয়েছিলেন তিনি। এ বিষয়ে মুরালিধরন বলেন, ‘তিনি শ্রীলঙ্কার জন্য খুবই কার্যকরী একজন খেলোয়াড় ছিলেন এবং দলের হয়ে অনেক ম্যাচ জিতেছেন। দুঃখজনক বিষয় যে, তিনি অবসর নিচ্ছেন। কিন্তু এমন দিন সব খেলোয়াড়ের জীবনেই আসে। আমি মনে করি তিনি সঠিক সময়ই বেছে নিয়েছেন।’ সাঙ্গাকারা দলের জন্য অনেক গুরুত্বপূর্ণ ইনিংস উপহার দিয়েছেন প্রয়োজনীয় ও বিপদের মুহূর্তে। কিন্তু ২০০২ সালে এশিয়ান টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে লাহোরে তার খেলা ২৩০ রানের ইনিংসটাকেই নিজের দেখা সেরা মনে করেন মুরালিধরন।

আবারও ব্রাজিল দলে কাকা

বাদ সাবেক অধিনায়ক থিয়াগো সিলভা

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ দীর্ঘদিন ব্যর্থ থাকার পর আবারও ব্রাজিল দলে ফিরেছেন তারকা ফুটবলার কাকা। আগামী মাসে যুক্তরাষ্ট্রে দুটি প্রীতি ম্যাচের জন্য বৃহস্পতিবার দল ঘোষণা করেন সেলেসাও কোচ কার্লোস দুঙ্গা। এ্যাটাকিং মিডফিল্ডার কাকাকে রেখে ২৪ সদস্যের দল ঘোষণা করেছেন তিনি।

আগামী ৫ সেপ্টেম্বর কোস্টারিকা ও এর তিনদিন পর স্বাগতিক যুক্তরাষ্ট্রের মুখোমুখি হবে রেকর্ড সর্বোচ্চ পাঁচবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন ব্রাজিল। ২০১৪ সালে ঘরের মাঠে বিশ্বকাপের দলে ছিলেন না রিয়াল মাদ্রিদ ও এসি মিলানের সাবেক খেলোয়াড় কাকা। বিশ্বকাপের পর জাতীয় দলের দায়িত্ব নেয়া কোচ দুঙ্গা গত অক্টোবরে আর্জেন্টিনা ও জাপানের বিপক্ষে দুটি প্রীতি ম্যাচের দলে রেখেছিলেন ২০০৭ সালের ফিফা বর্ষসেরা এই তারকাকে। ওই দুই ম্যাচে আশানুরূপ খেলতে না পারায় আবারও বাদ পড়েন। গত জুন-জুলাইয়ে কোপা আমেরিকা দলেও ছিলেন না বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্রের অরল্যান্ডো সিটিতে খেলা কাকা। চিলিতে দক্ষিণ আমেরিকার শ্রেষ্ঠত্বের আসর কোপা আমেরিকার কোয়ার্টার ফাইনাল থেকে ছিটকে পড়ে ব্রাজিল। কোপা আমেরিকায় ব্যর্থ দলকে ঢেলে সাজানোর লক্ষ্যে এ্যাটাকিং মিডফিল্ডার কাকার ওপর ভরসা রাখছেন দুঙ্গা। জাতীয় দলে ফেরার পর উচ্ছ্বসিত কাকা বলেন, আমার জন্য এটা একটা বড় দিন। প্রায় এক বছর পর জাতীয় দলে ফিরেছি, এজন্য আমি খুব খুশি। ২০১৮ সালের রাশিয়া বিশ্বকাপের বাছাইপর্বে ভালো করার প্রত্যাশা জানিয়ে কাকা বলেন, আমি মনে করি এই পর্বে আমি জাতীয় দলকে সাহায্য করতে পারব। আমরা আগামী বিশ্বকাপের বাছাইপর্ব প্রক্রিয়া শুরু করতে যাচ্ছি। সুতরাং এটা আমার এবং সবার জন্য গুরুত্বপূর্ণ এক অধ্যায়। দ্বিতীয় মেয়াদে ব্রাজিলের কোচের দায়িত্ব নেয়ার পর থেকেই ৩৩ বছর বয়সী কাকার ওপর নজর রাখছিলেন দুঙ্গা। কোপা আমেরিকার প্রাথমিক দলেও ডেকেছিলেন ২০০২ বিশ্বকাপজয়ী দলের সদস্যকে। কিন্তু চূড়ান্ত দলে সুযোগ পাননি। তবে এবার আর কাকাকে বাইরে রাখতে পারেননি ১৯৯৪ সালের বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক। দল ঘোষণার পর দুঙ্গা বলেন, কাকা আমাদের দলের গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড়। অভিজ্ঞতা আর পরিপক্বতার কারণে আমরা তাকে দলে নিয়েছি। মাঠে ও মাঠের বাইরে তাকে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে হবে। কাকা ফিরলেও ব্রাজিল দল থেকে বাদ পড়েছেন তারকা ডিফেন্ডার ও সাবেক অধিনায়ক থিয়াগো সিলভা। তার জায়গায় দলে এসেছেন আর্সেনালের ডিফেন্ডার গ্যাব্রিয়েল পউলিস্টা। দলে নবাগত মুখ সান্টোসের প্লেমেকার লুকাস লিমা। মাম্পসে আক্রান্ত ও কোপা আমেরিকায় অখেলোয়াড়সুলভ আচরণের জন্য চার ম্যাচ নিষিদ্ধ হওয়া নেইমারকেও দলে রেখেছেন দুঙ্গা। কোপা আমেরিকায় দুই ম্যাচ নিষেধাজ্ঞার শাস্তি ভোগ করা বার্সিলোনা তারকা আগামী অক্টোবরে বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে ব্রাজিলের প্রথম দুই ম্যাচ খেলতে পারবেন না। এই দুই ম্যাচে পাঁচবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নদের প্রতিপক্ষ চিলি ও ভেনিজুয়েলা। ব্রাজিল দল ॥

