২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

চিংড়ির কয়েক পদ

  • মেরিনা চৌধুরী

লতি চিংড়ি

যা লাগবে : মাঝারি সাইজের গোটা চিংড়ি ও ছোট চিংড়ি মাছ বাটা, বেবি টমেটো, নারিকেল বাটা, চিনি, সাদা তেল, কলাপাতা লাগবে থ্রাইপ্যানের সমান করে দুইটা গোল করে কাটা। কচুর লতি, লবণ, হলুদ দিয়ে সিদ্ধ করে রাখা।

যেভাবে করবেন : কলার পাতায় তেল ব্রাশ করে নেব। থ্রাইপ্যানের ওপর কলাপাতা বিছিয়ে দেব। তারপর লতিগুলো দেব। তার ওপর তেল দিয়ে ভেজে রাখা ছড়িয়ে দেব, নারিকেল ও চিংড়ি বাটা, চিনি, বেবি টমেটো ও লবণ দিয়ে মাখিয়ে লতির ওপর বিছিয়ে দেব। আরেকটা কলারপাতা তেল ব্রাশ করে ওপর থেকে ঢেকে দিতে হবে, মৃদু আচে ২০ মি. রেখে নামিয়ে পরিবেশন করুন। উপরে নারিকেল কোরা ও ভেজে রাখা চিংড়ি মাছ দিয়ে গরম ভাতের সঙ্গে লতি চিংড়ি। সব কিছু পরিমাণ মতো নেবেন।

বাগদা চিংড়ির কালিয়া

যেভাবে করব : চিংড়ি মাছ বড় খোসা ছাড়িয়ে নেব। লবণ, হলুদ দিয়ে মাখিয়ে নেব। সরষের তেল দিয়ে গরম করে ভাজা ভাজা করে নেব। এবার তেলে একটু চিনি দিয়ে পেঁয়াজ বাটা, আদা বাটা ও রসুন বাটা দিয়ে টমেটো পিউরি জিরাগুড়া, লবণ, মরিচ বাটা মাখিয়ে তেলে দিয়ে দেব। কষিয়ে নিয়ে ফেটানো দই ও কাজু ১ চামচ, ১ চামচ কিসমিস দিয়ে নারিকেলের দুধ দিয়ে ভাজা চিংড়ি দিয়ে দেব। শুকনা মরিচগুঁড়া সামান্য জায়াফল ও জয়ত্রিগুঁড়া দেব। তেল উঠে এলে নামিয়ে কাজু বাদাম দিয়ে সাজিয়ে পরিবেশন করুন মজাদার বাগদা চিংড়ির কালিয়া। ভাত ও পোলাউ-এর সঙ্গে খাওয়া যায়।

মুচমুচে চিংড়ি

যা লাগবে : বেশন, চালের গুঁড়া, চিনি রসুন ও আদা কুচি, খাবর সোডা সামান্য, লবণ বাটা, গুল মরিচগুঁড়া, আলু সিদ্ধ, খোসা ছাড়া বড় চিংড়ি ও ছোট চিংড়ি বাটা হলুদ গুঁড়া।

যেভাবে করবেন : প্রথমে মাখন দিয়ে রসুন কুচি, আদা কুচি, পেঁয়াজ কুচি দিয়ে গোটা চিংড়ি হলুদ গুঁড়া গুলমরিচ গুঁড়া দিয়ে নাড়াচাড়া করে চিংড়ি মাছ তুলে নেব। চিংড়ি মাছ বাটা ও আলু সিদ্ধ ভেজে রাখা মসলার মধ্যে লবণ ও চিনি খাবার সোডা দিয়ে ভাল করে মিশিয়ে নেব। প্লেটে চালের গুঁড়া বেশন একটু খাবার রং সব মিশিয়ে নেব। মাছ আলুর মসলা হাতে নিয়ে ভেতরে ১টা চিংড়ি মাছ সামান্য মাখন দিয়ে বেশন ও চালের গুঁড়ার মধ্যে ডাভিয়ে নেব। এবং লেজটা বাহিরে থাকবে। গরম তেলে ভেজে নিতে হবে। চাটনির সঙ্গে পরিবেশন করুণ।

ধনেপাতা গলদা চিংড়ি

যা লাগবে : চিংড়ি, হলুদ, পেয়াজ কুঁচি, আদা, রসুন কাঁচামরিচ, দই, চিনি, কাজু বাদাম বাটা, লবণ ধনেপাতা, কুচি ও গরম মসলা গুঁড়া।

যেভাবে করবেন : লবণ ও হলুদ দিয়ে ভেজে রাখা মাছ তুলে নেব। তেলে পেঁয়াজ কুচি ভেজে তার ভেতর পেঁয়াজ বাটা দিয়ে আদা, রসুন, অল্প করে কাঁচামরিচ দিয়ে ঢেকে দেব। দই, চিনি, কাঁচামরিচ বাটা, কাজুবাদাম বাটা, লবণ ও হলুদ দিয়ে ভেজে রাখা চিংড়ি মাছ দিয়ে পানি দিয়ে ঢেকে দেব। হালকা আঁচে ধনেপাতা কুচি ও গরম মসলা গুঁড়া দিয়ে দেব। হয়ে যাবে ধনে পাতা কষাা গলদা চিংড়ি।

সরষে চিংড়ি

যা লাগবে : চিংড়ি, কোড়ানো নারকেল, পেঁয়াজ বাটা, সরষে বাটা, হলুদ, মরিচ ও লবণ পরিমাণ মতো।

যেভাবে করবেন : চিংড়ি নারিকেল কোরা ২ চামচ, হলুদ, মরিচ, লবণ, চিনি সরষে বাটা পেঁয়াজ বাটা দিয়ে কষিয়ে রান্না করতে হবে। নামানোর আগে একটু ঘি দিয়ে কাঁচামরিচ চেরা দিয়ে নামিয়ে পরিবেশন করুন মজাদার সরষে চিংড়ি।

চিংড়ি তেলে ঝালে কষা

যা লাগবে : চিংড়ি মাঝারি সাইজ, লেবুর রস, সয়াসস, পেঁয়াজ কুচি ও মরিচ ফালি।

যেভাবে করব : মাঝারি সাইজের চিংড়ি খোসা ছাড়িয়ে নেব। একটা বোলো চিংড়ি ও সামান্য লেবুর রস বা সয়াসস দিয়ে মাখিয়ে রাখতে হবে। প্যানে সরিষার তেল গরম করে পেঁয়াজ ও মরিচ ফালি দিয়ে ভেজে নিয়ে তার মধ্যে চিংড়ি দিয়ে ভাজা ভাজা করে নিতে হবে। হয়ে যাবে চিংড়ির তেলে ঝালে। গরম ভাতের সঙ্গে খুব ভাল লাগবে।

নির্বাচিত সংবাদ