২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮  ঢাকা, বাংলাদেশ  
শেষ আপডেট এই মাত্র    
ADS

ভিক্রান্তের মুক্তিযুদ্ধ স্মারক নৌবাহিনীর কাছে হস্তান্তর

স্টাফ রিপোর্টার ॥ বাংলাদেশের মহান মুক্তিযুদ্ধে সাহায্যকারী ভারতীয় নৌবাহিনীর বিমানবাহী রণতরী ‘ভিক্রান্তের’ ‘সেরিমোনিয়াল লাইফবয়’ এবং ‘ব্রিজ উইন্ডো ফ্রেম’ স¥ারকচিহ্ন সোমবার আনুষ্ঠানিকভাবে বাংলাদেশ নৌবাহিনীর কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। নৌসদর দফতরে অবস্থিত সাগরিকা হলে এই হস্তান্তর অনুষ্ঠানটি হয়। অনুষ্ঠানে বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতীয় হাইকমিশনার পঙ্কজ শরন বাংলাদেশ নৌবাহিনী প্রধান ভাইস এডমিরাল এম ফরিদ হাবিবের কাছে স¥ারকচিহ্ন দুটি তুলে দেন।

ভারতীয় নৌবাহিনীর বিমানবাহী রণতরী ‘আইএনএস ভিক্রান্ত’ ১৯৭১ সালে বাংলাদেশের মহান মুক্তিযুদ্ধে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। মুক্তিযুদ্ধের সময় তৎকালীন ভারতীয় নৌবাহিনীর আধুনিক এই যুদ্ধজাহাজের সাহসী ভূমিকার কারণেই দখলদার পাকিস্তান বাহিনীর আত্মসমর্পণ ত্বরানি¡ত হয়েছিল। এ সময় বঙ্গোপসাগরে মোতায়েন এই রণতরী থেকে বিমান আক্রমণ পরিচালনার ফলে পাকিস্তান নৌবাহিনীর অপারেশনাল কার্যক্রম স্থবির হয়ে পড়ে। এই যুদ্ধজাহাজের স¥ারকচিহ্ন বাংলাদেশ নৌবাহিনীর জাদুঘরে রাখা হয়েছে।

ভারতীয় নৌবাহিনী ১৯৯৭ সালে ‘আইএনএস ভিক্রান্ত’কে ডি-কমিশন করে। পরবর্তীতে ২০০১ থেকে ২০১২ সাল পর্যন্ত রণতরীটি সামুদ্রিক জাদুঘর হিসাবে ব্যবহার করা হয়। সর্বশেষ ২০১৪ সালে রণতরীটি ভেঙ্গে ফেলা হয়। ঐতিহাসিক এই রণতরীর দুটি স¥ারকচিহ্ন দীর্ঘ ৪৪ বছর পর বাংলাদেশ নৌবাহিনীর কাছে হস্তান্তর করা হলো। এর আগে গত জুন মাসে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ঢাকা সফরকালে জাহাজের একটি ‘স্টিয়ারিং হুইল’ স¥ারকচিহ্ন হিসেবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে তুলে দেন।

পর্যটন কর্পোরেশনে বঙ্গবন্ধুর জীবনী ভিত্তিক রচনা প্রতিযোগিতা

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪০তম শাহাদাতবার্ষিকী উপলক্ষে শিশু-কিশোরদের অংশগ্রহণে জাতির পিতার জীবনীভিত্তিক রচনা প্রতিযোগিতা আয়োজন করে বাংলাদেশ পর্যটন কর্পোরেশন। এই রচনা প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ করা হয় মহাখালীস্থ হোটেল অবকাশের ব্যাঙ্কুয়েট হলে। রচনা প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে সংস্থায় কর্মরত কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের সন্তানরা। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪০তম শাহাদাতবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত রচনা প্রতিযোগিতা, আলোচনা সভা ও দোয়া মহফিলে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ পর্যটন কর্পোরেশনের চেয়ারম্যান ড. অপরূপ চৌধুরী। সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ পর্যটন কর্পোরেশনের পরিচালক ড. মোঃ নাসির উদ্দিন।

তিন পর্যায়ে এ প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারী শিক্ষার্থীদের ১ম, ২য় ও ৩য় এভাবে ৯টি পুরস্কার ও সনদপত্র প্রদান করা হয়। Ñবিজ্ঞপ্তি

‘এইচআর লিডারশিপ এ্যাওয়ার্ড’ পেলেন মাশেকুর রহমান

মানব সম্পদ উন্নয়নে অবদান

স্টাফ রিপোর্টার ॥ আন্তর্জাতিক ‘এইচআর লিডারশিপ এ্যাওয়ার্ড’ পেলেন ইব্রাহিম কার্ডিয়াক হসপিটাল এ্যান্ড রিসার্চ ইনস্টিটিউটের মহাব্যবস্থাপক (মানবসম্পদ ও প্রশাসন) মোঃ মাশেকুর রহমান খান। বাংলাদেশ সোসাইটি ফর হিউম্যান রিসোর্সেস ম্যানেজমেন্টের (বিএসএইচআরএম) লাইফ ফেলো ও ট্রেজারার মাশেকুর রহমান খানকে গেল সপ্তাহে সিঙ্গাপুরে অনুষ্ঠিত সম্মেলনে এ্যাওয়ার্ড প্রদান করা হয়। মাশেকুর রহমান খানের মানবসম্পদ উন্নয়নে অবদান, তার দক্ষতা, শিক্ষা, প্রশিক্ষণ, লেখনী ইত্যাদি বিবেচনা করে জুরি বোর্ড এ এ্যাওয়ার্ডের জন্য তাঁকে মনোনয়ন করেন। সম্মেলনে ৩৪টি দেশের বিভিন্ন পেশাজীবী, শিক্ষাবিদ ও শিল্পপতিরা উপস্থিত ছিলেন।