গোলরক্ষক ॥ জেফারসন, মার্সেলো গ্রোহে, এ্যালিসন, ডিফেন্ডার ॥ ডেভিড লুইজ, মারকুইনিয়োস, মিরান্ডা, গ্যাব্রিয়েল পাউলিস্টা, দানি আলভেস, ফিলিপে লুইস, ডানিলো, ডগলাস সান্টোস, মিডফিল্ডার ॥ লুইস গুস্তাভো, ফার্নান্ডিনহো, এ্যালিয়াস, রামিরেস, অস্কার, উইলিয়ান, লুকাস লিমা, কাকা, ফিলিপ কাউটিনহো, ফরোয়ার্ড ॥ রবার্তো ফিরমিনো, নেইমার, লুকাস মউরা, হাল্ক।

অবসরে আইরিশ তারকা কুসেক

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ এ্যালেক্স কুসেক। ছোট দলের বড় তারকা তিনি। এবারের ওয়ানডে বিশ্বকাপ খেলেই ‘বিদায়’ বলতে আয়ারল্যান্ড অলরাউন্ডার। কিন্তু বাছাই পর্বের বাধা পেরিয়ে দলকে ২০১৬ টি২০ বিশ্বকাপের পৌঁছে দেয়ার লক্ষ্যে কিছুটা বিলম্ব। আইরিশদের সে লক্ষ্য পূরণ হওয়ায় অবসর নিয়ে নিলেন কুসেক। এবার তাই কেবল আন্তর্জাতিকই নয়, ৩৪ বছর বয়সী তারকা সব ধরনের ক্রিকেটকে বিদায় জানালেন তিনি। অবসর প্রসঙ্গে বলেন, ‘গত এক বছর ধরে ভাবছিলাম। বিশেষ করে ইনজুরির জন্য। সম্প্রতি শরীর ও ফিটনেস কোনটাই ভাল যাচ্ছিল না। তাই অবসরের সিদ্ধান্তটা নিয়ে নিলাম। ঘরে তিন সন্তান ও স্ত্রী আছে। তাদের বেশি করে সময় দিতে পারব।’ অলরাউন্ডার হলেও বোলিংটাই বেশি ভাল করেন কুসেক। ২০০৭ সালে ওয়ানডে দিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে পা রাখা কুসেক ডানহাতি মিডিয়াম পেসার হিসেবে ৫৯ ওয়ানডেতে ৪.৬৩ ইকোনমি রেটে নিছেন ৬৩ উইকেট। আর টি২০তে তার দখলে রয়েছে ৩৭ ম্যাচে ৩৫ উইকেট। অন্যদিকে, ব্যাট হাতে দুটি ফিফটির সাহায্যে তার ওয়ানডে রান সংখ্যা ৭৪৫। টি২০তে করেছেন ১৫.২৬ গড়ে ২২৯ রান। হাফসেঞ্চুরি ১টি। অস্ট্রেলিয়ার ব্রিসবেনে জন্ম হলেও কুসেকের বেড়ে ওঠা আয়ারল্যান্ডে।

