২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

আসছেন সিবা আলী খান

স্টাফ রিপোর্টার ॥ সাম্প্রতিক সময়ে চলচ্চিত্রের মান নিয়ে নানা প্রশ্ন তোলা হলেও অহরহই নির্মিত হচ্ছে নানা চলচ্চিত্র। এসব চলচ্চিত্রে নতুনদের অভিনয় অনেকটাই নজরে এসেছে সংশ্লিষ্টদের। বিশেষ করে পুরনোদের অনিয়মিত হওয়ার সুযোগে নতুনরা আসছেন। ফলে বেরিয়ে আসছে অনেক নতুন মুখ। তবে হতাশার কথাও শোনা গেছে। কারণ নতুনদের মধ্যে অনেকেই আবার অল্প দিনেই হাড়িয়ে যায়। ভাল পরিচালক, ভাল স্ক্রিপ্টের অভাব, কিংবা শখের প্রযোজকের পাল্লায় পরে অনেকেরই খোঁজ মেলে না। ভুল পথে পরিচালিত হোন। বেছে নেন অন্ধকারের জীবন। তবে যারা ধৈর্য এবং সাহসের সঙ্গে বন্ধুর পথ মাড়িয়ে লড়াই করেন তারাই টিকে থাকেন। এক সময় নিজের মেধা এবং যোগ্যতার প্রমাণ দিয়ে ভাল ভাল কাজ করে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেন। এমনি একজন নবাগতা অভিনেত্রী সিবা আলী খান। আগামী ২৮ আগস্ট মুক্তি পাচ্ছে এই অভিনেত্রীর প্রথম চলচ্চিত্র ‘দ্য স্টোরি অব সামারা’। তবে প্রথম কাজ হিসেবে কেমন চলচ্চিত্রে অভিনয় করতে চান? যে কোন নবাগত নায়িকার কাছে এ প্রশ্ন করা হলে তিনি হয়ত উত্তর দেবেন প্রথাগত রোমান্টিক। হ্যাঁ, প্রথাগত রোমান্টিক চলচ্চিত্রে প্রেমময় আবেদন নিয়ে হাজির হওয়াটাই নবাগত নায়িকার কাম্য। প্রথম চলচ্চিত্রে ক্যারিয়ারের কথা চিন্তা করেই পরীক্ষামূলক কাজ করার আগ্রহ থাকে না। কিন্তু সিবা আলী খান তা চাননি। তিনি চেয়েছেন এক্সপেরিমেন্ট। তাই প্রথম চলচ্চিত্রে ব্যতিক্রমী কাজ করেছেন এই নবাগতা অভিনেত্রী। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, চলচ্চিত্রে কাজ করার ইচ্ছে খুব একটা ছিল না। কিন্তু ‘দ্য স্টোরি অব সামারা’ চলচ্চিত্রের গল্প শুনে রোমাঞ্চিত হই। গল্পটা এতই ভাল লাগে যে অভিনয়ের জন্য নিজেকে প্রস্তুত করে ফেলি। তাছাড়া আমি বরাবরই সায়েন্স ফিকশন, ফ্যান্টাসি মুভির ভক্ত। হ্যাঁ, ‘দ্য স্টোরি অব সামারা’ সিবা অভিনীত প্রথম চলচ্চিত্র। চলচ্চিত্রটি মুক্তি পেতে যাচ্ছে আগামী ২৮ আগস্ট। হরর এবং সায়েন্স ফিকশনের মিশেলে তৈরি হয়েছে চলচ্চিত্রটি। এখানে রোমাঞ্চ মুখ্য নয়। তবে আল্টিমেটলি কোন ঘরানার নয়, নিজেকে পরিপূর্ণ একজন অভিনেত্রী হিসেবে দেখতে চান সিবা আলী খান। সে কারণেই পরবর্তী চলচ্চিত্র পছন্দ করতে গিয়ে রোমান্টিক-এ্যাকশন ঘরানাকেই প্রাধান্য দিয়েছেন। সেপ্টেম্বরে শুরু হতে যাওয়া সিবার দ্বিতীয় চলচ্চিত্র পরিচালনা করবেন আশিকুর রহমান আশিক। আর সব কিছু ঠিক থাকলে সিবার বিপরীতে অভিনয় করবেন আরেফিন শুভ। চলচ্চিত্রে অভিনয় করার আগে র‌্যাম্প মডেলিং এবং টিভি নাটকে অভিনয়ের অভিজ্ঞতা ছিল সিবার। কিন্তু চলচ্চিত্রে কাজ করতে এসে পুরোই বিস্মিত হয়েছেন। সিবা বলেন, জানতাম চলচ্চিত্র অনেক বড় ব্যাপার। কিন্তু সেটা যে এত বড় তা এর আগে বুঝে উঠতে পারিনি। নিজেকে অভিনয়ের জন্য শুধু প্রস্তুত করলেই হয় না। নাচ, ফাইট জানতে হয় চলচ্চিত্রে ভাল করতে হলে। প্রথম চলচ্চিত্র করতে এসেই আমাকে এসবের ঠিকঠাক তালিম নিতে হয়েছে। বলতে পারেন প্রথম চলচ্চিত্র করতে এসেই আমি এ অঙ্গনে কাজ করার জন্য নিজেকে পুরোপুরি প্রস্তুত করতে শুরু করি। সিবার সেই প্রস্তুতি শেষ। এখন ঢাকাই চলচ্চিত্রে নিয়মিত ভাল কাজ করার স্বপ্ন দেখছেন এই নবাগতা। তার জন্য সবার কাছে দোয়াও চেয়েছেন। সিবা বলেন, ঢাকাই চলচ্চিত্রে এখন কাজ ভাল হচ্ছে। আশা করি দর্শক আগের মতো হলে গিয়ে চলচ্চিত্র দেখবেন। আর আমিও নতুন নতুন ভাল চলচ্চিত্রে কাজ করার সুযোগ পাব।