২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

সংখ্যালঘু সমস্যা সমাধানে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রীর হস্তক্ষেপ

সংখ্যালঘু  সমস্যা সমাধানে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রীর হস্তক্ষেপ

নিজস্ব সংবাদদাতা, পার্বতীপুর॥ পার্বতীপুর উপজেলার রামপুর ইউনিয়নে পাশাপাশি দুই গ্রাম রঘুনাঘপুর ঘাটপাড়া ও ডাঙ্গাপাড়ায় প্রাথমিক ও গনশিক্ষা মন্ত্রী এ্যাডভোকেট মোস্তাফিজুর রহমান এম পি রবিবার বিকেল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত অবস্থান করেন। তিনি এখানে সমাবেশে সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে তিনি বলেছেন, হিন্দু, মুসলমানসহ অনান্য জাতি- ধর্মাবলম্বী মানুষ অসম্প্রদায়িক বাংলাদেশে সমান অধিকার নিয়ে বসবাস করে । বাইরের উস্কানিতে যাতে এই সম্প্রীতি বিনষ্ট না হয় সে ব্যাপারে সবাইকে সজাগ থাকতে হবে। তিনি গ্রাম দুটি পরিদর্শন করে গ্রামবাসীদের সাথে কথা বলে জমি নিয়ে সংঘর্ষ ও সংখ্যালঘুদের ঘরবাড়ীতে অগ্নিকান্ডের প্রকৃত ঘটনা জানার চেষ্টা করেন। শেষে গ্রামবাসীদের সম্মতিক্রমে আপোষ মিমাংসায় সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন ও উপজেলার আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দদের দায়িত্ব দেন। তারা নিরপেক্ষ কমিটি গঠন করে আপোষ ফর্মুলা তৈরীর পর মন্ত্রী মিমাংসার আনুষ্টানিক ঘোষনা দিবেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন ধর্ম মন্ত্রনালয়ের হিন্দু ধর্মীয় কল্যান ট্রাস্টের দুই ট্রাস্টি স্বপন কুমার রায়, রতিশ কুমার ভৌমিক, দিনাজপুরের পুজা উৎযাপন কমিটির সভাপতি শচিন্দ্রনাথ শাহা সহ স্থানীয় আওয়ামী লীগ দলীয় নেতৃবৃন্দ ।

গত ঈদুল ফিতরের দিন রাতে সংখ্যালঘু গ্রাম ঘাটপাড়ায় অগ্নিকান্ড তার আগের দিনে জমির দখল নিয়ে উভয় পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এ ব্যাপারে পার্বতীপুর মডেল থানায় দুটি মামলা দায়ের হয়েছে। ঘাটপাড়ার সংখ্যালঘুদের নিরাপত্তায় ঘটনার পর থেকে এখন পর্যন্ত সেখানে অস্থায়ী পুলিশ ক্যাম্প রয়েছে। এ ঘটনার পর দৈনিক জনকন্ঠে রিপোর্ট প্রকাশিত হয়েছে।