সেমিতে বাংলাদেশের

মুখোমুখি আফগানিস্তান

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ সিলেটে চলমান সাফ অনুর্ধ ১৬ ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপের গ্রুপ পর্বের সব খেলা শুক্রবার শেষ হয়েছে। সেই সঙ্গে চূড়ান্ত হয়ে গেছে সেমিফাইনালের লাইনআপ। সিলেট জেলা স্টেডিয়ামে আগামী রবিবার বেলা ৩টায় প্রথম সেমিতে ‘এ’ গ্রুপের চ্যাম্পিয়ন স্বাগতিক বাংলাদেশ মোকাবেলা করবে ‘বি’ গ্রুপের রানার্সআপ আফগানিস্তানকে। একই ভেন্যুতে ও একইদিন সন্ধ্যা ৬টায় দ্বিতীয় সেমিতে মুখোমুখি হবে ‘বি’ গ্রুপের চ্যাম্পিয়ন নেপাল এবং ‘এ’ গ্রুপের রানার্সআপ এবং গত আসরের শিরোপাধারী ভারত।

শুক্রবার ‘বি’ গ্রুপের শেষ ম্যাচে নেপাল ১-০ গোলে হারিয়ে গ্রুপসেরা হয়। ম্যাচের ৪৭ মিনিটে গোল করেন নেপালের কে শিতিজ রাজ।

ব্রাদার্সকে হারিয়ে চট্টগ্রাম

আবাহনীর অঘটন

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ মান্যবর বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগ ফুটবলে নিজেদের মাঠে শক্তিশালী ব্রাদার্স ইউনিয়ন লিমিটেডকে ১-০ গোলে হারিয়ে অঘটন ঘটিয়েছে চট্টগ্রাম আবাহনী লিমিটেড। শুক্রবার চট্টগ্রামের এমএ আজিজ স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত এই ম্যাচে। ম্যাচের ২৬ মিনিটে বিজয়ী দলের জয়সূচক গোলটি করেন চৌমরিন রাখাইন। লীগের প্রথম পর্বে উভয়দলের মোকাবেলায় ২-০ গোলে জিতেছিল ব্রাদার্স। এই জয়ে ১৬ পয়েন্ট নিয়ে রহমতগঞ্জকে টপকে টেবিলের নবম অবস্থানে থেকে নিজেদের সব খেলা শেষ করেছে চট্টগ্রাম আবাহনী। পক্ষান্তরে ২০ ম্যাচে ব্রাদার্সের পয়েন্ট ৩৫। অবস্থান চতুর্থ। আজ প্রিমিয়ার লীগে কোন ম্যাচ নেই। রবিবার বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় মুখোমুখি হবে দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ঢাকা আবাহনী-মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব। একই দিনে একই ভেন্যুতে দিনের প্রথম ম্যাচে বিকেল সোয়া ৪টায় শেখ রাসেলের মুখোমুখি হবে রহমতগঞ্জ।

এসেন্ট কর্পোরেট ফাইভ-

এ-সাইড সকার কাপ

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ শুক্রবার থেকে চল্লিশেরও বেশি দল নিয়ে উত্তরার এসটিএম হলো স্কলাসটিকা স্কুল প্রাঙ্গণে শুরু হয়েছে ‘দশম এ্যাসেন্ট কর্পোরেট ফাইভ-এ-সাইড সকার কাপ। শেষ হবে ২২ আগস্ট। টুর্নামেন্টের সহযোগী প্রতিষ্ঠানসমূহ হচ্ছেÑ টাইটেল স্পন্সর : এসেন্ট গ্রুপ, কো-স্পন্সর : সজীব গ্রুপ, এ্যাসোসিয়েট স্পন্সর : হুন্দাই মোটরস, সিকিউরেক্স, ইউরোপকার; বেভারেজ পার্টনার : পেপসি, টেলিভিশন পার্টনার : গাজী টিভি, নিউজপেপার পার্টনার : ঢাকা ট্রিবিউন, ওয়াই-ফাই পার্টনার : কিউবি, আউটডোর পার্টনার : আর কে মাল্টিমিডিয়া, পি আর পার্টনার : কনসিটো পি আর, মেডিক্যাল পার্টনার : মনোয়ারা হসপিটাল, লাইফস্টাইল পার্টনার : কাজী ফার্মস কিচেন এবং রেডিও পার্টনার : এবিসি রেডিও।

