২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

সরকারী হাসপাতাল ও স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে বিনামূল্যে চিকিৎসা প্রদান

  • বঙ্গবন্ধুর ৪তম শাহাদাতবার্ষিকীতে কর্মসূচী

স্টাফ রিপোর্টার ॥ দেশের সকল সরকারী হাসপাতাল ও স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে শনিবার বিনামূল্যে চিকিৎসাসেবা প্রদান করা হয়। এদিন সকাল ৮টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত এ কর্মসূচী পালন করা হয়। জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর ৪০তম শাহাদতবার্ষিকী উপলক্ষে স্বাস্থ্যমন্ত্রীর মোহাম্মদ নাসিমের নির্দেশে এ কর্মসূচী বাস্তবায়ন করে স্বাস্থ্য অধিদফতর। সরকারী ছুটির দিনেও চিকিৎসাসেবা পেয়ে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন রোগী ও তাদের অভিভাবকরা। এদিন শুধু বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়েই বিনামূল্যে প্রায় সাড়ে ছয় হাজার রোগীকে চিকিৎসা পরামর্শ সেবা দেয়া হয়। সারাদেশে চিকিৎসাসেবা গ্রহণ করেছেন হাজার হাজার রোগী। স্বাস্থ্য অধিদফতরের পরিচালক (হাসপাতাল ও ক্লিনিক) অধ্যাপক মোঃ ডাঃ সামিউল ইসলাম সাদি শনিবার সন্ধ্যায় জনকণ্ঠকে জানান, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সব সময় দেশের সাধারণ মানুষের চিকিৎসা ও স্বাস্থ্যসেবার বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে গেছেন। সেই ধারাবাহিকতা বজায় রেখেছেন তাঁর সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আর তা বাস্তবায়নে বলিষ্ঠ ভূমিকা ও নেতৃত্ব দিয়ে যাচ্ছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম। শনিবার ছুটির দিনেও দেশের হাজার হাজার মানুষ বিনামূল্যে চিকিৎসাসেবা পেয়েছে। এদিন কোন ফি নেয়া হয়নি। দেশের কোথাও কোন বিশৃঙ্খলা ঘটেনি। সব কিছু শান্তিপূর্ণভাবে সম্পন্ন হয়েছে। জাতির জনকের আদর্শে উজ্জীবিত হয়ে দেশের মানুষকে বিনামূল্যে চিকিৎসাসেবা দিতে পেরে মনে খুব শান্তি ও তৃপ্তি অনুভব করছি বলে জানান অধ্যাপক ডাঃ মোঃ সামিউল ইসলাম সাদি।

বঙ্গবন্ধু মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রায় সাড়ে ৬ হাজার রোগীকে সেবা প্রদান ॥ বিশ্ববিদ্যালয়ের ৯৯টি কক্ষে ২১৫ জন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক এ চিকিৎসাসেবা প্রদান করেন। এর মধ্যে মেডিসিন অনুষদে ৩৭৮৫, সার্জারি অনুষদে ২৩৮৩ এবং দন্ত অনুষদে ২১৯ জন রোগীকে সেবা প্রদান করা হয়। বঙ্গবন্ধুর ৪০তম শাহাদাতবার্ষিকী উপলক্ষে বিশ্ববিদ্যালয়ের ৪০ দিনব্যাপী কর্মসূচীর অংশ হিসেবে শনিবার এ উদ্যোগ নেয়া হয়। এছাড়া শুক্রবার টুঙ্গিপাড়ায় ৯৫২ রোগীকে বিনামূল্যে চিকিৎসাসেবা প্রদান ও ওষুধ বিতরণ করে বঙ্গবন্ধু মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়।

