২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

স্বপ্নের ফাইনালে বাংলাদেশ প্রতিপক্ষ ভারত

  • সাফ অনুর্ধ ১৬ ফুটবল

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ গৌরবময় কীর্তিগাথা রচনা করেছে বাংলাদেশের কিশোর ফুটবলাররা। দক্ষিণ এশিয়ার শ্রেষ্ঠত্বের আসর সাফ অনুর্ধ ১৬ ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপে প্রথমবারের মতো ফাইনাল মঞ্চে নাম লিখিয়েছে বাংলার আগামীর তরুণেরা। রবিবার সন্ধ্যায় সিলেট জেলা স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত আসরের প্রথম সেমিফাইনালে বাংলাদেশ অনুর্ধ ১৬ দল ১-০ গোলে পরাজিত করে আফগানিস্তান অনুর্ধ ১৬ দলকে। স্বাগতিকদের হয়ে জয়সূচক গোল করে নায়ক বনে যান আগামীর তারকা মিডফিল্ডার সাদ উদ্দিন। এই জয়ে অধরা শিরোপা জয়ের শেষ ধাপে পৌঁছে গেছে বাংলার দামাল কিশোররা।

প্রথম দুই আসরে সেমিফাইনাল থেকে বিদায় নিয়েছিল বাংলাদেশ। টানা দুই আসরে ফাইনালে খেলতে না পারার ব্যথা ভুলতে পারেননি বাংলার কিশোররা। নেপাল থেকে বয়ে নিয়ে আসা সেই কষ্টের তীব্রতাকে এবার আর বাড়াতে দেয়নি দেশের আগামীর সৈনিকেরা। নজরকাড়া, দৃষ্টিনন্দন ফুটবল উপহার দিয়ে তৃতীয় প্রচেষ্টায় ফাইনালে নাম লিখিয়েছে তারা। এখন অপেক্ষা ফাইনাল জিতে গোটা জাতিকে আরেকবার বিজয়ের আনন্দে ভাসানো। মঙ্গলবার এ লক্ষ্যেই মাঠে নামবে কোচ সৈয়দ গোলাম জিলানীর দল। বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক শাওন হোসেন সেমিতে আফগান বধের পর জানিয়েছেন, শিরোপা জিততে নিজেদের সবটুকু নিংড়ে দেবেন তারা।

ম্যাচের শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত দাপটের সঙ্গে খেলে বাংলাদেশের কিশোররা। প্রথমার্ধে অবশ্য রেফারির ভুলে পিছিয়ে পড়তে পারত স্বাগতিকরা। কিন্তু পেনাল্টি থেকে গোল করতে ব্যর্থ হয় অতিথি আফগানিস্তান। সেটা ম্যাচের ৩৭ মিনিটের ঘটনা। বাংলাদেশের ডিফেন্ডার জাহাঙ্গীর আলম ডি বক্সের মধ্যে প্রতিপক্ষের স্ট্রাইকার নাসের আমিনীকে ফাউল করলে পেনাল্টির নির্দেশ দেন ভারতীয় রেফারি প্রিয়বর্ত সিং। কিন্তু আফগান অধিনায়ক অমিদ হায়দারের নেয়া স্পট কিক চলে যায় ক্রসবারের ওপর দিয়ে।

গোলশূন্য প্রথমার্ধের পর দ্বিতীয়ার্ধের ৫০ মিনিটে বাংলাদেশকে জয় এনে দেয়া মহামূল্যবান গোলটি করেন সাদ উদ্দিন। স্ট্রাইকার সারোয়ার জামান নিপুর পাস থেকে লক্ষ্যভেদ করেন তিনি। এরপর দু’দলই কয়েকটি সহজ সুযোগ পেলেও কাজে লাগাতে ব্যর্থ হয়। বিশেষ করে ম্যাচে ফিরতে মরিয়া আফগানরা শেষদিকে বাংলাদেশকে চেপে ধরে। কিন্তু স্বাগতিক গোলরক্ষক ফয়সালের অসাধারণ নৈপুণ্যে ফাইনাল নিশ্চিত হয় বাংলাদেশের।