২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

বার্সিলোনার অসাধ্য সাধন করার মিশন কাল

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ কোচ লুইস এনরিকে, নিয়মিত অধিনায়ক আন্দ্রেস ইনিয়েস্তাসহ দলের সবাই যেন একাট্টা। লক্ষ্য একটাই- ঘুরে দাঁড়িয়ে ঐতিহাসিক শিরোপা জয়। স্প্যানিশ সুপার কাপের প্রথম লেগে শুক্রবার অ্যাথলেটিক বিলবাওয়ের মাঠে ৪-০ গোলে হেরে বিধ্বস্ত হয় বার্সিলোনা।

কাল রাতে দ্বিতীয় লেগের ম্যাচে শিরোপানির্ধারণ হবে। বার্সার মাঠ ন্যূক্যাম্পে অনুষ্ঠিত হবে এই দ্বৈরথ। এ কারণেই স্বপ্ন বুনছে ক্যাটালানরা। দলের সব ফুটবলারের মধ্যেই জেদ কাজ করছে। কিন্তু কাজটা যে সহজ হবেনা সেটাও তাদের জানা। বিলবাও যে ৩১ বছর পর আরাধ্য শিরোপার কাছাকাছি এসে পৌঁছেছে। ফিরতি লেগে তিন গোলে হারলেও চ্যাম্পিয়ন হবে তারা। বার্সাকে সোজাসুজি চ্যাম্পিয়ন হতে হলে জিততে হবে কমপক্ষে ৫-০ গোলে। কিন্তু কোনভাবে যদি এক বা একাধিক গোল হজম করে তাহলে সমীকরণটা আরও কঠিন হয়ে যাবে। তাই শিরোপা জয়ের দারুণ সুযোগ হাতছাড়া করতে নারাজ আদুরিজ, সান জোশেরা।

গত মৌসুমে ঐতিহাসিক ট্রেবল জয় করা বার্সিলোনা চলতি বছরে চতুর্থ শিরোপা জয় করেছে গত সপ্তাহে। সেভিয়াকে হারিয়ে ইনিয়েস্তা, মেসিরা শোকেসে ভরেন উয়েফা সুপার কাপ। যে কারণে দলটির সামনে দ্বিতীয়বারের মতো এক বছরে ছয় শিরোপা জয়ের সুবর্ণ সুযোগ। কিন্তু স্প্যানিশ কাপের প্রথম লেগে এক হালি গোল হজম করে সেই সুযোগ হাতছাড়া হওয়ার যোগাড় ক্যাটালানদের। সম্ভাবনা জিইয়ে রাখতে হলে অসাধ্যই সাধন করতে হবে ইউরোপীয়ান চ্যাম্পিয়নদের। ১৪ বছর পর টানা দুই ম্যাচে ৮ গোল হজম করা দলটি সেটিই করতে চায়।

অধিনায়ক ইনিয়েস্তা বলেন, আমাদের নিজেদের ওপর বিশ্বাস রাখতে হবে যে, আমরা পারব। পরাজয়ের ব্যবধানটা অনেক। কিন্তু ঘুরে দাঁড়ানোটা অসম্ভব কিছু নয়। আমরা ভুল করেছি, যে কারণে চড়া মূল্য দিতে হয়েছে। এমন ফলাফল সবকিছুই এখন কঠিন করে তুলেছে। তবে আমরা এর উল্টোটা করার সর্বোচ্চ চেষ্টা করে ট্রফিটা নিজেদের ঘরে রাখতে চাইবো। ইনিয়েস্তার সঙ্গে সুর মিলিয়েছেন ডিফেন্ডার দানি আলভেজও। ব্রাজিলিয়ান তারকা বলেন, আমরা ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টা করবো। ঘরের মাঠে নিজেদের সেরাটা দিলে সবই সম্ভব। ন্যু ক্যাম্পে নব্বই মিনিটই যথেষ্ট। তাছাড়া দুই ম্যাচে আট গোল হওয়াটা তো সাধারণ বিষয়। তবে নিজেদের ওপর আস্থা রাখতে হবে। আমরা পরবর্তী ধাপের জন্য তৈরি। দলের সবাই জয়ের ধারায় ফিরে ট্রফি জিততে মরিয়া।

আরেক ডিফেন্ডার জ্যাভিয়ের মাশ্চেরানো বলেন, এটা ঠিক আমরা হেরেছি। কিন্তু এখনও কিছুই চূড়ান্ত হয়ে যায়নি। আমরা অনেক গোলের ব্যবধানে প্রচুর ম্যাচ জিতেছি। প্রতিপক্ষ শক্ত বলে এটা কঠিন হবে, কিন্তু বার্সিলোনায় আমরা সব রকমের চেষ্ট করব। স্প্যানিশ সুপার কাপ জিততে পারলে ২০১৫ সালে পাঁচটি শিরোপা জেতা হবে লুইস এনরিকের দলের। এরই মধ্যে তারা স্প্যানিশ লা লীগা, স্প্যানিশ কোপা ডেল রে, উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লীগ ও উয়েফা সুপার কাপের শিরোপা জয় করেছে। স্প্যানিশ সুপার কাপের পর ডিসেম্বরে ফিফা ক্লাব বিশ্বকাপে লড়বেন মেসি-নেইমার-সুয়ারেজরা। এনরিকে প্রথম লেগের শুরুর একাদশে একটু বেশি পরিবর্তন আনা ভুল ছিল বলে স্বীকার করে নেন। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, অদলবদলের দায় নিচ্ছি আমি। কিন্তু এই খেলোয়াড়দের ওপর বিশ্বাস আছে আমার। আত্মবিশ্বাসের সুরে তিনি আরও বলেন, ফরে আসার সামর্থ্য ইউরোপে যদি একটা দলের থাকে, তাহলে সেটা আমরা।

যতই স্বপ্ন দেখুক না কেন বার্সা। বসে নেই বিলবাওয়ের ফুটবলাররাও। তাদের লক্ষ্য এখন একটাই শিরোপা জয়। প্রথম লেগের দুর্দান্ত হ্যাটট্রিকম্যান আরিতজ আদুরিজ বলেন, সুবর্ণ সুযোগ আমাদের সামনে। আমরা এটা কাজে লাগাতে চাই। তবে আমরা জানি দ্বিতীয় লেগে বার্সা চরম প্রতিশোধ নিতে চাইবে। কিন্তু আমরাও ছেড়ে কথা বলবোনা।

নির্বাচিত সংবাদ