২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

পতনের ধারা থেকে বের হতে পারছে না দেশের পুঁজিবাজার

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ পতনের ধারাবাহিকতা থেকে বের হতে পারছে না দেশের পুঁজিবাজার। আগের সপ্তাহের শেষ হয়েছিল পতন দিয়ে। রবিবারের পতনের পর সোমবারও দেশের উভয় স্টক এক্সচেঞ্জেই লেনদেন শেষ হয়েছে পতন দিয়ে। তবে পতনে লেনদেন হলেও দুই স্টক এক্সচেঞ্জেই লেনদেনেই লেনদেন আগের তুলনায় বেড়েছে। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) ও চট্টগ্রাম স্টক একচেঞ্জ (সিএসই) ওয়েবসাইট সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

ডিএসইর বাজার পর্যালোচনা অনুসারে, সোমবার ডিএসইতে ৬১০ কোটি ৪৮ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে; যা আগের দিনের তুলনায় ৭৭ কোটি ৭ লাখ টাকা বেশি লেনদেন। আগের দিন এ বাজারে ৫৩৩ কোটি ৪০ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে।

ডিএসইতে লেনদেনে অংশ নেয় ৩১৮টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ড। এর মধ্যে দর বেড়েছে ১১৮টির, কমেছে ১৫৯টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৪১টির শেয়ার দর।

সকালে সূচকের ইতিবাচক প্রবণতা দিয়ে শুরুর পরেও দিনশেষে সার্বিক সূচক কিছুটা কমেছে। দিনশেষে ডিএসইর সার্বিক সূচক বা প্রধান মূল্য সূচক ১৫ পয়েন্ট কমে ৪ হাজার ৭৬৮ পয়েন্টে অবস্থান করছে। ডিএসইএস বা শরীয়াহ সূচক ১০ পয়েন্ট কমে অবস্থান করছে এক হাজার ১৭৩ পয়েন্টে। ডিএস৩০ সূচক ১৭ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে এক হাজার ৮২৭ পয়েন্টে।

ডিএসইতে লেনদেনের শীর্ষে থাকা দশ কোম্পানি হলো - ইসলামি ব্যাংক, রতনপুর স্টিল রি-রোলিং মিলস লিমিটেড, শাহজিবাজার পাওয়ার কোম্পানি লিমিটেড, অ্যাপেক্স ট্যানারি, ইউনাইটেড পাওয়ার জেনারেশন অ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেড, স্কয়ার ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেড, সেন্ট্রাল ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেড, লাফার্জ সুরমা, গ্রামীণ ফোন এবং আইএফআইসি ব্যাংক।

সোমবার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) ৪৮ কোটি টাকার শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এদিন সিএসই সার্বিক সূচক ৫৩ পয়েন্ট কমে দাঁড়িয়েছে ১৪ হাজার ৬৪৩ পয়েন্টে। সিএসইতে মোট লেনদেন হয়েছে ২৬২টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের শেয়ার। এর মধ্যে দর বেড়েছে ৮১টি কোম্পানির, দর কমেছে ১৩৫টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৪৬টি কোম্পানির।

সিএসইর লেনদেনের সেরা কোম্পানিগুলো হলো : ইউনাইটেড পাওয়ার জেনারেশন অ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেড, অলিম্পিক এক্সেসরিজ, ইসলামী ব্যাংক, শাহজিবাজার পাওয়ার, বে´িমকো, আরএসআরএম স্টিল, লাফার্জ সুরমা সিমেন্ট, সেন্ট্রাল ফার্মা, অ্যাপেক্স ট্যানারি ও আইএফআইসি ব্যাংক।