১৮ অক্টোবর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

যশোরে টানা বর্ষণে বেহাল সড়ক ॥ বরাদ্দ নেই

স্টাফ রিপোর্টার, যশোর অফিস ॥ টানা বর্ষায় যশোরের সড়ক-মহাসড়ের বেহাল অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। সংস্কারের জন্য সংশ্লিষ্ট দফতর মন্ত্রণালয়ে বরাদ্দের আবেদন করলেও সাড়া মেলেনি। প্রধান প্রধান সড়কগুলোতে বৃষ্টির পানি জমে ছোট বড় অসংখ্য গর্তের সৃষ্টি হয়েছে। এবড়ো থেবড়ো রাস্তায় ঝুঁকি নিয়ে চলছে যানবাহন। সাধারণ মানুষের চলাচলে চরম দুর্ভোগের সৃষ্টি হচ্ছে। কবে নাগাদ ক্ষতিগ্রস্ত রাস্তাগুলো চলাচললের উপযোগী হবে সেটিও নিশ্চিত নয়।

যশোর সড়ক ও জনপথ বিভাগ জানায়, জেলায় তাদের সাড়ে তিনশ’ কিলোমিটার রাস্তা রয়েছে। টানা বর্ষণে পানি জমে কমপক্ষে ১৪ কিলোমিটার রাস্তা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এর মধ্যে নাভারণ-ইলিশমারি-সাতক্ষীরা সড়কের চার কিলোমিটার, যশোর-বেনাপোলের দুই কিলোমিটার, মদনপুর কলেজ-ত্রিমোহিনীর এক কিলোমিটার ও মণিরামপুর-ঝিকরগাছা পাঁচ কিলোমিটার সড়কের বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। শহরের পালবাড়ি-খাজুরা বাসস্ট্যান্ড সড়কের অবস্থাও বেহাল। এছাড়াও খাজুরা বাস স্ট্যান্ড থেকে মনিহার সিনেমা হল হয়ে মুড়লী এবং মনিহার সিনেমা হল থেকে নড়াইল সড়কের অধিকাংশ স্থানে বড় বড় গর্ত সৃষ্টি হয়েছে। শহরের আশপাশের অনেক সড়ক খানাখন্দে ভরে গেছে। সেগুলো ইটের খোয়া ফেলে চলাচলের উপযোগী করা হচ্ছে। ভাঙ্গাচোরা সড়কে প্রতিদিন হাজারো মানুষ দুর্ভোগের শিকার হচ্ছে। সূত্র জানায়, সড়ক ও জনপথ বিভাগ ক্ষয়-ক্ষতির যে হিসাব দিয়েছে, সড়কের ক্ষতি তার চেয়ে বেশি। যশোর সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মেহেদী ইকবাল জানান, টানা বর্ষণের পানি জমে জেলায় ১৪ কিলোমিটার রাস্তা সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এছাড়াও অনেক রাস্তায় ছোট ছোট গর্ত সৃষ্টি হয়েছে। এ সব রাস্তা ক্ষতিগ্রস্ত হিসেবে চিহ্নিত করা হয়নি। রুটিন ওয়ার্ক হিসেবে ছোট ছোট গর্তে ইটের খোয়া ফেলে চলাচলের উপযোগী করা হচ্ছে। ক্ষতিগ্রস্ত সড়ক সংস্কারের জন্য মন্ত্রণালয়ে ১৬ কোটি টাকার চাহিদা পাঠানো হয়েছে। এখনও পর্যন্ত বরাদ্দ পাওয়া যায়নি।