শনিবার যে সকল বিভাগে এ চিকিৎসাসেবা প্রদান করা হয় সেগুলো হলোÑ ইন্টারনাল মেডিসিন, কার্ডিওলজি, ফিজিক্যাল মেডিসিন, বক্ষব্যাধি উইং, শিশু, শিশু কিডনি, শিশু গ্যাস্ট্রো, শিশু হেমাটো-অনকোলজি, নিউরোলজি, কিডনি, হেমাটোলজি, লিভার, গ্যাস্ট্রো এন্টারোলজি, রিউমাটোলজি, নবজাতক, চর্ম ও যৌনব্যাধি, ক্যান্সার, এন্ডোক্রাইনোলজি (ডায়াবেটিস ও হরমোন), মনোরোগ বিদ্যা, সার্জারি, নাক, কান ও গলা, গাইনি, চক্ষু, অর্থোপেডিক সার্জারি, ইউরোলজি, নিউরো সার্জারি, কার্ডিয়াক সার্জারি, ভাসকুলার সার্জারি, শিশু সার্জারি এবং পেইন এন্ড পেলিয়েটিভ কেয়ার মেডিসিন। “রোগীর সেবায় হই আরও যতœবান” থিমকে সামনে রেখে ১৫তম দিনের মোমবাতি প্রজ্ব¡লন, রোগীকে বিনামূল্যে চিকিৎসাসেবা প্রদানসহ নানা কর্মসূচীর মধ্য দিয়ে জাতীয় শোক দিবস পালন করে বঙ্গবন্ধু মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়। পালিত কর্মসূচীসমূহের মধ্যে শনিবার সাড়ে ৭টায় অত্র বিশ্ববিদ্যালয়ের বি ব্লকের নিচতলায় বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে পুষ্পস্তবক অর্পণ, সকাল ৮টায় ধানম-ি ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ, সকাল ৯টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের বহির্বিভাগে বিনামূল্যে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসা পরামর্শ সেবার উদ্বোধন, সকাল ১০টায় স্বেচ্ছায় রক্তদান কর্মসূচীর উদ্বোধন, বাদ জোহর বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় মসজিদে দোয়া মাহফিল, বিকেল ৫টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের এ ব্লকের দ্বিতীয় তলায় অডিটরিয়ামে “কবিতা ও গানে বঙ্গবন্ধু”-এর উদ্বোধন, সন্ধ্যা ৬টায় বটতলা কেন্দ্রিক ও ৬টা ৩০ মিনিটে বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে মোমবাতি প্রজ্ব¡লন ইত্যাদি উল্লেখযোগ্য। শনিবার সকাল সাড়ে ৭টায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ডাঃ কামরুল হাসান খানের নেতৃত্বে বঙ্গবন্ধুর মুর‌্যালে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়। এছাড়া স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় শাখা, অফিসার্স এ্যাসোসিয়েশনের পক্ষ থেকেও বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে পুষ্পস্তবক অর্পণের মাধ্যমে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়। এরপর সকাল সাড়ে ৮টায় ধানম-ি ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়।

শনিবার সকাল ৯টায় বহির্বিভাগে বিনামূল্যে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসা পরামর্শ সেবা কর্মসূচীর এবং দশটায় দশটায় স্বেচ্ছায় রক্তদান কর্মসূচীর উদ্বোধন করেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ডা. কামরুল হাসান খান।

বিশ্ববিদ্যালয়ের এ ব্লকের দ্বিতীয় তলায় অডিটরিয়ামে “বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধ” শীর্ষক কবিতা ও সঙ্গীতানুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ডা. কামরুল হাসান খান। কবিতা পাঠ করেন কবি রফিক আজাদ, কবি আসাদ মান্নান, কবি দিলারা হাফিজ, কবি ডাঃ হারিসুল হক প্রমুখ।

ঢাকা শিশু হাসপাতালে বিনামূল্যে চিকিৎসাসেবা ॥ ঢাকা শিশু হাসপাতাল ১৫ আগস্ট জাতীয় শোক দিবসে হাসপাতালের পরিচালক অধ্যাপক ডাঃ মনজুর হোসেনের ব্যবস্থাপনায় বিনামূল্যে চিকিৎসাসেবা প্রদান করা হয়েছে। এদিন সকাল ৮টা হতে বেলা সাড়ে ১২টা পর্যন্ত হাসপাতালের বহির্বিভাগে চিকিৎসা সেবা কার্যক্রম পরিচালনা করেন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরা। কর্মসূচীতে উপ-পরিচালক(হাসপাতাল) ডাঃ এইচ এস কে আলম, কয়েকজন সহকারী অধ্যাপক, আবাসিক চিকিৎসক, আবাসিক সার্জন অংশ নেন।

আরও ৬দিন বিনামূল্যে চিকিৎসাসেবা কর্মসূচী পালন করবে সোহরাওয়ার্দী হাসপাতাল ॥ দেশের অন্যসব হাসপাতালের মতো রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালেও শনিবার প্রায় ৮ শতাধিক রোগীকে বিনামূল্যে চিকিৎসাসেবা প্রদান করা হয়। এদিন বহির্বিভাগে রোগীদের আগমন ছিল বেশ লক্ষণীয়। এ হাসপাতালে এই কর্মসূচী আরও ৬দিন চলবে বলে জানা গেছে। হাসপাতালের পরিচালক অধ্যাপক উত্তর কুমার বড়ুয়া জনকণ্ঠকে জানান, সকাল ৮টার আগেই দায়িত্বপ্রাপ্ত চিকিৎসক, নার্স ও কর্মচারীরা হাসপাতালে উপস্থিত হন।

নির্বাচিত সংবাদ
এই মাত্রা পাওয়া