টানা চার শিরোপা জেতা কঠিন ॥ জোয়াকিম লো

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ বুন্দেসলিগায় এককভাবেই রাজত্ব করছে বেয়ার্ন মিউনিখ। গত তিন মৌসুমে টানা হ্যাটট্রিক শিরোপা জয়ের মাইলফলক স্পর্শ করেছে তারা। এবার অনন্য এক রেকর্ডের সামনে দাঁড়িয়ে আছে পেপ গার্ডিওলার দল। তা হলো টানা চারবার লীগ শিরোপা জয়ের কীর্তি। বুন্দেসলিগার সুদীর্ঘ ইতিহাসে এখন পর্যন্ত যা করতে পারেনি কোন দলই। এবার তাই করতে যাচ্ছে বেয়ার্ন। অন্তত মৌসুম শুরুর আগে জার্মান জায়ান্টের দল ঘোচানো সে কথাই বলছে। যদিওবা বিষয়টিকে সহজ মানছেন না ক্লাবটির কোচ পেপ গার্ডিওলা। তার মতে, ‘বুন্দেসলিগার ইতিহাসে এখন পর্যন্ত কোন দলই চারবার চ্যাম্পিয়ন হতে পারেনি। তাই এটা আমাদের জন্য হবে বড় একটি পদক্ষেপ। আমাদের সামনে এবার শক্তিশালী প্রতিদ্বন্দ্বীও রয়েছে। বরুসিয়া ডর্টমুন্ড, বেয়ার লেভারকুসেনই নয় বরং ওল্ফসবার্গ এবং বরুসিয়া মনচেনগ্লাডবাখের মতো দলগুলোও এবার অনেক বেশি শক্তিশালী।’

বেয়ার্ন মিউনিখের চতুর্থ শিরোপা জেতাটা কঠিন হবে বলে মন্তব্য করেছেন জার্মান জাতীয় দলের কোচ জোয়াকিম লো। এ বিষয়ে দেশটির বিশ্বকাপজয়ী এই কোচ বলেন, ‘আর্তুরো ভিদাল এবং ডগলাস কোস্তাকে নিয়ে এই মৌসুমে বেয়ার্ন মিউনিখ নিশ্চিত আরও বেশি শক্তিশালী দল। পেপ গার্দিওলার এই স্কোয়াড অপ্রতিরোধ্য সে বিষয়ে কোন সন্দেহ নেই। কিন্তু তার মানে এই নয় যে তারা ইতোমধ্যেই লীগ শিরোপা নিজেদের করে নিয়েছে।’ স্প্যানিশ জায়ান্ট বার্সিলোনার জার্সিতে অবিস্মরণীয় সব কীর্তি গড়েছেন গার্ডিওলা। কাতালান ক্লাবটিতে তার অসাধারণ সাফল্যই জায়গা করে দেয় বেয়ার্নে। তাই স্প্যানিশ এই অভিজ্ঞ কোচের বেয়ার্নকে টানা চারবার শিরোপা উপহার দেয়াটাকেও সময়ের বিষয় বলছেন অনেকে।

জার্মান বুন্দেসলিগার শিরোপা ধরে রাখা ছাড়াও উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লীগের শিরোপা জয়ের স্বপ্ন দেখছেন সাবেক বার্সিলোনার অভিজ্ঞ কোচ গার্ডিওলা। তবে সেক্ষেত্রে প্রথম লক্ষ্য তার সেমিফাইনাল। এ বিষয়ে তিনি বলেন, ‘এই স্কোয়াড নিয়ে আমরা উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লীগের সেমিফাইনাল খেলতে চাই। তারপর দেখব আমরা কি ঘটে।’ রবার্তো লেভানডোস্কি, আরিয়েন রোবেন এবং মারিও গোয়েটজের মতো তারকা খেলোয়াড়দের নিয়েই গড়া গার্ডিওলার দল। মৌসুম শুরুর আগে আর্তুরো ভিদাল এবং ডগলাস কোস্তাকে নতুন করে দলে নিয়ে আরও শক্তিশালী রূপে আর্বিভাব হয়েছে তারা। শুক্রবার থেকে শুরু হয়েছে বুন্দেসলিগার নতুন মৌসুম। প্রথম দিনেই মাঠে নামছে পেপ গার্ডিওলার বেয়ার্ন।