২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

আজ মোহামেডান-আবাহনী মর্যাদার লড়াই

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ হাতে দুই ম্যাচ রেখেই গত ৩০ জুলাই মান্যবর বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগ ফুটবলের শিরোপা জিতে নিয়েছে শেখ জামাল ধানম-ি ক্লাব লিমিটেড। বিস্ময়কর ব্যাপারÑ তখনও লীগের বাকি আছে আরও ১৭ ম্যাচ! এতগুলো ম্যাচ শেষ হওয়ার আগেই যদি কোন দল চ্যাম্পিয়ন হয়ে যায়, তখন কি আর লীগের আকর্ষণ বলে অবশিষ্ট কিছু থাকে? সহজ উত্তরÑ না, থাকে না। আবার থাকেও। সেটা মাত্র একটি ম্যাচের জন্য। মোহামেডান বনাম আবাহনী ম্যাচের জন্য! হ্যাঁ, শিরোপা জেতার জন্য নয়, মর্যাদা রক্ষার দ্বৈরথে আজ বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় মুখোমুখি হবে বাংলাদেশের ফুটবল ইতিহাসের সবচেয়ে ঐতিহ্যবাহী, আলোচিত ও জনপ্রিয় দুই দল মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব লিমিটেড এবং ঢাকা আবাহনী লিমিটেড।

কেউ বলেন, ‘বাংলার এল ক্লাসিকো।’ কেউবা আবার ‘ঢাকা ডার্বি।’ দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীর এমন এক আকর্ষণীয় দ্বৈরথ গ্যালারিতে বসে উপভোগ করতে মুখিয়ে থাকেন অগণিত ফুটবলপ্রেমী। যদিও অন্য দলগুলোর ম্যাচে তাদের বেশিরভাগই গ্যালারিতে অনুপস্থিত থাকেন। কিন্তু মোহামেডান-আবাহনীর ম্যাচ হলে ঠিকই তারা গাঁটের পয়সা খরচ করে স্টেডিয়ামে এসে হাজির হন এবং প্রমাণ করেন ঢাকার ফুটবলে দর্শক আছে। এবারের প্রিমিয়ার ফুটবল লীগে এটা আবাহনী-মোহামেডানের শেষ সাক্ষাত হলেও চলতি মৌসুমে স্বাধীনতা কাপ এবং সুপার কাপে আবারও মুখোমুখি হতে পারে এই দুই দল।

আজকের ম্যাচ দিয়েই লীগ শেষ করবে ‘ব্ল্যাক এ্যান্ড হোয়াইট’খ্যাত মোহামেডান। ১৯ ম্যাচে ৩৭ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের তৃতীয় স্থানে রয়েছে তারা। তবে ‘দ্য স্কাই ব্লু ব্রিগেড’খ্যাত আবাহনী এক ম্যাচ কম খেলে ৩৪ পয়েন্ট নিয়ে রয়েছে পঞ্চম স্থানে। আজকের দুই প্রতিদ্বন্দ্বীর লড়াইটা শুধু মর্যাদারই নয়, একে অপরকে ছাড়িয়ে যাওয়ারও। আজকের ম্যাচে যদি আকাশী জার্সিধারীরা সাদা-কালোদের হারাতে পারে, তাহলে তাদের পয়েন্ট হবে ৩৭। অর্থাৎ মোহামেডানের সমান। হাতে এক ম্যাচ থাকায় তখন নিজেদের শেষ ম্যাচে ড্র করলেও পয়েন্টের হিসাবে মোহামেডানকে পেছনে ফেলতে পারবে আবাহনী। সুযোগ থাকবে লীগে তৃতীয় হওয়া। আর মোহামেডান যদি আজ জিততে পারে তবে তাদের একটা সুযোগ থাকবে লীগের রানার্সআপ হওয়ার। সে লড়াইয়ে আপাতত এগিয়ে শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্র লিমিটেড। কিন্তু সে হিসাবটা পরের। কেননা লীগ রানার্সআপ হওয়ার হিসাবটা চুকে যেতে পারে আজকের প্রথম ম্যাচটাতেই, যেখানে রহমতগঞ্জের সঙ্গে নিজেদের শেষ ম্যাচটা খেলবে শেখ রাসেল। বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে আজ বিকেল সোয়া চারটায় মুখোমুখি হবে এই দুই দল। ১৯ ম্যাচে রাসেলের সংগ্রহ ৩৯ পয়েন্ট। তারা রয়েছে টেবিলের দ্বিতীয় স্থানে। তার মানে এ ম্যাচে তিন পয়েন্ট পেলেই লীগের রানার্সআপ হয়ে যাবে ‘বেঙ্গল ব্লুজ’রা। আর যদি তারা ড্র করে তবে লীগ রানার্সআপ হওয়ার লড়াইটা করতে পারবে আবাহনী-মোহামেডান। মোহামেডানের কোচ কাজী জসিমউদ্দিন জোসি বলেন, ‘আবাহনী অবশ্যই ভাল দল। তবে আমরাও পিছিয়ে নেই। এসব ম্যাচে ফিফটি ফিফটি চান্স থাকে দুই দলেরই। যারা সুযোগ আগে কাজে লাগাতে পারবে, তাদের এ্যাডভান্টেজ থাকবে। দলের সবাই মানসিকভাবে আবাহনীকে মোকাবেলা করতে প্রস্তুত আছে। ছেলেরা জয় পেতে আত্মবিশ্বাসী। আশা করি, দর্শকদের সমর্থন পাব।’

আবাহনীর ম্যানেজার সত্যজিৎ দাস রূপু জয় চান এই ম্যাচে, ‘এটা মর্যাদার লড়াই। ড্র বা হার নয়, আমরা মোহামেডানের বিপক্ষে যে কোন মূল্যে জয় চাই। জয়ের ব্যাপারে আমাদের আত্মবিশ্বাসের কোন কমতি নেই। তবে যারা স্নায়ুচাপ সামলে খেলতে পারবে, তারাই জিতবে। আশা করি, ম্যাচটা অনেক উপভোগ্য হবে।’ এবারের লীগে প্রথম সাক্ষাতে মোহামেডানের কাছে ১-০ গোলে হেরেছিল আবাহনী। ম্যাচের শেষ মিনিটে গোলটি করেছিলেন মোহাম্মদ ইব্রাহিম। আবাহনী চাইবে আজ জিতে সেই ম্যাচের প্রতিশোধ নিতে। পারবে কি তারা?