২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ইতিহাস গড়ে চ্যাম্পিয়ন বিলেস

স্পোর্টস রিপোর্টার॥ দুই বছর আগে জাতীয় চ্যাম্পিয়নশিপসে প্রথমবার সেরা হয়েছিলেন বিলেস। এরপর যে আটটি মিটে অংশ নিয়েছেন সবগুলোতে জিতেছেন। গড়ে ২.১৮ পয়েন্ট এগিয়ে ছিলেন প্রতিটি জয়ে প্রতিপক্ষের চেয়ে। বিলেস নিজেকে অবশিষ্ট বিশ্বের সকল জিমন্যাস্টদের চেয়ে আলাদা এক অবস্থানে নিয়ে গেছেন। সেটা ধরে রেখেছেন গত দুইবার বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপসের অলরাউন্ড ইভেন্টে স্বর্ণজয়ী ১৮ বছর বয়সী এ তরুনী। টানা তৃতীয়বারের মতো ইউএস জাতীয় জিমন্যাস্টিকস চ্যাম্পিয়নশিপসের অলরাউন্ড ইভেন্টে চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন তিনি। সাধারণত এ ইভেন্টের ফলাফল হয়ে থাকে দশমাংশের। কিন্তু ৪.৯৫ পয়েন্ট এগিয়ে থেকে জিতেছেন বিলেস। এটি ইতিহাসের দ্বিতীয় সেরা ব্যবধানের জয়। ২৩ বছরে এই প্রথম কোন নারী ইউএস জাতীয় চ্যাম্পিয়নশিপসে টানা তিনবার চ্যাম্পিয়ন হলেন।

সাবেক মার্কিন মহিলা জিমন্যাস্টকিম জিমেসকাল বুরডেট টানা তিনটি জাতীয় চ্যাম্পিয়নশিপস চ্যাম্পিয়ন হয়েছিলেন। এবার তাঁকে ছুঁয়ে ফেললেন বিলেস। এদিন দুই রাউন্ডের এ প্রতিযোগিতায় সবমিলিয়ে ১২৪.১০০ পয়েন্ট স্কোর করেন। ম্যাগি নিকোলস দ্বিতীয়, তিনবারের অলিম্পিক পদকজয়ী এ্যালি রেইসম্যান তৃতীয়, বেইলি কি চতুর্থ এবং বতর্মান অলিম্পিক চ্যাম্পিয়ন গ্যাবি ডগলাস পঞ্চম হয়েছেন। ক্রমেই সারাবিশ্বের সব জিমন্যাস্ট থেকে নিজেকে সম্পূর্ণ আলাদা অবস্থানে নিয়ে যাচ্ছেন বিলেস। এ বিষয়ে তাঁর দীর্ঘসময়ের কোচ এইমি বুরম্যান বলেন,‘কখনই সে ভাবেনা কোন একজন তাঁকে পেছনে ফেলতে পারে। সে ধারাবাহিকতা রাখতে পেরেছে এবং সে কারণেই জিতেছে।’ গ্যাবি এবার অলিম্পিকের অলরাউন্ড ইভেন্টে স্বর্ণ জিততে পারলে ইতিহাস গড়ে ফেলবেন। কারণ সর্বশেষ ৫০ বছর আগে অলিম্পিকে কোন মহিলা জিমন্যাস্ট আগের আসরের স্বর্ণপদক পরবর্তী আসরেও ধরে রাখতে পেরেছিলেন। কিন্তু বিলেস যেভাবে এগিয়ে যাচ্ছেন এবং গ্যাবি যতটা পিছিয়ে তাতে করে সেই ইতিহাস গড়া আর হয়ে উঠবে বলে মনে হচ্ছেনা।

২০১২ অলিম্পিকে ওটু এ্যারেনায় বার ইভেন্টে গ্যাবিকে হারিয়ে দিয়েছিলেন কিশোরী বিলেস। গত মাসে শিকাগোয় হওয়া জাতীয় চ্যাম্পিয়নশিপস বাছাইয়েও বিলেসের কাছে হেরে দ্বিতীয় হন গ্যাবি। এখন অলরাউন্ডেও পেরে উঠছেন না। গত দুই বছরে কোন মিটে হারেননি বিলেস। সবমিলিয়ে এবার জাতীয় চ্যাম্পিয়নশিপস জেতার মাধ্যমে টানা ৯টি মিটে অজেয় থাকলেন। এসব কারণে আগামী বছর রিও ডি জেনিরো অলিম্পিকে স্বর্ণ জয়ের অন্যতম দাবিদার বিলেস। ১৮ বছর বয়সী এ তরুনীকে অবশ্য এর আগে পরীক্ষায় নামতে হবে আসন্ন বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপসে। আগামী শরতেই এবার স্কটল্যান্ডে শুরু হবে বিশ্ব আসর। সেখানেও টানা তৃতীয়বার চ্যাম্পিয়ন হওয়ার সুযোগ হাতছানি দিচ্ছে বিলেসকে। সেই প্রস্তুতিটা ভালভাবেই সেরে ফেললেন। যদিও শুরুটা যেভাবে করেছিলেন সেটাতে দর্শকরা তাঁকে দেখেই যে উল্লাস প্রকাশ করেছিলেন সেটাতে ভাটা পড়েছিল। ভুলভাবে শুরুটাকে মুহুর্তেই শুধরে নিয়ে মোহনীয় নৈপুণ্য দেখিয়ে সবার চোখ ছানাবড়া করে দেন বিলেস। জয়ের পর তিনি বলেন,‘আমার ঘুরে দাঁড়ানো প্রয়োজন ছিল এবং নিজেকে দ্রুত ত্রুটিমুক্ত করতে চেয়েছি। জিমেসকালের সমান হয়ে যাওয়াটা সত্যিই অনেক বড় মর্যাদার। কারণ আমি তাঁকে অনুসরণ করি।’ এবার আরেকটি রেকর্ড ছোঁয়ার সুযোগ আগামী বছর জাতীয় চ্যাম্পিয়নশিপস জিতে। কারণ টানা চারবার চ্যাম্পিয়ন হয়ে রেকর্ড দখলে রেখেছেন জোয়ান মুর ন্যাট। তিনি ১৯৭১ থেকে ১৯৭৪ পর্যন্ত জাতীয় প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন হয়েছিলেন।