২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ঝালকাঠির জুঁই বঙ্গবন্ধুর উপর বক্তব্য দিয়ে বিস্ময় সৃষ্টি করেছেন

ঝালকাঠির জুঁই বঙ্গবন্ধুর উপর বক্তব্য দিয়ে বিস্ময় সৃষ্টি করেছেন

নিজস্ব সংবাদদাতা, ঝালকাঠি॥ ঝালকাঠির শাহী মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৫ম শ্রেনীর ছাত্রী তাহুরা সুলতানা জুঁই এক প্রতিভাবান শিশু। ঝালকাঠি জেলা শিল্পকলা একাডেমী মিলনায়তনে বঙ্গবন্ধুর শাহাদাত বার্ষিকীর জাতীয় শোক দিবসে মিলনায়তেন পরিপূর্ণ ৫ শতাধিক শ্রোতাদেরকে অবাক ও মুগ্ধ করে বঙ্গবন্ধুর জীবনের উপর বক্তব্য দিয়েছেন। তার বক্তব্য শুরু করার পর হলের মধ্যে পিন-পতনের শব্দ ছিল না। সকলে বিস্ময়ে এতটুকু শিশু কি করে এই ধরণের প্রানবন্ত বক্তব্য দিতে পারে তা বোধগম্য ছিল না। এই অনুষ্ঠানে ১০ম শ্রেণীর মাদ্রাসা ছাত্র মো: আল সাহাদি, ৯ম শ্রেণীর ছাত্র সানজানা স্বপ্লীল ও ১০ম শ্রেনীর ছাত্র দীপ্ত পোদ্দার বক্তব্য দেন। এদের বক্তব্য তথ্য নির্ভর হলেও তা ছিল লিখিত কিন্তু জুঁই প্রায় ১৫ মিনিট বাচন ভঙ্গি ও অভিব্যাক্তি প্রকাশ করে কোন নোট ছাড়াই বক্তব্য দেন। অনুষ্ঠানে উপস্থিত জেলা প্রশাসক রবীন্দ্রশ্রী বড়ুয়া ও পুলিশ সুপার সুভাষ চন্দ্র সাহা সহ বিশিষ্ট অতিথিরা শিশু জুই সহ অন্য শিশুদের নিয়ে মঞ্চে অতিথির আসনে বসান। জেলা প্রশাসক রবীন্দ্রশ্রী বড়ুয়া জুয়ের বক্তব্যে অভিভুত হন এবং উপস্থিত শ্রেতাদের উদ্দেশ্যে তার বক্তব্যে তাদের সন্তানদেরকে পরিচর্চা করার অনুরোধ করেন। শিল্পকলা একাডেমী মিলনায়তনে এই জাতীয় শোক দিবসের অনুষ্ঠানে জেলার সরকারী শীর্ষ কর্মকর্তা, বিভিন্ন বিভাগের সরকারী কর্মকর্তা, শিক্ষক, সাংবাদিক রাজনৈতিক ব্যাক্তিবর্গ সহ বিদ্যালয়ের ছাত্র ছাত্রী ও তাদের কিছু অভিভাবক উপস্থিত ছিলেন।

তাহুরা সুলতানা জুঁই এর পিতা মো জসীমউদ্দিন একজন সরকারী কর্মচারী এবং তার মা শামীমা সুলতানা গৃহিনী। আরও জানাগেছে ২১৪ সালে শিশু একাডেমী আয়োজিত কবিতা আবৃত্তি প্রতিযোগিতায় জাতীয় পর্যায় প্রথমস্থান অধিকার করে স্বর্ণ পদক পেয়েছে এবং সে এটিএন বাংলার শিশুদের নিয়ে ছন্দে আনন্দে শিশুদের নিয়ে নাচের অনুষ্ঠানের নিয়োমিত শিল্পি।